খেলা

মাশরাফির ওভারটিই ছিল ভাইটাল: গেইল

সিলেটের জিততে শেষ চার ওভার থেকে দরকার ছিল ৩৫ রান। উইকেটে শতরানের জুটি গড়া সাব্বির ও নাসির। বল করতে এলেন প্রথম তিন ওভারে ১৬ রান দেওয়া মাশরাফি মর্তুজা। ওই ওভারে দিলেন মাত্র ২ রান। মোমেন্টাম পেয়ে গেল রংপুর। চড়া হতে থাকা সমীকরণ পরে আর মেলাতে পারেনি সিলেট। ম্যাচ সেরা ক্রিস গেইল মনে করে তাদের জেতায় অধিনায়কের ওভারটিই ছিল ভাইটাল।
বাবর আজমকে আউট করার পর মাশরাফিকে ঘিরে সতীর্থদের উল্লাস। ছবিঃ ফিরোজ আহমেদ

সিলেটের জিততে শেষ চার ওভার থেকে দরকার ছিল ৩৫ রান। উইকেটে শতরানের জুটি গড়া সাব্বির ও নাসির। বল করতে এলেন প্রথম তিন ওভারে ১৬ রান দেওয়া মাশরাফি মর্তুজা। ওই ওভারে দিলেন মাত্র ২ রান। মোমেন্টাম পেয়ে গেল রংপুর। চড়া হতে থাকা সমীকরণ পরে আর মেলাতে পারেনি সিলেট। ম্যাচ সেরা  ক্রিস গেইল মনে করে তাদের জেতায় অধিনায়কের ওভারটিই ছিল ভাইটাল। 

প্রথম ১২ বল থেকে ১ রান নেওয়ার পর গেইল করেন ৩৯ বলে ৫০ রান। তার ঝড়ের পর আরও বড় সংগ্রহ গড়তে পারত রংপুর। তবে ১৬৯ রান ডিপেন্ড করতে গিয়ে মাশরাফির মাপা বোলিং হতাশা থেকে বাঁচিয়েছেন দলকে,  ‘আসলে ওই ওভারটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ওই সময় নাসির ও সাব্বির খুব ভালো ব্যাট করছিল। ওরা জেতার মতো অবস্থায় চলে গিয়েছিল। আমাদের অধিনায়ক (মাশরাফি) ওই ওভারে মাত্র ২ রান দেয় যা ছিল ভাইটাল। পরে রুবেল ও থিসিরা দারুণ  বল করেছে।’

গেইল আসবেন বলে অনেক হাইপ। তার কাছে দলের প্রত্যাশাও ছিল বিপুল। প্রথম ম্যাচে ব্যর্থ হয়ে হতাশ করেছিলেন। এবার রান পেয়ে স্বস্তিতে টি-টোয়েন্টির বড় তারকা, ‘হ্যাঁ রান পেয়ে খুশি। দলকে কিছু দিতে পেরেছি, জিতেছি। ম্যাককালামও ভালো শুরু করেছিল। এই ধরনের উইকেটে দ্রুত কিছু রান পাওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে বেশ নড়বড়ে ছিলেন গেইল। এদিনও শুরুতে ছিলেন জড়োসড়ো। পরে মেলে ধরেছেন ডানা। তবে কি মিলল আত্মবিশ্বাস? গেইলের জবাব আত্মবিশ্বাস বরাবরই মজুদ আছে তার, ‘আমার আত্মবিশ্বাস সরে যায়ইনি। আত্মবিশ্বাস সবসময় ছিল। এটা কেবল আমার দ্বিতীয় ম্যাচ। আশা করছি পরের খেলায় নিজেকে আরও মেলে ধরতে পারব। বিনোদন দিতে পারব, দলের ভালো শুরু এনে দিতে পারব।  ’

Comments

The Daily Star  | English
BSEC freezes BO accounts of Benazir, his family members

BSEC freezes BO accounts of Benazir, his family members

The Anti-Corruption Commission has recently requested the BSEC to freeze the BO accounts

53m ago