খেলা

ব্যাটিংয়ে এগিয়ে বিদেশিরা, বল হাতে বাজিমাত দেশিদের

সব মিলিয়ে ফাইনালসহ খেলা বাকি আছে আর ১২টি। বেশিরভাগ ম্যাচ শেষে ব্যাট হাতে আধিপত্য বিদেশিদের। বোলিংয়ে এগিয়ে আছেন দেশিরাই
ABu Jayed Rahi
১৫ উইকেট নিয়ে বল হতে সবার উপরে আবু জায়েদ রাহি। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

সিলেট, ঢাকা তারপর চট্টগ্রাম। তিন শহরে ৩৪ ম্যাচ শেষে বিপিএল এসে দাঁড়িয়েছে প্লে-অফের কিনারে। আর ৮ ম্যাচ পরই প্লে অফ রাউন্ড। সব মিলিয়ে ফাইনালসহ খেলা বাকি আছে আর ১২টি।  বেশিরভাগ ম্যাচ শেষে ব্যাট হাতে আধিপত্য বিদেশিদের। বোলিংয়ে এগিয়ে আছেন দেশিরাই।

Robi Bopara
ব্যাট হাতে এগিয়ে আছে রবি বোপারা। ছবি: ফিরোজ আহমেদ
ব্যাটিংয়ে এ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি রান রংপুর রাইডার্সের রবি বোপারার। ৯ ম্যাচে ১২২.৪৩ স্ট্রাইকরেটে ৩২২ রান করেছেন এই ইলিংশ ব্যাটসম্যান। সমান ম্যাচে ২ রান কম করে দুইয়ে আছেন ঢাকা ডায়নামাইটসের এভিন লুইস। ৩২০ রান করতে এই ক্যারিবিয়ান বল খেলেছেন অনেক কম। তার স্ট্রাইক রেট ১৬৮.৪২। ৯ ম্যাচে ২৭৩ রান করে তিনে আছেন চিটাগাং ভাইকিংসের কিউই ব্যাটসম্যান লুক রনকি। এই রান তুলতে তিনি খরচ করেছেন মাত্র ১৫৭ বল। সেরা পাঁচে তার স্ট্রাইক রেটই সবচেয়ে বেশি (১৭৩.৮৮)।

দেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সেরা পাঁচে কেবল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।
সেরা পাঁচে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি খুলনা টাইটান্স অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ৯ ম্যাচ খেলে এ পর্যন্ত ২৬৩ রান করে ফেলেছেন মাহমুদউল্লাহ। তার স্ট্রাইক রেট ১৩০.১৯।

পাঁচে থাকা সিলেট সিক্সার্সের আন্দ্রে ফ্লেচার ৮ ম্যাচ খেলে করতে পেরেছেন ২৬০ রান। ক্যারিবিয়ান এই আগ্রাসী ডানহাতির স্ট্রাইক রেড় ১৩৬.৮৪।

বল হাতে ঠিক উলটো চিত্র। এ পর্যন্ত উইকেটশিকারে প্রথম পাঁচজনের সবাই দেশি। সাকিব আল হাসান ছাড়া চারজনই আবার পেসার। সবার উপরে আছেন খুলনা টাইটান্সের আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি। ৯ ম্যাচ খেলে ১৫ উইকেট পেয়ে গেছেন এখনো জাতীয় দলে না খেলা এই তরুণ। অবশ্য উইকেট পেতে বেশ মার খেয়েছেন তিনি। রাহির ইকোনমি রেট-৯.২১।

আবু হায়দার রনি আর সাকিব আল হাসান। বল হাতে ঢাকার হিরো দুজনেই।
ঢাকা ডায়নামাইটস অধিনায়ক সাকিব আল হাসান আছেন পরের স্থানে। সমান খেলায় ১৩ উইকেট নিয়েছেন সাকিব। সেরা পাঁচে রান দেওয়ার দিক থেকে সাকিবই সবচেয়ে কিপটে। তার ইকনোমি রেট- ৭.২৯। তিন নম্বরে আছে চিটাগাং ভাইকিংস পেসার তাসকিন আহমেদ। সমান ম্যাচে সাকিবের মতো ১৩ উইকেট তারও। তবে তিনি মার খেয়েছেন সবচেয়ে বেশি। তাসকিনের ইকনোমি রেট -৯.৬১। ঢাকা ডায়নামাইটসের বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি এবারও পাচ্ছেন সাফল্য। ১২ উইকেট নিয়ে তিনি আছেন চারে। ইকোনমিটাও মন্দ নয়-৭.৬৯। সেরা পাঁচে শেষ নামটি মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের। বিপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে খরুচে ওভার করার পরও তার ইকনোমি রেট- ৭.৫৬। উইকেট নিতে পেরেছেন ১২টি।

 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

No global leader raised any questions about polls: PM

The prime minister also said that Bangladesh's participation in the Munich Security Conference reflected the country's commitment to global peace

3h ago