মেরিয়াম ওয়েবস্টারে ‘সন্ত্রাসবাদ’ নয়, ‘নারীবাদ’-ই ২০১৭ সালের সেরা শব্দ নির্বাচিত

‘সন্ত্রাসবাদ’ নয়, ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশি খোঁজ করা হচ্ছে ‘নারীবাদ’ বা ‘ফেমিনিজম’ শব্দটি। রাজনৈতিক, সমাজকর্মী থেকে গবেষক কিংবা সেলিব্রেটি থেকে আমজনতা-- সবাই ‘ফেমিনিজম’ শব্দটি খুঁজছেন বিশ্বখ্যাত অনলাইন শব্দকোষ মেরিয়াম ওয়েবস্টার-এ গিয়ে। আর এই নিরিখেই ২০১৭ সালের সেরা শব্দ হিসেবে নির্বাচিত হল ‘নারীবাদ’ বা ‘ফেমিনিজম’।
Feminism
২০১৭ সালে ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশি খোঁজ করা হয়েছে ‘নারীবাদ’ বা ‘ফেমিনিজম’ শব্দটি। ছবি: রয়টার্স

‘সন্ত্রাসবাদ’ নয়, ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশি খোঁজ করা হচ্ছে ‘নারীবাদ’ বা ‘ফেমিনিজম’ শব্দটি। রাজনৈতিক, সমাজকর্মী থেকে গবেষক কিংবা সেলিব্রেটি থেকে আমজনতা-- সবাই ‘ফেমিনিজম’ শব্দটি খুঁজছেন বিশ্বখ্যাত অনলাইন শব্দকোষ মেরিয়াম ওয়েবস্টার-এ গিয়ে। আর এই নিরিখেই ২০১৭ সালের সেরা শব্দ হিসেবে নির্বাচিত হল ‘নারীবাদ’ বা ‘ফেমিনিজম’।

অভিধান সংস্থার বরাত দিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম এই খবর দিয়ে আরো জানিয়েছে যে, বিগত বছর গুলোর তুলনায় চলতি বছরে ৭০ শতাংশ বেড়েছে ‘নারীবাদ’ শব্দের অর্থ সন্ধানের খোঁজ।

শুধু তাই নয়, অভিধানটিতে এই ‘নারীবাদ’ শব্দটিকে রাজনীতি, অর্থনীতি এবং নারী-পুরুষের সামাজিক সমতার তত্ত্ব বলেও সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে।

কেন আচমকাই ‘নারীবাদ’ শব্দটির খোঁজ করার তাগিদ বেড়ে গেল বিশ্বজুড়ে, বিশেষ করে মার্কিন মুল্লুকে-- এর একাধিক কারণও বিশ্লেষণ করেছে অভিধান সংস্থা মেরিয়াম ওয়েবস্টার।

যেমন একটি সম্ভাবনায় তারা বলছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের বেশ কয়েক বছর আগে নারীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। সেই ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন হোয়াইট হাউসের বাসিন্দা হলেন, তখন দেশটির নারী সমাজের একটি বড় অংশ ওই ইস্যুতে তুমুল প্রতিবাদ শুরু করেন। ‘নারীবাদ’ বিশ্বাস করে এমন একাধিক সংগঠন মনে করেছিল, ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর নারীরা ঝুঁকির মধ্যে পড়বেন। আর তা নিয়ে প্রতিবাদ-সভা, মিছিলে সোচ্চার হন নারী-পুরুষ। টকশোগুলোতেও মুখরিত ছিলেন আলোচক-সমালোচক মহল। নারীবাদ অর্থাৎ ‘ফেমিনিজম’ শব্দটির খোঁজ তখনই এক লাফে অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল।

আরো একটি কারণ থাকার কথাও মানছে বিশ্বখ্যাত অনলাইন তথ্যভাণ্ডার মেরিয়াম ওয়েবস্টার। তারা মনে করছে, এই বছরের শুরুর দিকে হলিউডের নামি-দামি তারকাও অন্যান্যদের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠার পর ‘মি-টু’ প্রচারে ‘হ্যাশট্যাগ’ দিয়ে বিশ্বের বহু নারীকে জানিয়েছে তাদের প্রতিবাদের কথা। আর এ কারণে হঠাৎ মেরিয়াম ওয়েবস্টারের সার্চ ইঞ্জিনে খোঁজার তালিকায় শীর্ষে উঠে আসে ‘নারীবাদ’ বা ’ফেমিনিজম’ শব্দটি।

শব্দের অর্থ সন্ধানে ‘সন্ত্রাসবাদ’ ছিল গত কয়েক বছরের শীর্ষ তালিকায়। সেই ‘সন্ত্রাসবাদ’-কে এখন পেছনে ফেলে ‘নারীবাদ’ শব্দের অর্থ খোঁজার দৌড়ে এগিয়ে যাওয়া নিয়ে অনেকেই উপহাস করে বলছেন, আসলে ট্রাম্পের সময়কালে মার্কিন মুল্লুকে ‘সন্ত্রাসবাদ’ এখন আর ইস্যু নয় ইস্যু শুধুই ‘নারীবাদ’।

উল্লেখ্য, আজ (১৫ ডিসেম্বর) ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা বিবিসি জানায়, অক্সফোর্ড অভিধানে এবছর সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে ‘ইযুথকোয়াক’ শব্দটি।

Comments

The Daily Star  | English
Bank mergers in Bangladesh

Bank mergers: All dimensions must be considered

In general, five issues need to be borne in mind when it comes to bank mergers in Bangladesh.

10h ago