ইলিশ রপ্তানির ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সম্ভাবনা, স্বাগত জানাল পশ্চিমবঙ্গ

ইলিশ রপ্তানির ওপর বাংলাদেশের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার চিন্তাভাবনাকে স্বাগত জানিয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।
hilsa
স্টার ফাইল ফটো

ইলিশ রপ্তানির ওপর বাংলাদেশের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার চিন্তাভাবনাকে স্বাগত জানিয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।

ইলিশ রপ্তানি ফের চালু হতে পারে এই খবরটি গণমাধ্যম থেকে জানতে পারেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মৎসমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা। যোগাযোগ করা হলে তিনি টেলিফোনে দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “পশ্চিমবঙ্গের মানুষ পদ্মার ইলিশের জন্য উন্মুখ হয়ে থাকেন। তাদের জন্য এটি সুখবর।” বাংলাদেশ সরকারের নতুন মৎসমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি আরো বলেন, “আমরা খবরে জানতে পেরেছি ইলিশ রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্তটি তুলে নেওয়া হতে পারে।”

বাংলাদেশের ইলিশ আমদানিতে প্রতিবেশী ভারত শীর্ষে রয়েছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, আসাম, বিহার, ঝাড়খণ্ড, মনিপুর ও মিজোরাম রাজ্যে হাজার হাজার টন পদ্মার ইলিশ আমদানি করা হতো। গত ২০১২ সালের ১ আগস্ট থেকে বাংলাদেশ সরকার ইলিশ সংগ্রহ ও সরবরাহের ভারসাম্য বজায় রাখতে বিদেশে ইলিশ রপ্তানি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

এরপর বহুবার ভারতীয় ইলিশ আমদানিকারকরা দিল্লি-ঢাকাকে ইলিশ আমদানি-রপ্তানি শুরু করার অনুরোধ জানান। এমনকি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও কয়েক দফায় অনানুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ সরকারের কাছে ইলিশ রপ্তানির অনুরোধ জানিয়েছিলেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তাঁর ঢাকা সফরের সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এপারে পদ্মার ইলিশ পাঠানোর অনুরোধ করে এসেছিলেন। যদি ইলিশ রপ্তানি শুরু হয় তবে মুখ্যমন্ত্রীও খুশি হবেন বলে মনে করেন পশ্চিমবঙ্গের মৎসমন্ত্রী।

তবে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার এ বিষয়ে এখনই খুব বেশি খুশিও নয়; তারও ইঙ্গিত দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা। মন্ত্রীর ভাষায়, “এখন তো আর ইলিশের মৌসুম নয়। তাছাড়া গত ইলিশ মৌসুমে পশ্চিমবঙ্গের মোহনা থেকেও প্রচুর সংখ্যক ইলিশ ধরা পড়ে। রাজ্যের মানুষ খুব কম দামে ইলিশ খেতে পেরেছে এবার।”

ইলিশ রপ্তানির সিদ্ধান্ত চূড়ান্তভাবে ঘোষণা করা হলে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন পশ্চিমবঙ্গের কয়েক হাজার ইলিশ ব্যবসায়ী। গত পাঁচ বছরে ইলিশ আমদানিকারক বহু ব্যবসায়ী তাঁদের ব্যবসা বন্ধ হওয়ায় ভিন্ন জীবিকায় যুক্ত হয়েছিলেন। তবে বাংলাদেশ সরকার যদি সত্যিই ইলিশ মাছ আবার রপ্তানি করে তবে হাজার হাজার ব্যবসায়ী পুনরুজ্জীবিত হবেন- দ্য ডেইলি স্টারকে এমন কথা বললেন ভারতের বৃহত্তম ইলিশ আমদানিকারক ব্যবসায়ী সংগঠন ‘হিলশা’-এর সভাপতি অতুলচন্দ্র দাস।

তিনি জানান, সম্প্রতি, কলকাতা সফরে এসেছিলেন বাংলাদেশের অত্যন্ত প্রভাবশালী মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তাঁর সঙ্গে দেখা করে ব্যবসায়ীরা ইলিশ রপ্তানি চালু করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন।

ব্যবসায়ীদের মতো সাধারণ মানুষেরও আগ্রহ কম নেই পদ্মার ইলিশ নিয়ে। কলকাতার বাসিন্দা অশেষ কুমার সাহা বললেন, “২০১২ সাল থেকে ইলিশ আসা বন্ধ রয়েছে। কিন্তু, প্রায় প্রতিদিনই মাছের বাজারে গিয়ে আগে পদ্মার ইলিশের খোঁজটা নেই। জানতে চাই, পদ্মার ইলিশ কি আসা শুরু হবে আবার? কলকাতার গণমাধ্যমে ইলিশ আসতে পারে- এই খবর শুনে তাই স্বাভাবিকভাবেই আমার ভালো লাগছে।”

আরো পড়ুন:

ইলিশ রফতানির নিষেধাজ্ঞা উঠছে

Comments

The Daily Star  | English

Peacekeepers can face non-deployment for rights abuse: UN

The UN peacekeepers can face non-deployment and even repatriation if the allegations of human rights against them are substantiated

31m ago