খেলা

মাঠের সিদ্ধান্তগুলো নেওয়া ক্রিকেটারদের কাজ: মাহমুদ

ম্যাচ পরিস্থিতিতে টিম ম্যানেজমেন্টের কাছ থেকে পাওয়া পরামর্শ রাখতেই হবে এমন বাধ্যবাধকতা নেই এখন বাংলাদেশ দলে
Mashrafee, Shakib & Khaled Mahmud
ফাইল ছবি: ফিরোজ আহমেদ

শ্রীলঙ্কাকে রেকর্ড ব্যবধানে উড়িয়ে দেওয়ার পর সংবাদ সম্মেলনে সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, এখন তারা সিদ্ধান্তও নিতে পারেন। দল পরিকল্পকদের চিন্তা-ভাবনার এই বদলই নাকি বাড়িয়ে দিয়েছে পারফরম্যান্সের গ্রাফ। টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ মনে করেন, সিদ্ধান্ত নেওয়ার কাজটা আসলে ক্রিকেটারদেরই।

 বাংলাদেশের দায়িত্বে থাকার সময় মাঠের সিদ্ধান্তও চাপিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ছিল চণ্ডিকা হাথুরুসিংহের বিপক্ষে। তিনি এখন নেই। শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচ হয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম দেখাতেই হয়েছেন ধরাশায়ী। সাবেক কোচের বিষয় মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলার কথা বললেও সাকিব লুকোননি বদলের কথা,  ‘একটুতো ভিন্ন হবেই সবকিছু। আমাদের পরিকল্পনা যারা করেন তাদের চিন্তা ভাবনায় পরিবর্তন এসেছে। যেহেতু আমাদের কোচের পরিবর্তন এসেছে। তার নতুন কিছু চিন্তা ভাবনা থাকবে।’

 ‘আমি বলবো না আগে আমরা স্বাধীন ভাবে খেলতে পারতাম না।  এখন আমরা স্বাধীন ভাবে খেলার পাশাপাশি সিদ্ধান্তও নিতে পারি। আমাদের কাছে এটা একটা অ্যাডভানটেজ। ’

একদিন পর সাকিবের মন্তব্যের প্রসঙ্গ নিয়ে জানতে চাওয়া হয় খালেদ মাহমুদের কাছে। তার মতে, ‘মাঠের সিদ্ধান্ত আসলে ক্রিকেটারদেরকেই নিতে হবে। তারা সবাই বেশ অভিজ্ঞ। আমার মনে হয়, সাকিব, তামিম, মাশরাফি, মুশফিক, রিয়াদদের মিলিয়ে বাংলাদেশের ড্রেসিংরুমে এখন প্রায় ৬০ বছরের অভিজ্ঞতা আছে।  মাঠে সিদ্ধান্ত নেবার সামর্থ্য অবশ্যই তাদের আছে।’

ম্যাচ পরিস্থিতিতে টিম ম্যানেজমেন্টের কাছ থেকে পাওয়া পরামর্শ রাখতেই হবে এমন বাধ্যবাধকতা নেই এখন বাংলাদেশ দলে, ‘আমরা বাইরে থেকে তো অবশ্যই পরামর্শ পাঠাই। যখন আমাদের মনে হয়, তখন তো আমরা পাঠাই। সেটা যদি তারা শুনতে চায়, শোনে। কিন্তু আসল ব্যাপারটা হচ্ছে, তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তগুলো নেয়াটা আসলে তাদের কাজ।’

Comments

The Daily Star  | English
Raushan Ershad

Raushan Ershad says she won’t participate in polls

Leader of the Opposition and JP Chief Patron Raushan Ershad today said she will not participate in the upcoming election

5h ago