হাথুরুসিংহেকে নিয়ে অতি মাতামাতিতে এমন ফল

সিরিজ শুরু আগে থেকে চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকে নিয়ে অতিরিক্ত মাতামাতিতে দলের উপর প্রভাব পড়েছে বলে মনে করেন খালেদ মাহমুদ সুজন।
Chandika Hathurosingh
শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

সিরিজ শুরু আগে থেকে চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকে নিয়ে অতিরিক্ত মাতামাতিতে দলের উপর প্রভাব পড়েছে বলে মনে করেন খালেদ মাহমুদ সুজন।

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের মাঝপথে বাংলাদেশের প্রধান কোচের পদ ছাড়েন হাথুরুসিংহে। দায়িত্ব নেন শ্রীলঙ্কার। প্রথম সফরেই আসেন বাংলাদেশে। তার দায়িত্ব ছাড়ার প্রক্রিয়া ও সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে বিতর্ক তৈরি হলে বাড়তি আলোচনা তৈরি হয়। ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট ও শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগে সাবেক কোচের ইস্যু নিয়ে বেশি আলোচনা ক্ষতিকর হয়েছে বলে মত এই সিরিজে দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের দায়িত্বে থাকা মাহমুদের,

‘হাথুরুকে নিয়ে মনে হয় বড় চিন্তা আমাদের মাথায় ছিল। এটা নেতিবাচকভাবে  গেছে। পুরো জাতি হিসেবে হাথুরু চলে গেছে, হাথুরুর সঙ্গে লড়াই...হাথুরুর  সঙ্গে তো লড়াই  ছিল  না। লড়াই ছিল শ্রীলঙ্কার সঙ্গে .. ১১টা  ছেলে  খেলবে ১১টা ছেলের বিপক্ষে। হাথুরু মনে হয় বেশি ছিল মাথায়।’

ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক, গেম ডেভোলাপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যানও খালেদ মাহমুদ। ছিলেন এই সিরিজে কোচের আদলে দল পরিচালনার গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে। এমন ফলের পর স্কিলের ঘাটতির চেয়ে মানসিক ঘাটতি খুঁজে পাচ্ছেন তিনি, ‘ ওর আমলে কী করেছে না করেছে..। এটা নেগেটিভ মানসিকতা  ছিল। আমরা অনেকভাবে ভালো  খেলার  চেষ্টা করেছি। আসলে ম্যানেজমেন্ট তো ক্রিকেট খেলে না, খেলবে খেলোয়াড়েরা। প্রয়োগ তো খেলোয়াড়েরা করবে। তারা যদি  না করতে  পারে তবে কঠিন। ’

‘বুঝতাম এদের সামর্থ্য নেই, তাহলে  মনে খারাপের  কিছু নেই। এদের তো সামর্থ্য আছে। সামর্থ্য থাকার পরও না পারলে বলতে হবে  মানসিকতা। অন্যকিছু নয়। অ্যাপ্রোচ, মেজাজ, মাঠে চিন্তা—সবকিছুই পিছিয়ে  ছিলাম। ’

Comments

The Daily Star  | English

'Will not spare anyone if attacked'

Quader vows response if any Bangladeshi harmed by Myanmar firing tensions

40m ago