সৌম্য, মুশফিকের ঝড়ে টি-টোয়েন্টি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অভিষেক হয়েছে জাকির হাসান, আরিফুল হক, আফিফ হোসেন ও নাজমুল ইসলাম অপুর।
শুরুতে সৌম্য সরকারের ঝড়ো ফিফটি। তাতে ১০ ওভারেই তিন অঙ্ক ছুঁয়ে বাংলাদেশ পায় শক্ত ভিত। এরপর দুই অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটেও তান্ডব। ফিফটির আগে মাহমুদউল্লাহ ফিরলেও ৬৬ রানে অপরাজিত ছিলেন মুশফিক। ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৯৩ রান করেছে বাংলাদেশ।  টি-টোয়েন্টি এটাই নিজেদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রানের সংগ্রহ।  
 
সাকিব আল হাসান দলে নেই। চোটের কারণে একাদশে ছিলেন না তামিম ইকবালও। খারাপ সময়ের গেরোতে পড়া বাংলাদেশের উপর স্নায়ুচাপ ছিল।  অভিষিক্ত জাকির হাসানকে নিয়ে ওপেনিংয়ে নেমে প্রথমেই সে চাপ তুড়ি মেরে উড়িয়ে দেন সৌম্য সরকার। উদ্বোধনী জুটিতেই আসে ৪৯ রান।  ওয়ানডে আর টেস্ট দল থেকে বাদ পড়ার পর এই কেবল একটাই ফরম্যাটে দলে জায়গা পাকা ছিল সৌম্যর। দক্ষিণ আফ্রিকায় টি-টোয়েন্টিতে ছন্দ দেখিয়েছিলেন, তা বহাল রেখেছেন এই ম্যাচেও। ৩০ বলে ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি করার পরই আউট হয়ে যান। নিজেকে অবশ্য দুর্ভাগা ভাবতে পারেন সৌম্য। লেগ স্পিনার জীবন মেন্ডিসের বলে রিভার্স সুইপ করতে গিয়েছিলেন, তাতে পেশিতে টান পড়ে ব্যাটে লাগাতে পারেনি। লেগ স্টাম্পের বাইরে পিচ করা বলেও এলবডব্লিও দিয়ে দেন আম্পায়ার। রিভিউ না নিয়ে সাপোর্ট স্টাফদের সহায়তায় মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। 
 
ওয়ানডাউনে নেমে প্রথমে সৌম্যের সঙ্গে জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন। দ্বিতীয় উইকেটে তাদের ৫১ রানের জুটিতে রানের চাকা ছিল সচল। পরে মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে ৭৩ রানের জুটি। ৪৩ রান করা মাহমুদউল্লাহর আউটের পর শেষটাতেও রান বেড়েছে কেবল মুশফিকের ব্যাটে। 

 

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অভিষেক হয়েছে জাকির হাসান, আরিফুল হক, আফিফ হোসেন ও নাজমুল ইসলাম অপুর।

১৬ জনের দলে ৬ জনই ছিলেন অভিষেকের অপেক্ষায়। ইনজুরির জন্য নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান আগেই বাদ পড়েছেন। চোটের কারণে এই ম্যাচে খেলতে পারছেন না তামিম ইকবাল। ফলে এক ঝাঁক নতুন মুখ নিয়ে খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। 

অভিষিক্ত চারজনই বিপিএলের পারফরম্যান্স নিয়ে আলোয় এসেছেন। বড় শট খেলার দক্ষতায় অলরাউন্ডার আরিফুল হকের সুযোগ এসেছে। উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জাকির হাসান তামিমের চোটে পেলেন সুযোগ। অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন বয়সভিত্তিক দলে বেশ কিছুদিন ধরেই নজর কাড়ছিলেন। সাকিব না থাকায় বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুকে ডাকা হয়েছিল। স্কোয়াডে একমাত্র বাঁহাতি স্পিনার তিনি। রয়েছেন একাদশেও।

শ্রীলঙ্কার একাদশে অভিষিক্ত আছেন একজন। ওয়ানডের পর টি-টোয়েন্টিতেও অভিষেক হয়েছে শিহান মধুশঙ্কার।  

বাংলাদেশ একাদশ:  সৌম্য সরকার, জাকির হাসান,  সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, আরিফুল হক, মোস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন।   

শ্রীলঙ্কা একাদশ: নিরোশান ডিকভেলা, উপুল থারাঙ্গা, দিনেশ চান্দিমাল, কুশল মেন্ডিস, জীবন মেন্ডিস, দানুশকা গুনাথিলেকা, থিসারা পেরেরা, দাসুন শঙ্কা, আকিলা ধনঞ্জয়া, শিহান মধুশঙ্কা, ইশুরু উদানা। 

Comments

The Daily Star  | English

Sajek accident: Death toll rises to 9

The death toll in the truck accident in Rangamati's Sajek increased to nine tonight

2h ago