যাত্রী না হয়েও উড়োজাহাজে পুলিশের এসআই

​শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী না হয়েও ব্যাংককগামী একটি ফ্লাইটে উঠে পড়েছিলেন পুলিশের একজন উপ পরিদর্শক (এসআই)।
শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী না হয়েও ব্যাংককগামী একটি ফ্লাইটে উঠে পড়েছিলেন পুলিশের একজন উপ পরিদর্শক (এসআই)।

বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পাসপোর্ট-ভিসা বা উড়োজাহাজের টিকেট কোনো কিছুই না থাকার পরও এসআই আশিকুর রহমান উড়োজাহাজে উঠে পড়েছিলেন। তিনি এসময় পুলিশের পোশাকেই ছিলেন।

থাই এয়ারওয়েজের ওই ফ্লাইটটির গতকাল রাত ২টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়ার কথা ছিল। ইমিগ্রেশন পুলিশ আশিকুরকে আটক করার আধা ঘণ্টা পর রাত আড়াইটায় উড়োজাহাজটি ঢাকা ত্যাগ করে। পরে তাকে ঢাকার পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

কর্মকর্তারা জানান, আশিকুর হেভি লাগেজ গেট-৩ দিয়ে টার্মিনালে প্রবেশ করেছিলেন। সেখানে তল্লাশির পর তিনি ইমিগ্রেশন গেট-১ দিয়ে যান। সেখানে ইমিগ্রেশন পুলিশের সহযোগিতায় তিনি তার মামিকে নিয়ে ইমিগ্রেশন পার হয়ে বোর্ডিং ব্রিজ-৫ এ যান।

ইউনিফর্মে থাকায় গেটের নিরাপত্তা কর্মীরা তাকে ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা হিসেবে ভুল করেন বলেও বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানান। কিন্তু চেকপয়েন্ট পার হয়ে তিনি কিভাবে উড়োজাহাজে উঠলেন সেই প্রশ্নের উত্তর নেই বিমানবন্দরের নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টদের কাছে।

এ ব্যাপারে পুলিশের উপ মহাপরিদর্শক (ঢাকা রেঞ্জ) আব্দুল্লাহ আল মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, একজন আত্মীয়কে বিদায় জানানোর জন্য আশিকুর বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্রতিবেদন পাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে এ ব্যাপারে আশিকুরের বক্তব্যের জন্য চেষ্টা করা হলেও যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

ডিআইজি বলেন, গত ১২ ফেব্রুয়ারি আশিকুর পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের সাথে যুক্ত হয়। তার আগে তিনি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে ছিলেন।

বিমানবন্দর থানার ওসি নূর-ই-আজম বলেন, যাত্রী বা ক্রু না হয়েও একজনের উড়োজাহাজে ওঠার কথা তিনি শুনেছেন। কিন্তু গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত তাদের কাছে কোনো লিখিত অভিযোগ আসেনি।

Comments

The Daily Star  | English

Home minister says it's a planned murder

Three Bangladeshis arrested; police yet to find his body

11m ago