কোটা সংস্কার আন্দোলনে পুলিশের লাঠিপেটা, টিয়ার গ্যাস

​সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে। আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে এসময় লাঠিপেটাও করে পুলিশ। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।
কোটা সংস্কার আন্দোলন
কোটা সংস্কারের দাবিতে বিক্ষোভকারীদের ওপর টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করে পুলিশ। ছবি: পলাশ খান

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে। আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে এসময় লাঠিপেটাও করে পুলিশ। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

যে সংগঠনটি কোটা সংস্কারের আন্দোলনে নেতৃত্ব দিচ্ছে সেই “বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ” এর সমন্বয়ক রাশেদুল ইসলাম অভিযোগ করেছেন, পুলিশ তাদের পাঁচ জনকে আটক করে নিয়ে গেছেন। তবে পুলিশের তরফ থেকে আটকের কথা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এর আগে আজ সকালে কোটা সংস্কারের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ৪০০ শিক্ষার্থী সমবেত হন। মিছিল নিয়ে তারা সচিবালয়ের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে হাইকোর্টের সামনে তারা পুলিশের বাধার মুখে পড়েন।

পুলিশের ব্যারিকেডের সামনে তারা বসে পড়ার এক পর্যায়ে পুলিশ তারদের ওপর টিয়ার গ্যাস ও লাঠিপেটা শুরু করে।

কোটা সংস্কার আন্দোলন থেকে এক শিক্ষার্থীকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। ছবি: পলাশ খান

শিক্ষার্থীদের আটক সম্পর্কে রমনা থানার ওসি কাজি মইনুল ইসলামকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন যে এ ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না।

সরকারি চাকরিতে মেধার তুলনায় কোটাকে প্রাধান্য দেওয়ার বিরোধিতা করে শিক্ষার্থীরা বেশ কিছুদিন থেকে আন্দোলন করছেন। এর আগে দেশজুড়ে তারা বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন। এই ব্যবস্থাকে বৈষম্যমূলক অভিহিত করে কোটা কমানোর দাবি জানাচ্ছেন তারা।

তাদের দাবির মধ্যে রয়েছে, কোটা সহনীয় মাত্রায় কমিয়ে আনতে হবে। যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে কোটার খালি থাকা পদগুলোতে মেধাবীদের নিয়োগ দিতে হবে। কোটা সুবিধা নিয়ে চাকরি পরিবর্তন বন্ধ করতে হবে। একবার কোটা সুবিধা নিয়ে পুনরায় অন্য চাকরিতে যেতে চাইলে মেধার ভিত্তিতে যেতে হবে। শুধু কোটায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া যাবে না।

Comments

The Daily Star  | English

Bangladeshi students terrified over attack on foreigners in Kyrgyzstan

Mobs attacked medical students, including Bangladeshis and Indians, in Kyrgyzstani capital Bishkek on Friday and now they are staying indoors fearing further attacks

4h ago