অনিয়মের অভিযোগের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ভোটগ্রহণ

অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগের মধ্য দিয়ে শেষ হলো খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে উঠেছে নির্বাচনী আচরণবিধি ভাঙ্গার অভিযোগ।
election rigging
খুলনায় ফাতেমা উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের সামনেই ব্যালট পেপারে সিল মারছেন এক যুবক। ছবি: আমরান হোসেন

অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগের মধ্য দিয়ে শেষ হলো খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে উঠেছে নির্বাচনী আচরণবিধি ভাঙ্গার অভিযোগ।

আজ (১৫ মে) সকাল ৮টায় শুরু হয়ে কোন বিরতি ছাড়াই তা বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে। ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পরপর নির্বাচন কর্মকর্তারা তা গণনা করতে শুরু করেন।

দ্য ডেইলি স্টারের সংবাদদাতা ও ফটোসাংবাদিকরা নির্বাচনী এলাকায় অবস্থান করে সেখানকার পরিস্থিতি তুলে ধরেন। তাঁরা জানান, আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে তারা ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ভোট কেন্দ্র দখল করে রাখে।

বিরোধী বিএনপির মেয়র পদপ্রার্থীর এজেন্টদের ভোট কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার পাশাপাশি জোর করে ব্যালট পেপারে সিল মারার অভিযোগও উঠেছে ক্ষমতাসীন দলটির নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে।

বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেন, নগরীর অন্তত ৩০টি কেন্দ্র থেকে তাঁর এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে।

অপর দিকে, আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক দাবি করেন, নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিনি নির্বাচনে জয়ী হবেন বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

Comments

The Daily Star  | English

Battery-run rickshaw drivers set fire to police box in Kalshi

Battery-run rickshaw drivers set fire to a police box in the Kalshi area this evening following a clash with law enforcers in Mirpur-10 area

1h ago