শীর্ষ খবর

মাদকবিরোধী অভিযান: ২ জেলায় নিহত আরও ২

দেশজুড়ে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে গতরাতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ‘কথিত বন্দুকযুদ্ধে’ দুই জেলায় আরও দুই জন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে গত ১৭ দিনে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২৪ হলো।
Gunfight logo

দেশজুড়ে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে গতরাতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ‘কথিত বন্দুকযুদ্ধে’ দুই জেলায় আরও দুই জন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে গত ১৭ দিনে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২৪ হলো।

পুলিশ বলেছে, মাদক ব্যবসায়ীদের অভ্যন্তরীণ বিরোধকে কেন্দ্র করে নিজেদের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদারীপুর ও যশোরে দুজন নিহত হন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

দেশে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের প্রেক্ষাপটে গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মাদকের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। তার মতে, এই অভিযানের ফলে সমাজের মানুষ স্বস্তি পাচ্ছেন।

দীর্ঘদিন থেকে গোয়েন্দারা এ বিষয়ে কাজ করছে বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেই গডফাদার থাকুক, যেই বাহিনীতেই থাকুক, কাউকেই ছাড়া হচ্ছে না এবং ছাড়া হবে না।… আমি যখন ধরি ভালো করেই ধরি।

সম্প্রতি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সফর শেষে ঢাকায় গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রথম আলোর খবরে জানানো হয়, গতরাতে মাদারীপুরে বন্দুকযুদ্ধে বাচ্চু খলিফা (৪৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ভোর ৪টার দিকে শিবচর উপজেলার শম্ভুক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের দাবি, নিহত ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী। এ সময় পুলিশের পাঁচ জন সদস্য আহত হন।

পুলিশের ভাষ্য, রাতে মাদকদ্রব্য উদ্ধারে পুলিশের টহল দল শিবচরের শম্ভুক নদ এলাকায় পৌঁছালে মাদক ব্যবসায়ী দুই পক্ষের গোলাগুলির শব্দ শুনতে পায়। পুলিশ কাছাকাছি পৌঁছালে পুলিশকে লক্ষ্য করে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় মাদক ব্যবসায়ীদের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে বাচ্চু খলিফা আহত হন। তাঁকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি দেশীয় পাইপগান, তিনটি গুলি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে।

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন বলেন, ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত বাচ্চু তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। বাচ্চুর বিরুদ্ধে শিবচরসহ বিভিন্ন থানায় ১৪টি মামলা রয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হন।

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে ‘গোলাগুলিতে’ এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। উপজেলার সেকেন্দারপুর ভাটার আমতলা এলাকায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে। তবে নিহত ওই মাদক ব্যবসায়ীর (৩২) পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

বাঘারপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাসিরুল হক খান বলেন, গতকাল রাতে বাঘারপাড়া উপজেলার সেকেন্দারপুর ভাটার আমতলা এলাকায় যশোর-মাগুরা মহাসড়কের পাশে একটি মেহগনিবাগানে দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলি চলছিল। খবর পেয়ে রাত ৩টার দিকে পুলিশ সেখানে পৌঁছায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যান। পরে সেখান থেকে এক মাদক ব্যবসায়ীর গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এখনো তাঁর পরিচয় জানা যায়নি। এ সময় সেখান থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, একটি গুলি, একটি গুলির খোসা ও তিন কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal likely to hit Bangladesh coast by Sunday evening

Maritime ports asked to maintain local cautionary signal no one

2h ago