সৌদি আরবকে বিধ্বস্ত করে উড়ন্ত সূচনা রাশিয়ার

২০১৭ সালের অক্টোবর। এরপর কেটে গেছে প্রায় নয় মাস। একটি জয়ের পেছনে ছুটছিল রাশিয়া। আর সেই বহুকাঙ্খিত জয়টি এলো বিশ্বকাপেই। একেবারে রাজার বেশে। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী খেলায় একেবারে উড়িয়ে দিয়েছে সৌদি আরবকে। জিতেছে ৫-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে।
Russia

২০১৭ সালের অক্টোবর। এরপর কেটে গেছে প্রায় নয় মাস। একটি জয়ের পেছনে ছুটছিল রাশিয়া। আর সেই বহুকাঙ্খিত জয়টি এলো বিশ্বকাপেই। একেবারে রাজার বেশে। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী খেলায় একেবারে উড়িয়ে দিয়েছে সৌদি আরবকে। জিতেছে ৫-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে।

রুশদের স্বপ্নটা জড়িয়ে ছিল আলেকজান্ডার গোলোভিনকে ঘিরে।  আর তা সুদে আসলে পূরণ করে দিয়েছেন এ মিডফিল্ডার। একটি গোল করেছেন। করিয়েছেন আরও দুটি গোল। দারুণ খেলে ২টি গোল করেছেন বদলি খেলোয়াড় ডেনিস চেরিশেভ।  এছাড়া একটি করে গোল করেছেন আর্টেম জুবা ও ইউরি গাজিন্সিকি।

ম্যাচের শুরুতে গোছানো ফুটবল খেলতে পারেনি রাশিয়া। স্বাগতিকদের তুলনায় ভালোই খেলছিল অ্যারাবিয়ানরা। তবে প্রথম ১০ মিনিট পরই গুছিয়ে নেয় স্বাগতিকরা। দুই মিনিট পর গোলও আদায় করে নেয় দলটি।

গোলোভিনের ক্রস থেকে ফাঁকায় বল পেয়ে যান গাজিন্সিকি। দারুণ হেডে বল জালে জড়াতে কোন ভুল করেননি এ মিডফিল্ডার। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে এটাই তার প্রথম গোল। এর আগে ২০০৬ আসরের প্রথম অন টার্গেট শটে গোল দিয়েছিলেন ফিলিপ লাম। এক যুগ পর প্রথম অন টার্গেট শটে গোল করলেন গ্যাজিন্সকি।

৫ মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারত রাশিয়া। ফেদ্রে সমোলোভের শট প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে হাওয়ায় ভেসে জালের দিকেই যাচ্ছিলো। ঝাঁপিয়ে পড়ে দারুণ দক্ষতায় দলকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক মোহাম্মদ আল হারাবি। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ তখন রুশদের হাতেই। ২৯ মিনিটে বারে প্রথম শট নিতে পারে সৌদি আরব। প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে নেওয়া শটটি লক্ষ্যে রাখতে পারেননি সালেম আল দাওসারি।

৪৩ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় রাশিয়া। ডান প্রান্ত থেকে রোমান জোবলিনের কাছ থেকে বল পেয়ে তিন জন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে জোরালো শটে বল জালে জড়ান ডেনিস চেরিশেভ। এতে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আক্রমণের ধারা বজায় রেখে খেলতে থাকে রাশিয়া। ৫১ মিনিটে ডি বক্সের সামান্য বাইরে ফাঁকায় বল পেয়ে ছিলেন আলেকজান্ডার সোমেদোভ। তবে লক্ষ্যে রাখতে পারেননি তিনি।  ৫৬ মিনিটে গোল পরিশোধের সেরা সুযোগটি পেয়েছিলো সৌদি। সালমান আল ফারাজের ক্রস ইঞ্চিখানেকের জন্য পায়ে লাগাতে ব্যর্থ হন মোহাম্মদ আল সাহলাউই।

৬৩ মিনিটে আলেকজান্ডার সামেদোভের কাছ থেকে বাম প্রান্তে বল পেয়ে বারে শট করেছিলেন চেরিসেভ। তবে তার দুর্বল শট প্রতিহত করতে কোন ভুল করেননি সৌদি গোলরক্ষক।  এর চার মিনিট পর আবার গোল পেয়ে যাচ্ছিল রাশিয়া। তবে গোলরক্ষক সতর্ক থাকায় গাজিনিস্কির মাটি কামড়ানো শট ফিরিয়ে দিতে কোন ভুল হয়নি।

তবে ৭১ মিনিটে ব্যবধান ৩-০ করেন বদলী খেলোয়াড় জুবা। থ্রোইন থেকে পাওয়া বলে সতীর্থদের মধ্যে আদান প্রদানের বল পেয়ে যান গোলোভিন। তার ক্রসে দারুণ এক হেডে লক্ষ্যভেদ করেন জুবা। দুই মিনিট পর সালেম আল দাউসাইরি নেওয়া শট বারের সামান্য বাইরে দিয়ে গেলে হতাশা বাড়ে সৌদির।

এরপর দুই দলই আক্রমণ প্রতি আক্রমণে খেললেও গোল করার সুযোগ মেলেনি নির্ধারিত ৯০ মিনিট পর্যন্ত।  কিন্তু তখনও ম্যাচে ঝলক দেখানোটা বাকি রেখে দিয়েছিলো রাশিয়া। যোগ করা সময়ে দুটি গোল আদায় করে নেয় তারা। ৯১ মিনিটে আবার সেই চেরিসেভ। জুবার কাছ থেকে বল পেয়ে বাঁ পায়ের শটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন তিনি।

পুরো ম্যাচে রাশিয়া প্রাণভোমরা গোলোভিন সৌদির কফিনে শেষ পেরেকটা ঠুকেন একেবারে শেষে মুহূর্তে। ফ্রি কিক থেকে দারুণ এক শটে বল জালে জড়ালে ৫-০ গোলের বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal likely to hit Bangladesh coast by Sunday evening

Maritime ports asked to maintain local cautionary signal no one

2h ago