মাহাথিরের প্রযুক্তিজ্ঞানে মুগ্ধ জ্যাক মা

নতুন মালয়েশিয়ার রূপকার ড. মাহাথির মোহাম্মদের প্রযুক্তিজ্ঞানে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন চীনের জনপ্রিয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী চেয়ারম্যান জ্যাক মা।
Mahathir Mohamad and Jack Ma
১৮ জুন ২০১৮, মালয়েশিয়ার পুত্রজায়ায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদের (ডানে) সঙ্গে করমর্দন করছেন চীনের জনপ্রিয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী চেয়ারম্যান জ্যাক মা। ছবি: দ্য স্টার অনলাইন/ এশিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

নতুন মালয়েশিয়ার রূপকার ড. মাহাথির মোহাম্মদের প্রযুক্তিজ্ঞানে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন চীনের জনপ্রিয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী চেয়ারম্যান জ্যাক মা।

আজ (১৮ জুন) মালয়েশিয়ার পুত্রজায়ায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথিরের সঙ্গে দেখা করার পর তিনি এই মুগ্ধতা প্রকাশ করেন।

অবসর থেকে ফিরে এসে মাহাথির দ্বিতীয় দফায় দেশটির নেতা নির্বাচিত হন। বর্তমানে তিনি বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রধানমন্ত্রী।

আলিবাবা প্রধান মালয়েশিয়ার জাতীয় সংবাদ সংস্থা বেরনামাকে বলেন, “আমি মাহাথিরের প্রযুক্তিজ্ঞানে বিস্মিত হয়েছি।” তিনি জানান, সকাল ৯টা থেকে শুরু করে এক ঘণ্টার বৈঠকে তারা অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন। মালয়েশিয়ায় দারিদ্র্য কমানো, তরুণদের সহযোগিতা এবং ক্ষুদ্রব্যবসার প্রসারের বিষয়েও তারা কথা বলেছেন।

কুয়ালালামপুরে আলিবাবার শাখা অফিস উদ্বোধনের জন্যে প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী চেয়ারম্যান বর্তমানে সেখানে অবস্থান করছেন।

গত ১৭ জুন নৈশভোজে মালয়েশিয়ার অর্থমন্ত্রী লিম গুয়ানের সঙ্গে চীনের এই অন্যতম ধনীব্যক্তি দেখা করেছিলেন বলেও জানা যায়।

মালয়েশিয়ার গণমাধ্যমে বলা হয়, এ মাসের শুরুতে মাহাথিরের সঙ্গে মা এর দেখা করার কথা থাকলেও মাহাথির তার পাকাতান হারাপান দলের নতুন সরকার গঠন করা নিয়ে বেশি ব্যস্ত ছিলেন। সদ্য-বিদায়ী নাজিব রাজাকের নেতৃত্বে পরিচালিত বারিসান সরকারের ডিজিটাল অর্থনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন জ্যাক মা।

অর্থনৈতিক সহযোগিতার বিষয়ে চীনের চেয়ে জাপানের প্রতি নতুন সরকারের বেশি আগ্রহের কারণে মাহাথির তার আগের সরকারের বেইজিং-ভিত্তিক প্রকল্পগুলো পর্যালোচনা করছেন। এমনই এক সময়ে মাহাথিরের সঙ্গে দেখা করলেন আলিবাবার প্রধান।

তবে মাহাথির মালয়েশিয়ায় অবস্থিত বিশ্বের প্রথম প্রযুক্তি-ভিত্তিক ডিজিটাল ফ্রি ট্রেড জোন (ডিএফটিজেড)-এর প্রকল্প চালিয়ে যাবেন বলেও খবর প্রকাশিত হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Now, battery-run rickshaws to ply on Dhaka roads

Road, Transport and Bridges Minister Obaidul Quader today said the battery-run rickshaws and easy bikes will ply on the Dhaka city roads

27m ago