সালাহর মিশরকে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে এক পা রাশিয়ার

শৈশবে রাশিয়ান রূপকথার গল্প শোনেননি এমন মানুষ কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। তবে যারা শোনেননি তারা এবার স্বচক্ষেই দেখলেন। প্রথম ম্যাচে সৌদি আরব উড়িয়ে দেওয়ার পর এবার মিশরকেও সহজেই হারাল দলটি। অথচ বিশ্বকাপের আগে টানা আট মাস জয়হীন ছিল দলটি। ৩-১ গোলের জয়ে ২০১৮ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে এক পা দিয়ে রাখলো তারা। আর অন্যদিকে এ হারে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় প্রায় নিশ্চিত মোহাম্মদ রাখল দল মিশর।

শৈশবে রাশিয়ান রূপকথার গল্প শোনেননি এমন মানুষ কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। তবে যারা শোনেননি তারা এবার স্বচক্ষেই দেখলেন। প্রথম ম্যাচে সৌদি আরব উড়িয়ে দেওয়ার পর এবার মিশরকেও সহজে হারাল তারা। অথচ কে বলবে বিশ্বকাপের আগে টানা আট মাস জয়হীন ছিল এই দলটিই।

সেন্ট পিটার্সবুর্গে 'এ' গ্রুপের ম্যাচে ৩-১ গোলের জয়ে ২০১৮ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে এক পা দিয়ে রাখলো স্বাগতিক রাশিয়া। আর অন্যদিকে এই হারে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় প্রায় নিশ্চিত মোহাম্মদ সালাহদের।

প্রথমার্ধে নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন সালাহ। ইনজুরি যে এখনও ভোগাচ্ছে তা স্পষ্ট তার ভাবভঙ্গিতে। বেশ কিছু হাফ চান্স পেয়েছিলেন লিভারপুল তারকা। সাম্প্রতিক সময়ে তার খেলা যারা দেখেছেন তারা আশায় বুক বেঁধেছিলেন হাফ চান্সকেই ফুল চান্স বানাবেন সালাহ। কিন্তু পারেননি। দলও ভুগেছে। তবে প্রথমার্ধে দুই দলই আক্রমণ প্রতি আক্রমণে খেললেও বলার মতো সুযোগ পায়নি কোন দলই।

৬ মিনিটে ডিফেন্ডারে ভুলে ডি বক্সের সামনে বল পেয়ে যান গোলোভিন। তবে তার শট সামান্যর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ১৫ মিনিটে দারুণ সুযোগ পেয়েছিল মিশর। আবদুল্লাহ আল সাইদের কাছ থেকে বাঁ প্রান্তে বল পেয়ে কোনাকুনি শট নিয়েছিলেন ত্রেজেগুয়ে। কিন্তু লক্ষ্যে রাখতে ব্যর্থ হন।  ১৯ মিনিটে প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে দুর্দান্ত শট নিয়েছিলেন ডেনিস চেরিসভ।  কিন্তু তার শট বারের সামান্য উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়।

৩৪ মিনিটে ভালো সুযোগ পেয়েছিল মিশর। মারওয়ান মোহসেনের হেড লক্ষ্যে রাখতে পারেননি। ৩৫ মিনিটে মোহাম্মদ শাফির ক্রস সালাহ নিয়ন্ত্রণে নিতে পারলে এগিয়ে যেতে পারতো মিশর। কর্নারের বিনিময়ে সে যাত্রা রক্ষা করেন ইউরি জিরকোভ। ৪২ মিনিটে প্রথমার্ধের সেরা সুযোগটি পেয়েছিলেন মোহাম্মদ সালাহ। কিন্তু তার শট বার পোস্ট ঘেঁষে বাইরে গেলে হতাশ হতে হয় ফারাওদের।

বিরতির পর নেমেই গোল পায় স্বাগতিকরা। ৪৭ মিনিটে আলেকজান্ডার গোলোভিনের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন গোলরক্ষক। ফিরতি বলে শট নেন রোমান জবলিন। তবে এ সময়ে আর্তিম জুবার সঙ্গে ধাক্কা লাগলে ভারসাম্য ঠিকভাবে রাখতে পারেননি মিসরীয় ডিফেন্ডার আহমেদ ফাতহি। জবলিনের শট তার হাঁটুতে লেগে বারের ডান প্রান্ত ঘেঁষে চলে যায় জালে। ফলে আত্মঘাতী গোল পেয়ে এগিয়ে যায় রাশিয়া।

৫৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে স্বাগতিকরা। এবার লক্ষ্যভেদ করেন আগের ম্যাচে জোড়া গোল দেওয়া চেরিসভ। মারিও ফের্নান্দিজের পাস থেকে বল পেয়ে বল জালে জড়ান রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এ খেলোয়াড়। ৩ মিনিট পর আবার গোল পায় দলটি। ফ্রি কিক থেকে নেওয়া ইলিয়া কুতেপভের ক্রস দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণ করেন জুবা। দুই ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে বল জালে জড়ান তিনি।

তিন গোলে পিছিয়ে থেকে আক্রমণের ধার কিছুটা বাড়ায় মিশর। ৭৩ মিনিটে গোলও পায় তারা। ডি বক্সের ভেতরে সালাহকে ফাউল করলে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। পরে রিভিউর মাধ্যমে নিশ্চিতও করা হয়। পেনাল্টি থেকে বিশ্বকাপে নিজের প্রথম গোলটি করেন সালাহ। তৃতীয় মিসরীয় ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপে গোল করলেন এ লিভারপুল তারকা।

এক গোল শোধ করলেও এরপর আর তেমন কোন সাঁড়াশী আক্রমণ করতে পারেনি মিশর। বেশ কিছু আক্রমণ করেছিল স্বাগতিকরাও। তবে গোলের দেখা পায়নি কোন দলই। ফলে প্রথম দল হিসেবে দ্বিতীয় রাউন্ডে এক পা দিয়ে রাখল স্বাগতিক রাশিয়া। গ্রুপ পর্বের বাকি ম্যাচগুলোতে অলৌকিক কিছু না হলে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত তাদের।

Comments