ঢাবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর ‘ছাত্রলীগের হামলা’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা হয়েছে। আন্দোলনকারীরা বলেছেন, সংবাদ সম্মেলনের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ছাত্রলীগ হামলা চালিয়ে তাদের চার জনকে আহত করেছে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা হয়েছে। আন্দোলনকারীরা বলেছেন, সংবাদ সম্মেলনের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ছাত্রলীগ হামলা চালিয়ে তাদের বেশ কয়েকজনকে আহত করেছে।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক সুমন কবির দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, সকাল পৌনে ১১টার দিকে ঢাবির কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী তাদের ওপর হামলা চালিয়ে সাত জনকে আহত করে।

আহতদের মধ্যে সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর, আন্দোলনের নেতা সাদ্দাম হোসেন, আতাউল্লাহ ও হাসান আল মামুনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় বলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া দ্য ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন।

এই আন্দোলনের নেতা হাসান আল মামুন বলেন, বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে সরকার কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি না করায় পরবর্তী কর্মসূচি নিয়ে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলন করার কথা ছিল। তাদের সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, নুরুল হক নুরসহ নেতাকর্মীরা সংবাদ সম্মেলনের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় ছাত্রলীগের ২০০-২৫০ জন নেতাকর্মী তাদের ওপর হামলা চালায়।

কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া সংগঠনটির নেতাদের অভিযোগ, হাজী মুহাম্মদ মহসিন হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সানি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সাধারণ সম্পাদক সাধারণ সম্পাদক আল আমিন রহমান, স্যার এএফ রহমান হলের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান তুষার, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মেহেদী হাসান রনি ও ইমতিয়াজ বুলবুল হামলায় নেতৃত্বে ছিলেন।

তবে হামলায় ছাত্রলীগের যুক্ত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন সরকার দলীয় সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেন। দ্য ডেইলি স্টারের ঢাবি সংবাদদাতাকে তিনি বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর কারা হামলা চালিয়েছে সে সম্পর্কে তিনি কিছু জানেন না। তবে ছাত্রলীগের কেউ এর সঙ্গে যুক্ত ছিল না।

তিনি আরও বলেন, কোটা সংস্কারের নামে কেউ কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস পরীক্ষা বর্জনের চেষ্টা করলে ছাত্রলীগ তার প্রতিবাদ করবে ও প্রশাসকে সহযোগিতা করবে।

হামলার প্রতিবাদে আগামীকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাদে সারাদেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন সংগঠনটির নেতা সুমন কবির। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, হামলার প্রতিবাদে আগামী ২ জুলাই তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবেন।

Comments

The Daily Star  | English

Free rein for gold smugglers in Jhenaidah

Since he was recruited as a carrier about six months ago, Sohel (real name withheld) transported smuggled golds on his motorbike from Jashore to Jhenaidah’s Maheshpur border at least 27 times.

8h ago