ম্যারাডোনা উদ্বিগ্ন, সন্দিহান কারণ...

ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে বড় পরাজয়ের পর নিজেদের ঘরেও ভাঙ্গন ধরেছে আর্জেন্টিনার। কোচ নয়, দল নির্বাচন করেন খেলোয়াড়রাই। এমন গুঞ্জন এখন পর্যন্ত চাউর ফুটবল পাড়ায়। যদিও এটা সত্যি নয় বলেই দাবি করেছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। তবে সত্যি মিথ্যা যাই হোক এমন খবরে উদ্বিগ্ন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনা।

ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে বড় পরাজয়ের পর নিজেদের ঘরেও ভাঙ্গন ধরেছে আর্জেন্টিনার। কোচ নয়, দল নির্বাচন করেন খেলোয়াড়রাই। এমন গুঞ্জন এখন পর্যন্ত চাউর ফুটবল পাড়ায়। যদিও এটা সত্যি নয় বলেই দাবি করেছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। তবে সত্যি মিথ্যা যাই হোক, এমন খবরে উদ্বিগ্ন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনা। কিছুটা সন্দেহও প্রকাশ করেছেন।

ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলে হারার পর নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় যেন ঘাম দিয়ে জ্বর ছাড়ার মতো। তবে ওই ম্যাচের আগেই মাঝে নানা গুঞ্জন। শুধু তাই নয়, সাম্পাওলিকে বরখাস্ত করার সংবাদও মিলেছে। যদিও এমন কঠোর সিদ্ধান্তে যায়নি আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন (এএফএ)। তবে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে একাদশ গড়ায় অধিনায়ক লিওনেল মেসির হাত ছিল বলে জানা গেছে। সব গুঞ্জন বলেই উড়িয়ে দিয়েছেন সাম্পাওলি। কিন্তু এটাকে ভয়ানক হিসেবেই দেখছেন ম্যারাডোনা।

এমন উড়ো খবর অবশ্য বিশ্বাস করছেন না ম্যারাডোনা। তবে ভাবাচ্ছে তাকে। এমনটা হলে দলের বড় ক্ষতি হতে পারে বলেই জানান তিনি। বিশেষকরে মাঠে নেতৃত্বের অভাবটা প্রকট হবে বলেই জানান এ আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি, ‘আমার মনে হয় না এটা সম্ভব। যদি এটা হয় তাহলে কোচ না থাকাই ভালো।  আমার মনে হচ্ছে এটা সত্যিই ভয়ানক। একজন নেতা না থাকা ভালো বিষয় না।’

সাম্পাওলি স্বীকার করুক আর নাই করুক, ফুটবল বিশ্ব ধরেই নিয়েছে আর্জেন্টিনার কলকাঠি এখন নাড়ছে দলের সিনিয়র খেলোয়াড়রাই। দলে বেশ কিছু সিনিয়র খেলোয়াড় আছে যাদের ক্ষমতা আছে দল পরিচালনা করার। তবে এটাতেও বড় সমস্যা দেখছেন ম্যারাডোনা, ‘যদিও আপনি অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের উপর নির্ভর করতে পারেন। কিন্তু তাদেরও পথ দেখানোর জন্য কোচকে কিছু বিষয় বলতে হয়।’

ম্যারাডোনা এটাকে স্রেফ গুজব হিসেবেই মানছেন। প্রত্যাশা করছেন দল এখন স্বাভাবিক ছন্দেই থাকবে। শেষ ম্যাচের পারফরম্যান্সে দলের ওপর প্রত্যাশাও বেড়েছে তার। তবে সবকিছুর পরও মনে কিছুটা সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে তার। এমনটা হলে দলের জন্য বড় অশনি সংকেতই বটে।

Comments

The Daily Star  | English