‘গোল্ডেন বল জিতবেন মদ্রিচ’

রাশিয়া বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত দুরন্ত ফর্মে আছেন ক্রোয়েশিয়া অধিনায়ক লুকা মদ্রিচ। দুই ম্যাচে শুধু দুই গোলই করেননি, পুরো ক্রোয়েশিয়ার মাঝমাঠ নিয়ন্ত্রণ করছেন তিনি। আর তাঁর নেতৃত্বে ক্রোয়েশিয়াও ছুটছে অপ্রতিরোধ্যভাবে। ক্রোয়েশিয়া কোচ জলাতকো দালিচ তাই আশা প্রকাশ করেছেন, এবারের গোল্ডেন বল জিতবেন মদ্রিচই।
Luka Modric
এবার বিশ্বকাপে আলো ছড়াচ্ছেন লুকা মদ্রিচ। ছবি: রয়টার্স

রাশিয়া বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত দুরন্ত ফর্মে আছেন ক্রোয়েশিয়া অধিনায়ক লুকা মদ্রিচ। দুই ম্যাচে শুধু দুই গোলই করেননি, পুরো ক্রোয়েশিয়ার মাঝমাঠ নিয়ন্ত্রণ করছেন তিনি। আর তাঁর নেতৃত্বে ক্রোয়েশিয়াও ছুটছে অপ্রতিরোধ্যভাবে।  ক্রোয়েশিয়া কোচ জলাতকো দালিচ তাই আশা প্রকাশ করেছেন, এবারের গোল্ডেন বল জিতবেন মদ্রিচই।

বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার হিসেবে ফিফা এই গোল্ডেন বল দিয়ে থাকে, গত আসরে যেটি জিতেছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। তবে এবার যে মেসি জিতছেন না, সে ব্যাপারে নিশ্চিত দালিচ। গতকাল যখন ডালিচের সংবাদ সম্মেলন চলছে, আর্জেন্টিনা তখন ফ্রান্সের বিপক্ষে ৪-২ গোলে পিছিয়ে। তখনই যেন অনেকটা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিলেন তিনি, এবারের গোল্ডেন বল আর মেসির কাছে ফিরছে না। আর মেসির পরে মদ্রিচকেই গোল্ডেন বলের উত্তরসূরি হিসেবে দেখতে চাইছেন দালিচ, ‘মদ্রিচ এই পুরষ্কারটা জিতলে আমি সবচেয়ে বেশি খুশি হব। মদ্রিচ জেতার মানে হলো ক্রোয়েশিয়া এই বিশ্বকাপে তাৎপর্যপূর্ণ কিছু একটা করেছে। আমি খুব করে চাই মদ্রিচ গোল্ডেন বল জিতুক।’

গ্রুপ পর্বে ক্রোয়েশিয়ার পারফরম্যান্স দেখে এবার অনেকেই তাদেরকে বিশ্বকাপ জয়ের জন্য ফেভারিট হিসেবে গণ্য করছে। তবে দালিচ মনে করিয়ে দিয়েছেন, ডেনমার্কের বিপক্ষে পারফর্ম করতে না পারলে আগের ম্যাচগুলোতে ভালো খেলার কোন দামই থাকবে না, ‘আমরা গ্রুপ পর্বে ভালো কিছু অর্জন করেছি ঠিকই, কিন্তু পরের ম্যাচে ভালো খেলতে না পারলে সেই ভালো খেলার কোন দামই থাকবে না। গ্রুপ পর্ব আমরা পেছনে ফেলে এসেছি। গ্রুপ পর্বের ফলাফলগুলো আমাদের সামর্থ্য সম্পর্কে আরও একবার আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে আমাদের, কিন্তু আমরা সেই স্মৃতি আঁকড়ে ধরে বসে থাকতে পারি না। আমি জানি নকআউট পর্ব সহজ হবে না। তবে আমার খেলোয়াড়দের উপর আমার আস্থা আছে। আমি আবারও মনে করিয়ে দিচ্ছি, লোকে আমাদের গ্রুপ পর্বে ভালো খেলার প্রশংসা করেছে সেটা শুনে আমি খুশি, কিন্তু ডেনমার্কের বিপক্ষে ভালো খেলতে না পারলে এসবের কোন দাম থাকবে না।’

তবে ডেনমার্কের বিপক্ষে ফলাফল যাই হোক না কেন, এই খেলোয়াড়দের নিয়ে গর্বের শেষ নেই ডালিচের, ‘এই দলের অংশ হতে পেরে আমি খুবই গর্বিত। যদি আমরা ভালো খেলতে পারি, আমি বিশ্বাস করি আমরা আমাদের নিজেদের জন্য, আমাদের পরিবারের জন্য ও গোটা ক্রোয়েশিয়ার জন্য ভালো কিছু বয়ে আনতে পারব। আর এটাই আমাকে প্রতিনিয়ত প্রেরণা জুগিয়ে চলেছে।’ 

 

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer at sea, on land

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

1h ago