কলকাতায় পর্যটন মেলায় সেরা প্যাভিলিয়নের শিরোপা পেল বাংলাদেশ

কলকাতার আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলায় বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন ‘শ্রেষ্ঠ সৃষ্টিশীল প্যাভিলিয়ন’ পুরস্কার পেয়েছে। রোববার মেলার শেষ দিন বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ও মেলায় অংশ নেওয়া বেসরকারি পর্যটন সংস্থার প্রতিনিধিদের কাছে মেলার আয়োজক সংস্থা এই সম্মাননা তুলে দেয়।
দিনাজপুরের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন কান্তজিউ মন্দিরের আদলে তৈরি করা হয়েছিল কলকাতায় পর্যটন মেলায় বাংলাদেশের প্যাভিলিয়ন। ছবি: স্টার

কলকাতার আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলায় বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন ‘শ্রেষ্ঠ সৃষ্টিশীল প্যাভিলিয়ন’ পুরস্কার পেয়েছে। রোববার মেলার শেষ দিন বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ও মেলায় অংশ নেওয়া বেসরকারি পর্যটন সংস্থার প্রতিনিধিদের কাছে মেলার আয়োজক সংস্থা এই সম্মাননা তুলে দেয়।

শুধু সেরার শিরোপা নিয়েই এবার আয়োজনের অংশ নেওয়া বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা ঘরে ফিরছেন তা নয়। বরং তিন দিনের মেলায় পর্যটন বিষয়ক প্রায় শতাধিক ফলপ্রসূ বৈঠক ও চুক্তিও করেছে বাংলাদেশ থেকে যোগ দেওয়া পর্যটন সংস্থাগুলো।

ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনামসহ বিশ্বের ১৩টি পর্যটক প্রিয় গন্তব্যের পাশাপাশি ভারতের গোয়া, কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র, আসাম, ত্রিপুরা, গুজরাট, বিহার, উড়িষ্যা এবং পশ্চিমবঙ্গসহ ২৮টি রাজ্যের অংশগ্রহণে এবার ৩০তম আন্তর্জাতিক ট্যুর অ্যান্ড ট্রাভেল ফেয়ার ২০১৮ অনুষ্ঠিত হলো।

৬ জুলাই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের স্বরাষ্ট্র ও পর্যটন সচিব অত্রি ভট্টাচার্য।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের উপপরিচালক শাহজাহান কবির দ্য ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন, রোববার দুপুরে মেলার আয়োজকদের কাছ থেকে তারা ‘বেষ্ট ইনোভেটিভ প্যাভিলিয়ন ডিজাইন’ শিরোপা পেয়েছেন।

দিনাজপুরের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন কান্তজিউ মন্দিরের আদলে তৈরি করা হয়েছিল এবার পর্যটন মেলায় বাংলাদেশের প্যাভিলিয়নটি। সেরা শিরোপা ছাড়াও মেলায় তিন দিনের আসা পর্যটক, পর্যটন ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের মধ্যে ৫০ শতাংশ বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন করেছেন বলেও ওই কর্মকর্তা দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেন।

গত ৬ এবং ৭ জুলাই নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামের মেলায় বাংলাদেশ থেকে আসা ১৭টি পর্যটন সংস্থা ভারতীয় এবং অংশ নেওয়া অন্যান্য দেশগুলোর পর্যটন সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। ভারত থেকে পর্যটক বাংলাদেশে পৌঁছালে বাংলাদেশি পর্যটন ব্যবসায়ীরা যেমন পরিষেবা দেবেন ঠিক বাংলাদেশ থেকে ভারতের আসলে তাদেরই ভারতীয় প্রতিনিধিরা এইরকমভাবে বাংলাদেশি পর্যটকদের সেই পরিষেবা নিশ্চিত করবেন। দুই দিন এই ধরণের চুক্তি হয়েছে শতাধিক- দ্য ডেইলি স্টারকে জানালেন ওয়েলকাম বাংলাদেশ নামের একটি বাংলাদেশি ট্যুর অপারেটর প্রতিষ্ঠানের প্রধান ডালটন জহির।

তিনি বললেন, মেলায় অংশ নেওয়া বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ও বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন ছাড়াও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান মিলিয়ে ১৭টি সংস্থা গত তিন দিন ওই আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা থেকে প্রায় দুই শতাধিক বুকিং পেয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

How the Sundarbans repeatedly saves Bangladesh from cyclones

In today's Star Explains, we take a look into how this mangrove forest has repeatedly helped reduce the severity of cyclones in Bangladesh

17m ago