সবাই মুক্ত!

অবশেষে স্বস্তির শ্বাস ফেলল সারাবিশ্ব। কেননা, এক এক করে সবাইকে গুহায় আটকে পড়া অবস্থা থেকে মুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে থাইল্যান্ডের নৌবাহিনী।
thai cave ambulance
১০ জুলাই ২০১৮, থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলের চিয়াং রাই প্রদেশের বিপদসংকুল থাম লুয়াং গুহার এলাকা থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্স বের হয়ে আসছে। ছবি: এএফপি

অবশেষে স্বস্তির শ্বাস ফেলল সারাবিশ্ব। কেননা, এক এক করে সবাইকে গুহায় আটকে পড়া অবস্থা থেকে মুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে থাইল্যান্ডের নৌবাহিনী।

অভিযান শেষে নৌবাহিনীর এসইএএল ইউনিটের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে আজ (১০ জুলাই) বলা হয়েছে, “ফুটবল দল ‘ওয়াইল্ড বোরস’-এর ১২ খুদে খেলোয়াড় এবং তাদের কোচকে গুহায় আটকে পড়া অবস্থা থেকে মুক্ত করা হয়েছে। এখন তারা নিরাপদে রয়েছে।”

এই ফুটবল দলটির সদস্যরা এবং তাদের কোচ দেশটির উত্তরাঞ্চলের চিয়াং রাই প্রদেশের বিপদসংকুল থাম লুয়াং গুহাটিতে বেড়াতে গিয়ে আটকা পড়ে যায় গত ২৩ জুন। এরপর, বৃষ্টির পানিতে সেই গুহার অংশ বিশেষ ভরে গেলে তাদের উদ্ধার নিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়ে পৃথিবী।

ব্রিটিশ ডুবুরিরা অভিযান চালিয়ে গুহার কয়েক কিলোমিটার ভেতরে গভীর অন্ধকারের মধ্যে ১৩ জনকে ক্ষুধার্ত-ক্লান্ত অবস্থায় খুঁজে বের করেন গত ২ জুলাই। তারপর আটকদের খাবার ও অক্সিজেন সরবরাহসহ চলতে থাকে তাদের উদ্ধার তৎপরতা।

তবে এ কাজ চলাকালে গত ৬ জুলাই থাই নৌবাহিনীর একজন সদস্যের মৃত্যু হওয়ায় উদ্ধার অভিযানের সফলতা নিয়ে দেখা দেয় সন্দেহ।

একটি সফল অভিযান পরিচালনার জন্যে অনেক পরিকল্পনার পর গত ৮ জুলাই শুরু হয় শিশুদের উদ্ধারকাজ। প্রথমদিন চার শিশুকে সুন্দরভাবে উদ্ধারের পর উৎসাহিত হন সবাই। এর পরের দিন উদ্ধার করা হয় আরও চারজনকে।

তারপরও, যেন আশঙ্কা কাটছিল না কারোই। এখনো যে রয়ে গেছে বাকিরা! অবশেষে, সেই শঙ্কা কেটে গেল এক এক করে সবাইকে উদ্ধারের খবরে। তবে একজনের মৃত্যুর মধ্য দিয়েই যেন মিলল ১৩ জনের মুক্তি। আর সেই দুঃখ বুকে নিয়েই উৎসবে মাতছেন থাইবাসী।

Comments

The Daily Star  | English

Israel-Iran: Hell on earth

The US’ need for a highly measured, or even lack of response from Israel cannot be overstated. 

6h ago