আর্সেনালকে হারিয়ে ম্যানসিটির দারুণ সূচনা

রেকর্ড গড়েই গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জিতে নিয়েছিল ম্যানচেস্টার সিটি। ইংলিশ লিগের ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে একশত পয়েন্ট পেয়েছিল দলটি। এমন দারুণ রেকর্ডে গড়া সাফল্যটা যে এবারও ধরে রাখতে চায় তার প্রমাণ লিগের শুরুতেই রাখল সিটিজেনরা। হাই ভোল্টেজ ম্যাচ জিতে নিল সহজেই। আর্সেনালকে ২-০ গোলে হারিয়ে দারুণ সূচনা করল পেপ গার্দিওলার দল।

রেকর্ড গড়েই গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জিতে নিয়েছিল ম্যানচেস্টার সিটি। ইংলিশ লিগের ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে একশত পয়েন্ট পেয়েছিল দলটি। এমন দারুণ রেকর্ডে গড়া সাফল্যটা যে এবারও ধরে রাখতে চায় তার প্রমাণ লিগের শুরুতেই রাখল সিটিজেনরা। হাই ভোল্টেজ ম্যাচ জিতে নিল সহজেই। আর্সেনালকে ২-০ গোলে হারিয়ে দারুণ সূচনা করল পেপ গার্দিওলার দল।

ঘরের মাঠে রোববার ফায়দাটা তুলে নিতে পারেনি আর্সেনাল। এমিরেটস স্টেডিয়ামে এদিন শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকে ম্যানসিটি। ৮ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো তারা। আর্সেনাল ডিফেন্ডার স্কোদ্রান মুস্তাফিকে বোকা বানিয়ে দারুণ এক শট নিয়েছিলেন রহিম স্টার্লিং। তবে তার চেয়েও দারুণ দক্ষতায় তা ফিরিয়ে দেন গোলরক্ষক পিটার চেক। তবে ১৪ মিনিটে আর স্টার্লিংকে আটকাতে পারেননি চেক। তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডি বক্সের বাইরে থেকে দূরপাল্লার দুর্দান্ত এক শটে লক্ষ্যভেদ করেন এ ইংলিশ ডিফেন্ডার।

২১ মিনিটে গোল শোধের দারুণ সুযোগ পেয়েছিল আর্সেনাল। মাইটল্যান্ড-নাইলসের কাছ থেকে ডানপ্রান্তে ফাঁকায় বল পেয়ে বাঁ পায়ে জোরালো শট নিয়েছিলেন হেক্টর বেলেরিন। তবে সে শট রুখে দেন গোলরক্ষক এডেরসন। ২৭ মিনিটে ডি বক্সের সামান্য বাইরে সের্জিও আগুয়েরোকে ফাউল করলে ফ্রিকিক পায় ম্যানসিটি। দারুণ এক ফ্রিকিক নিয়েছিলেন রিয়াদ মাহরেজ। তবে ঝাঁপিয়ে পড়ে তা রুখে দেন চেক। ফিরতি বলে নেওয়া আয়মেরিক লাপোর্তের শটও রুখে দেন চেক প্রজাতন্ত্রের এ গোলরক্ষক।

দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের ধারা ধরে রাখে ম্যানসিটি। ৪৯ মিনিটে দূরপাল্লার দারুণ এক শট নিয়েছিলেন আগুয়েরো। তবে অল্পের জন্য তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ছয় মিনিট পর গোল শোধ করার দারুণ এক সুযোগ পেয়েছিল আর্সেনাল। আলেকজান্দ্রে লাকাজাত্তেকে পাস দিয়ে ফাঁকায় দাঁড়িয়েছিলেন পিয়েরি এমেরিক আবামেয়াং। কিন্তু তিনি ফিরতি পাস না দিয়ে বারপোস্টে শট নিলে তা অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। 

৬২ মিনিটে দিনের সেরা সুযোগটি পেয়েছিলেন আগুয়েরো। কাউন্টার অ্যাটাকে নিজেদের অর্ধ থেকে বাড়ানো বলে গোলরক্ষককে একা পেয়ে গিয়েছিলেন এ আর্জেন্টাইন। কিন্তু চেকের গায়ে মেরে সে সুযোগ নষ্ট করেন তিনি। তবে পরের মিনিটেই ব্যবধান দ্বিগুণ করে সিটিজেনরা। বাঁ প্রান্ত থেকে বেঞ্জামিন মেন্ডির ক্রস থেকে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন বের্নার্দো সিলভা।

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে গোল শোধে মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে আর্সেনাল। কিন্তু লাভ হয়নি। সংঘবদ্ধ আক্রমণগুলো অ্যাটাকিং থার্ডে গিয়ে খেই হারিয়েছে। ফলে ০-২ গোলের পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে দলটি।

Comments

The Daily Star  | English

Students bleed as BCL pounces on them

Not just the students of Dhaka University, students of at least four more universities across the country bled yesterday as they came under attack by Chhatra League men during their anti-quota protests.

1h ago