‘বেদের মেয়ে জোসনা’-র সঙ্গে ২৩ বছর পর

প্রায় ২২ বছর পর অভিমান ভুলে দেশে ফিরেছেন অঞ্জু ঘোষ। আজ (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তিনি এফডিসি এসেছিলেন। সেখানেই ২৩ বছর পর দেখা হয় রাজকুমার ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে।
Anju Ghosh
৯ সেস্টেম্বর ২০১৮, এফডিসিতে ইলিয়াস কাঞ্চন ও অঞ্জু ঘোষ। ছবি: সংগৃহীত

প্রায় ২২ বছর পর অভিমান ভুলে দেশে ফিরেছেন অঞ্জু ঘোষ। আজ (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তিনি এফডিসি এসেছিলেন। সেখানেই ২৩ বছর পর দেখা হয় রাজকুমার ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে।

‎তোজাম্মেল হক বকুল পরিচালিত ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৮৯ সালে। ছবিটি তুমুল জনপ্রিয়তা এনে দেয় ইলিয়াস কাঞ্চন ও অঞ্জু ঘোষকে। ঢাকাই ছবির ইতিহাসে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ব্যবসা সফল ছবি এটি। আর এ ছবির মাধ্যমে জনপ্রিয়তার শীর্ষে চলে আসেন কাঞ্চন-অঞ্জু জুটি। দুজনের মধ্যে গড়ে উঠে বন্ধুত্বও। আজ দুজনার দেখা হওয়ায় তারা মেতে উঠেছিলেন অনেক মধুর স্মৃতিচারণে।

ইলিয়াস কাঞ্চন বললেন, “অঞ্জু আমার ক্যারিয়ারের সেরা ছবিটির নায়িকা। তার জন্য আমার আলাদা সম্মান আছে, ভালো লাগা আছে। সে এসেছে এতদিন পর আমি তাকে দেখতে এলাম। অনেকদিন পর দেখা হলো দুজনের। বেশ ভালো লাগছে।”

অঞ্জু ঘোষ বলেন, “দেশে এসে মনে হয়েছে তীর্থে পা রেখেছি। কারো ওপর আমার কোন ক্ষোভ নেই। শিল্পীরা কেমন আছেন তা দেখতে এসেছি। সিনেমা এখন সবার কাছ থেকে দূরে সরে গেছে। সবাই এখন সিরিয়াল দেখেন। ছবির মানুষগুলো দূরে সরে গেছেন। কষ্ট লাগছে। আমাদের সময় সিনেমাই ছিল ঘর-সংসার। আমার নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনকে দেখে কী যে ভালো লাগছে বোঝাতে পারবো না।”

আজ এফডিসিতে সংবর্ধনা দেওয়া হয় অঞ্জুকে। এতে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, আহমেদ শরীফ, চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন, চিত্রনায়িকা অঞ্জনাসহ অনেকেই।

আগামীকাল (১০ সেপ্টেম্বর) অঞ্জু ভারতে ফিরে যাবেন। এদিকে, ‘জোসনা কেনো বনবাসে’ এই শিরোনামে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের সম্ভাবনার কথা শোনা যায় এফডিসির প্রাঙ্গণে।

Comments

The Daily Star  | English

Students bleed as BCL pounces on them

Not just the students of Dhaka University, students of at least four more universities across the country bled yesterday as they came under attack by Chhatra League men during their anti-quota protests.

1h ago