তামিমকে নিয়ে এখন কেবল আনুষ্ঠানিক ঘোষণাই বাকি

তামিম ইকবালের হাতে একাধিক চিড় তো আছেই, এক জায়গায় হাড়ই আলগাই হয়ে আছে। আঘাত আছে দুই আঙুলেও। এই অবস্থাতে অসম্ভব সাহস দেখিয়ে সেদিন শেষ দিকে নেমে পড়েছিলেন। দলকে ম্যাচ জেতার জ্বালানি জুগিয়ে ভক্ত সমর্থকদের কাছে হিরোও হয়েছেন। কিন্তু বাস্তবে এই টুর্নামেন্টে আর খেলা হচ্ছে তামিমের। শুধু তাই নয় তামিমকে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজে পাওয়া নিয়েও থাকছে সংশয়।
Tamim Iqbal
লাকমালের বলে আঘাত পাওয়ার পর তামিম। ছবি: এএফপি

তামিম ইকবালের হাতে একাধিক চিড় তো আছেই, এক জায়গায় হাড়ই আলগাই হয়ে আছে। আঘাত আছে দুই আঙুলেও। এই অবস্থাতে অসম্ভব সাহস দেখিয়ে সেদিন শেষ দিকে নেমে পড়েছিলেন। দলকে ম্যাচ জেতার জ্বালানি জুগিয়ে ভক্ত সমর্থকদের কাছে হিরোও হয়েছেন। কিন্তু বাস্তবে এই টুর্নামেন্টে আর খেলা হচ্ছে তামিমের। শুধু তাই নয় তামিমকে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজে পাওয়া নিয়েও থাকছে সংশয়।

শনিবার ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই সুরাঙ্গা লাকমালের বলে কব্জিতে চোট পান তামিম। মাঠ থেকে বেরিয়ে হাসপাতালে নেওয়ার পর পরীক্ষায় চিড় ধরা পড়ে তার। সেই চিড় নিয়েই দলের প্রয়োজনে নেমে এক হাতে এক বল খেলেছিলেন তিনি। ম্যাচ শেষে আবার হাত ঝুলিয়ে রাখতে হয়েছে। তামিমের ছিটকে যাওয়ার খবর এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে না জানালেও দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন ইঙ্গিত দিলেন আর খেলার সম্ভাবনা নেই এই ব্যাটসম্যানের, ‘তামিমের একটা বড় ইনজুরি হয়েছে জানেন। ফ্র্যাকচার আছে। তামিমকে আমরা ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাবো। একজন স্পেশালিষ্ট আছে এখানে, জার্মান স্পেশালিষ্ট। উনার কাছে অ্যাপনমেন্ট আছে।’

‘আমরা তামিমকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাই না। ঝুঁকি নেয়া ঠিক হবে বলেও আমি মনে করি না। ’

জানা গেছে, মঙ্গলবার সেই জার্মান ডাক্তারের অপয়েন্টমেন্টের কারণেই এখনো দলের সঙ্গে থেকে যাচ্ছেন তামিম। ডাক্তারের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে পরবর্তী করনীয় জেনেই দুবাই ছাড়বেন টাইগার ওপেনার। হাতের চিড় হয়ত স্বাভাবিক চিকিৎসায় ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু যেখানে হাড় আলগা হয়েছে, সেখানে অস্ত্রোপচার করতে হবে কিনা তা নিয়েই এখন সব চিন্তা।

যদি অস্ত্রোপচারের দরকার হয় তাহলে আসছে জিম্বাবুয়ে সিরিজে নিশ্চিতভাবেই খেলতে পারবেন না তামিম।

 

 

Comments

The Daily Star  | English

Quota protest updates: RU students break out of dorms 'locked by BCL'; start procession

Several thousand students of Rajshahi University (RU) brought out a protest procession inside the campus, breaking locks at their dormitories

2h ago