দুর্বল হয়ে বাংলাদেশে আসবে 'তিতলি'

ভারতের ওড়িশা রাজ্যের গঞ্জাম জেলার গোপালপুরে আজ বৃহস্পতিবার ভোরে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় তিতলি। ঝড়টি ভোর সাড়ে চারটা থেকে সাড়ে পাঁচটার মধ্যে প্রচণ্ড ঘূর্ণিবাতাসের সঙ্গে বৃষ্টি ঝড়িয়ে গোপালপুর উপকূলে ভূমিধস ঘটিয়েছে। বৃষ্টি ঝরিয়ে এটি দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের দিকে আসবে।
Titli
ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’-র গতিপথ। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের ওড়িশা রাজ্যের গঞ্জাম জেলার গোপালপুরে আজ বৃহস্পতিবার ভোরে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় তিতলি। ঝড়টি ভোর সাড়ে চারটা থেকে সাড়ে পাঁচটার মধ্যে প্রচণ্ড ঘূর্ণিবাতাসের সঙ্গে বৃষ্টি ঝড়িয়ে গোপালপুর উপকূলে ভূমিধস ঘটিয়েছে। বৃষ্টি ঝরিয়ে এটি দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের দিকে আসবে। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, গোপালপুরে আঘাত হানার সময় ঘূর্ণিঝড় তিতলির গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১২৬ কিলোমিটার। এতে কোনো কোনো এলাকার গাছপালা ও বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে উপকূলবর্তী পাঁচ জেলা থেকে তিন লাখ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

ওড়িশা থেকে দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের দিকে আসবে ঘূর্ণিঝড় তিতলি। আবহাওয়া অধিদপ্তরের সহকারী আবহাওয়াবিদ মো. মোজাম্মেল হোসেন জানান, ওড়িশায় আঘাত হানার পর দুর্বল হয়ে পড়েছে তিতলি। বাংলাদেশের ওপর দিয়ে প্রবাহের সময় এর কারণে উপকূলসহ বেশ কিছু এলাকায় বৃষ্টি ঘটাবে।

চট্টগ্রাম, মোংলা, পায়রা সমুদ্রবন্দর ও কক্সবাজারে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় তিতলির কারণে বন্ধ রয়েছে গোপালপুর ও ব্রহ্মপুরের পরিবহন সেবা। অন্ধ্রপ্রদেশ এবং ওড়িশায় বিমান এবং রেল চলাচল ব্যাহত হয়েছে। ভুবনেশ্বর থেকে উড্ডয়নের অপেক্ষায় থাকা পাঁচটি বিমানের যাত্রা স্থগিত করা হয়েছে।

ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নাভিন পাটনায়েক ঘূর্ণিঝড়ের কবলে আটকে পড়াদের দ্রুত উদ্ধারের নির্দেশ দিয়েছেন কালেক্টরদের। বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে তা মোকাবিলায় সব ধরণের ব্যবস্থা রয়েছে বলে সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে। এরিমধ্যে উদ্ধার কাজে নেমে পড়েছে ভারতের জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনী।

Comments

The Daily Star  | English

5.5 magnitude earthquake jolts Dhaka, Ctg, Sylhet

A magnitude 5.5 earthquake jolted Dhaka, Sylhet, Chattogram and some other parts of the country this evening.

43m ago