শ্রমিকদের ফেরত পাঠানোর ধারা অব্যাহত রেখেছে সৌদি আরব

একের পর এক বাংলাদেশি শ্রমিকদের ফেরত পাঠিয়েই যাচ্ছে সৌদি আরব। গতকাল বুধবার আরও ৮০ জন শ্রমিককে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে তারা। এ নিয়ে চলতি মাসে ফেরত আসা শ্রমিকের সংখ্যা ছয়শো’তে গিয়ে ঠেকেছে।
সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে নির্মাণাধীন মেট্রো রেল নেটয়ার্কের পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন একজন প্রবাসী শ্রমিক। ছবি: এএফপি

একের পর এক বাংলাদেশি শ্রমিকদের ফেরত পাঠিয়েই যাচ্ছে সৌদি আরব। গতকাল বুধবার আরও ৮০ জন শ্রমিককে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে তারা। এ নিয়ে চলতি মাসে ফেরত আসা শ্রমিকের সংখ্যা ছয়শো’তে গিয়ে ঠেকেছে।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের সহকারী পরিচালক তানভীর হোসেন বলেন, বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এই শ্রমিকেরা সৌদি এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে বিমানবন্দরে এসে পোঁছান। তাদের কাছে বৈধ ইকামা (বসবাসের অনুমতিপত্র) ছিল।

তানভীর জানান, ইকামা থাকা সত্ত্বেও তাদের আটক করে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে শ্রমিকদের অনেকেই অভিযোগ করেছেন।

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের আল-আমিন গাজী বলেন, গত বছর ডিসেম্বরে সাড়ে ছয় লাখ টাকার বিনিময়ে তিনি মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে গিয়েছিলেন। কিন্তু এরপরও নিয়োগদাতা তাকে কোনো ইকামার ব্যবস্থা করে দেয়নি।

তিনি জানান, এক আত্মীয়ের কাছ থেকে দেড় লাখ টাকা নিয়ে তিনি ইকামার ব্যবস্থা করেন। এর পর একটি কোম্পানিতে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে মাত্র দেড় মাস কাজ করতে পেরেছিলেন তিনি।

কিন্তু এক সপ্তাহ আগে রিয়াদে বাড়ির বাইরে থেকে তাকে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ। গতকাল দেশে পাঠানোর আগ পর্যন্ত তাকে দাম্মামের নির্বাসন কেন্দ্রে নিয়ে রাখা হয়।

আল-আমিন বলেন, আমি খালি হাতে ফিরে এসেছি। যে টাকা খরচ হয়েছে, এখন কীভাবে তা শোধ করবো?

বিমানবন্দরের প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের সহকারী পরিচালক তানভীর হোসেন আরও বলেন, ফিরে আসা শ্রমিকদের কয়েকজনের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু তারপরও তারা সেখানে ছিলেন।

ডেস্কের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে আগস্ট মাসের মধ্যে অন্তত ১৫ হাজার বাংলাদেশি শ্রমিক সৌদি আরব থেকে ফিরে এসেছেন। তবে তাদের মধ্যে ঠিক কত জনের কাছে বৈধ ইকামা ছিল, তা জনাতে পারেননি তানভীর।

সৌদি আরবে অন্তত ২০ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক কাজ করছেন। সম্প্রতি অনিবন্ধিত প্রবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর নিয়ম চালু হওয়ায় অনেককেই চাকরি থেকে বাদ দিতে বাধ্য হচ্ছে সৌদি আরবের স্থানীয়রা। ফলে বাংলাদেশিদের জন্য সঙ্কুচিত হয়ে যাচ্ছে দেশটির শ্রমবাজার।

ঐতিহ্যগতভাবে বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় বিদেশি শ্রমবাজার হওয়া সত্ত্বেও, বর্তমানে খুব অল্প সংখ্যক বাংলাদেশি দেশটিতে শ্রমিক হিসেবে যাচ্ছেন। সে তুলনায় বহু সংখ্যক শ্রমিক ইতিমধ্যে দেশে ফিরে এসেছেন এবং এখনও এই ধারা অব্যাহত রয়ছে।

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) তথ্য অনুযায়ী, এ বছরের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে প্রতিমাসে গড়ে ২০ হাজার ৮০২ জন করে মোট ১ লাখ ৮৭ হাজার ২২৪ জন বাংলাদেশি শ্রমিক সৌদি আরব গেছেন। যেখানে গত বছর প্রতিমাসে গড়ে ৪৬ হাজার জন করে মোট ৫ লাখ ৫১ হাজার ৩০৮ জন দেশটিতে গিয়েছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English

Thousands pray for rain as Bangladesh sizzles in heatwave

Thousands of Bangladeshis yesterday gathered to pray for rain in the middle of an extreme heatwave that prompted authorities to shut down schools around the country

10m ago