কেউ এসেছিলেন ফুল হাতে, কেউ বা গিটার নিয়ে

কেউ এসেছিলেন ফুল হাতে, কেউ বা গিটার হাতে, পিঠে ঝুলিয়ে। শেষবারের মতো ব্যান্ড লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তাকে বিদায় দিতে হাজির হয়েছিলেন অগণিত ভক্ত-অনুরাগীরা। সময় যতোই বেড়েছে ততোই বেড়েছে ভক্তের সমাগম। হাজারো মানুষের সমাগম হয়েছিলো কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে।
ayub bachchu
১৯ অক্টোবর ২০১৮, বাংলাদেশের ব্যান্ডসংগীতের প্রাণপুরুষ আইয়ুব বাচ্চুকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তার হাজারো ভক্ত জড়ো হয়েছেন রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে। ছবি: পলাশ খান

কেউ এসেছিলেন ফুল হাতে, কেউ বা গিটার হাতে, পিঠে ঝুলিয়ে। শেষবারের মতো ব্যান্ড লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তাকে বিদায় দিতে হাজির হয়েছিলেন অগণিত ভক্ত-অনুরাগীরা। সময় যতোই বেড়েছে ততোই বেড়েছে ভক্তের সমাগম। হাজারো মানুষের সমাগম হয়েছিলো কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে।

আজ (১৯ অক্টোবর) সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে শহীদ মিনারে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয় আইয়ুব বাচ্চুকে। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় শ্রদ্ধা নিবেদন চলে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত।

আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহে শ্রদ্ধা জানিয়েছে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জাসাস, অভিনয় শিল্পী সংঘ, ডিরেক্টরস গিল্ডসহ আরও অনেক সংগঠন।

শ্রদ্ধা জানাতে এসেছেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। আরও এসেছিলেন সুবর্ণ মুস্তাফা, আফজাল হোসেন, তপন চৌধুরী, হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল, নকীব খান, ফুয়াদ নাসের বাবু, সাঈদ হাসান টিপুসহ আরও অনেক ব্যক্তিত্ব। ছিলেন নানা পেশা, বয়স-শ্রেণির মানুষ।

শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এক মিনিট নীরবতার মাধ্যমে শেষ হয় বাচ্চুর প্রতি শেষ শ্রদ্ধার পর্ব।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে। সেখানে জুমার নামাজের অনুষ্ঠিত হয় তার প্রথম জানাজা। এরপর, মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় মগবাজারে ‘এবি কিচেন’ স্টুডিওতে। সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় তেজগাঁওয়ে চ্যানেল আইয়ের কার্যালয়ে। সেখানে অনুষ্ঠিত হয় বাচ্চুর দ্বিতীয় জানাজা নামাজ।

এরপর, তাকে নিয়ে যাওয়া হবে চট্টগ্রামে। সেখানে মায়ের কবরের পাশে শায়িত হবেন বাংলাদেশের ব্যান্ডসংগীতের এই কিংবদন্তি শিল্পী।

উল্লেখ্য, গতকাল (১৮ অক্টোবর) ব্যান্ডসংগীতশিল্পী ও রকব্যান্ড এলআরবির প্রতিষ্ঠাতা আইয়ুব বাচ্চু চলে যান পৃথিবীর মায়া ছেড়ে। সকাল সোয়া ৯টার দিকে মগবাজারের বাসা থেকে নিথর অবস্থায় স্কয়ার হাসপাতালে নেওয়া হলে ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। একাধারে গায়ক, লিডগিটারিস্ট, গীতিকার, সুরকার ও প্লেব্যাক শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর।

আইয়ুব বাচ্চুর জন্ম ১৯৬২ সালে চট্টগ্রামে। ১৯৭৮ সাল থেকে তিনি বাংলাদেশে ব্যান্ডসংগীত চর্চা করছিলেন। ‘ফিলিংস’ নামের একটি ব্যান্ড দিয়ে ক্যারিয়ারের সূচনা হয় আইয়ুব বাচ্চুর। ১৯৮০ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি ‘সোলস’ ব্যান্ডের লিড গিটারিস্ট ছিলেন। ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠা করেন এলআরবি। নিজের প্রতিষ্ঠিত ব্যান্ড দলে লিড গিটারিস্ট ও ভোকাল ছিলেন বাচ্চু।

Comments

The Daily Star  | English

Lifts at public hospitals: Horror abounds

Shipon Mia (not his real name) fears for his life throughout the hours he works as a liftman at a building of Sir Salimullah Medical College, commonly known as Mitford hospital, in the capital

3h ago