শীর্ষ খবর

ব্যারিস্টার মইনুলকে ক্ষমা চাইতে ৫৫ সম্পাদক ও সাংবাদিকের বিবৃতি

একাত্তর টেলিভিশনের টকশো-তে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫৫ জন সম্পাদক ও সাংবাদিক।
ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

একাত্তর টেলিভিশনের টকশো-তে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫৫ জন সম্পাদক ও সাংবাদিক।

বিবৃতিতে তারা বলেছেন, একাত্তর টেলিভিশনের টকশো-তে একটি প্রশ্নের প্রেক্ষিতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে গাল দেওয়ার আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমরা মনে করি, কেবলমাত্র সাংবাদিকসুলভ প্রশ্ন করায় এরকম ক্ষিপ্ত হয়ে কাউকে চরিত্রহীন বলার এখতিয়ার কারোরই নেই। স্বাধীন সাংবাদিকতা ও মুক্ত গণমাধ্যম যখন বিভিন্নভাবে আক্রান্ত তখন রাজনীতিবিদ ও আইনবিদ হিসেবে ব্যারিস্টার মইনুলের কাছ থেকে এরকম আচরণ মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়।

একাত্তর টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোজাম্মেল বাবু প্রেরিত এই বিবৃতিতে প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান, দ্য ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী, দ্য ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনামসহ সিনিয়র সাংবাদিকরা স্বাক্ষর করেছে।

বিবৃতিতে ব্যারিস্টার মইনুলের আচরণে ক্ষোভ করে বলা হয়, আমরা অবিলম্বে মইনুল হোসেনের এই ঘৃণ্য বক্তব্য প্রত্যাহার করে প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থনার দাবি করছি। এটা শুধু মাসুদা ভাট্টিকে অপমান করা হয়েছে বলে নয়, বরং ভবিষ্যতে যাতে কেউ আর এভাবে কাউকে ব্যক্তি আক্রমণ না করেন সেটা নিশ্চিত করার জন্যই অবিলম্বে তার কাছ থেকে প্রকাশ্যে একটি মার্জনা প্রার্থনা আসা প্রয়োজন।

গতকাল শনিবার সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এই উপদেষ্টার সব সংবাদ সাত দিন বর্জন করার জন্য গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন নারী সাংবাদিকরা।

Comments

The Daily Star  | English

Economy with deep scars limps along

Business and industrial activities resumed yesterday amid a semblance of normalcy after a spasm of violence, internet outage and a curfew that left deep wounds in almost all corners of the economy.

6h ago