ক্রিকেট

বাবর-রিজওয়ানের সমালোচকদের কটাক্ষ আফ্রিদির

এশিয়া কাপে চেনা ছন্দে ছিলেন না পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। আর ফাইনালে ফিফটি করেও ব্যাপক সমালোচনার শিকার হন মোহাম্মদ রিজওয়ান। সেই দুই ব্যাটার আগের দিন গড়লেন রেকর্ড এক জুটি। এরপর সমালোচকদের খোঁচা মেরে রীতিমতো এক হাত নিয়েছেন তাদের সতীর্থ শাহিন শাহ আফ্রিদি।

এশিয়া কাপে চেনা ছন্দে ছিলেন না পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। আর ফাইনালে ফিফটি করেও ব্যাপক সমালোচনার শিকার হন মোহাম্মদ রিজওয়ান। সেই দুই ব্যাটার আগের দিন গড়লেন রেকর্ড এক জুটি। এরপর সমালোচকদের খোঁচা মেরে রীতিমতো এক হাত নিয়েছেন তাদের সতীর্থ শাহিন শাহ আফ্রিদি।

দারুণ ছন্দে থাকলেও স্ট্রাইক রেটের কারণে সমালোচনার শিকার হচ্ছিলেন বাবর ও রিজওয়ান। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রীতিমতো রুদ্ররূপ ধারণ করেন এ দুই ব্যাটার। ফিরিয়ে আনেন গত বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে ১০ উইকেটে হারানোর স্মৃতি। ইংল্যান্ডের দেওয়া ২০০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কোনো উইকেট না হারিয়ে জিতে নেয় পাকিস্তান।

আর এর মূল কারিগর ছিলেন বাবর। চোখ ধাঁধানো ব্যাটিংয়ে ৬২ বলে সেঞ্চুরি করেন তিনি। ১১০ রানের ইনিংসে রয়েছে ১১টি চার এবং ৫টি ছক্কা। স্ট্রাইকরেট ১৬৬.৬৬। তাকে দারুণ সহায়তা করেন রিজওয়ান। খেলেন হার না মানা ৮৮ রানের ইনিংস। তার স্ট্রাইকরেট ১৭২.৫৪।

ম্যাচের পর বাবর ও রিজওয়ানের সমালোচকদের বেশ কঠিন এক খোঁচা দিয়েছেন শাহিন আফ্রিদি। টুইটারে লিখেছেন, 'আমার মনে হয় বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ানকে ছেঁটে ফেলার সময় হয়েছে। এতো স্বার্থপর ক্রিকেটার! আমার মনে হয় ওরা ঠিক করে খেললে ১৫ ওভারে ম্যাচ শেষ হয়ে যেত। তা না করে ওরা শেষ ওভার পর্যন্ত ম্যাচটা টেনে নিয়ে গেল! চলুন এবার আওয়াজ তোলা যাক। তাই নয় কি?' এরসঙ্গে যোগ করে লিখেছেন, 'এই পাকিস্তান দল নিয়ে আমি গর্বিত।'

জাকে নিয়ে এতো সমালোচনা সে বাবর বলেছেন, 'আমি এমন কিছুতে মন দিই না, যা আমার নিয়ন্ত্রণের বাইরে। আমরা ভালো বা খারাপ যাই পারফর্ম করি না কেন, যারা দোষ ধরার সব সময়ই কিছু না কিছু দোষ খুঁজে বের করবেনই। তারা আমাদের পারফরম্যান্স যেমনই হোক কেন, সমালোচনা করার জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন।'

Comments

The Daily Star  | English

The taste of Royal Tehari House: A Nilkhet heritage

Nestled among the busy bookshops of Nilkhet, Royal Tehari House is a shop that offers students a delectable treat without burning a hole in their pockets.

2h ago