পাকিস্তানকে হারিয়ে থাইল্যান্ডের ইতিহাস

বৃহস্পতিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মেয়েদের এশিয়া কাপে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে থাইল্যান্ড। পাকিস্তানের ১১৬ রানের পুঁজি তারা পেরিয়ে গেছে ১ বল আগে।
Thailand Women's Cricket Team

দুই দলের ক্রিকেট ঐতিহ্য আকাশ-পাতাল, শক্তির পার্থক্যও অনেক। তবে মাটে সেটা ভিন্ন প্রমাণ হলো। টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল থাইল্যান্ড।

বৃহস্পতিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মেয়েদের এশিয়া কাপে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে থাইল্যান্ড। পাকিস্তানের ১১৬ রানের পুঁজি তারা পেরিয়ে গেছে ১ বল আগে।

ম্যাচ জিততে শেষ ওভারে থাইল্যান্ডের দরকার ছিল ১০ রান। ডায়ানা বেগের প্রথম বলটি হয় ওয়াইড। পরের বলে সিঙ্গেল নেন ন্যাটাইয়া বুচত্থাম। এরপরের বলে রাসনান কুনাহ মেরে দেন বাউন্ডারি। পরের তিন বল থেকে আরও ৪ রান তুলে উল্লাসে মাতে থাইল্যান্ড। 

সিলেটের মাঠে সকাল বেলা উইকেটে ব্যাট করা হয় কঠিন। তবে টস জিতে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে সেই কঠিন পথেই পা বাড়ায় পাকিস্তান। থাই বোলারদের তোপে সিদ্রা আমিন ছাড়া কোন ব্যাটারই ডানা মেলতে পারেননি। 

সিদ্রা ৫৬ রান করলেও অবশ্য লাগিয়ে ফেলেন ৬৪ বল। আরেক ওপেনার মুনিবা আলি করেন ১৪ বলে ১৫। নিদা দার ১২ রান করতে খেলে ফেলেন ২২ বল।

থাইল্যান্ডের পক্ষে সেরা বোলিং করেছেন সুরনারিন টিপক। ৪ ওভারে মাত্র ২০ রানে ২ শিকার ধরেন তিনি। দারুণ ফিল্ডিংয়ে বিসমাহ মারুফ ও সিদ্রাকে রান আউট করে থাই মেয়েরা। কখনই রানের চাকা চড়া হতে দেয়নি তারা। 

১১৭ রান সহজ লক্ষ হলেও মন্থর ও নিচু বাউন্সের উইকেটে কাজটা মোটেও সহজ ছিল না। কিন্তু ওপেনিং জুটিতে শুরুটা আসে দারুণ। নান্নাপাত কুনচারনকাই ও চান্তাম মিলে আনেন ৪০ রান। নান্নাপাত ফেরার পর দ্রুত আরেক উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল থাই মেয়েরা। কিন্তু নারুমুল চাওয়াইর সঙ্গে ৪২ রানের আরেক জুটি পান চান্তাম। ম্যাচ তখন হেলে আসে থাইল্যান্ডের দিকে। এরপর শেষ দিকের উত্তেজনায় পাকিস্তানকে হতাশ করে তারা। 

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka traffic still light as offices, banks, courts reopen

After five days of Eid and Pahela Baishakh vacation, offices, courts, banks, and stock markets opened today

2h ago