ওয়ানডে বিশ্বকাপেও পান্তকে পাবে না ভারত

পান্তের হাঁটুর আন্টেরিওর, পস্টেরিরর ও কোলেটেরাল তিনটা লিগামেন্টই ছিঁড়ে যায়। এই লিগামেন্টগুলো দাঁড়িয়ে থাকা ও হাঁটাচলার জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ
Rishabh Pant
ফাইল ছবি: এএফপি

সড়ক দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেলেও সেরে উঠতে লম্বা এক চিকিৎসা প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে রিশভ পান্তকে। শারীরিক সুস্থতার পর মাঠের খেলায় ফিরতে দরকার হবে আরও বিস্তর সময়। ২০২৩ সালের পুরোটা  তো বটেই, ২০২৪ সালেও অনেকগুলো ক্রিকেট ইভেন্ট মিস করতে পারেন এই ভারতীয় তারকা।

গত ৩০ ডিসেম্বর সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে এখনো হাসপাতালে সময় কাটছে পান্তের। ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো, বিসিসিআইর মেডিকেল দলের বরাতে জানিয়েছে, ২০২৩ সালে পান্তের মাঠে ফেরার সম্ভাবনা আসলে নেই। তার হাঁটুর মূল তিনটি লিগামেন্টই আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ছিঁড়ে যায়। দুটি লিগামেন্ট অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আবার জোড়া দেয়া হয়েছে। ৬ সপ্তাহ পর তৃতীয় লিগামেন্টের জন্য করা হবে আরেক দফা অস্ত্রোপচার।

এছাড়া শরীরের আরও নানান জায়গায় আছে আঘাত। তবে সেসব আঘাত বিশ্রামেই সেরে যাচ্ছে। কেবল চিকিৎসা প্রক্রিয়া শেষ হতেই দরকার আরও ৬ মাস। এই কারণে ২০২৩ সালের আইপিএল ও বছরের শেষ দিকে ভারতেই হতে যাওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপে থাকছে না পান্ত।

বাঁহাতি উইকেটকিপার ব্যাটার দিল্লি থেকে ররকি যাওয়ার পথে ভয়াবহ এক দুর্ঘটনায় পড়েন। কোন রকমে সেখান থেকে উদ্ধার হলেও তার ক্ষতি ব্যাপক। ডান লিগামেন্ট চরম ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর দ্রুতই তাকে নেওয়া হয় অস্ত্রোপচারে। ডাক্তার দিনশো পারদিওয়ালার নেতৃত্বে ধাপে ধাপে চলছে তার চিকিৎসা।

পান্তের হাঁটুর আন্টেরিওর, পস্টেরিরর ও কোলেটেরাল তিনটা লিগামেন্টই ছিঁড়ে যায়। এই লিগামেন্টগুলো দাঁড়িয়ে থাকা ও হাঁটাচলার জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। নির্দিষ্ট চিকিৎসা পদ্ধতিতে একেকটি লিগামেন্ট সেরে উঠতে মাস তিনেক করে সময় প্রয়োজন।

চিকিৎসকরা তাই এই মুহূর্তে পান্তের সেরে উঠার নির্দিষ্ট সময় উল্লেখ করতে পারছেন না। ধারণা করা হচ্ছে তিনটি লিগামেন্টে দুই দফা অস্ত্রোপচারে সেরে উঠতে সময় লাগতে পারে ছয় মাস। বিসিসিআইর নির্বাচকরা এই ছয় মাস তাকে খেলার বাইরে ধরছেন এখনি।

এরপরও আছে লম্বা প্রক্রিয়া। হাঁটাচলা স্বাভাবিক হওয়ার পর ফিটনেস নিয়ে লম্বা সময় কাজ করতে হবে পান্তকে। আগের অবস্থায় যেতে লাগতে পারে আরও ৬ মাসের বেশি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআইর এক কর্মকর্তার বরাতে ভারতের একটি গণমাধ্যম জানাচ্ছে, পান্ত হয়ত সব মিলিয়ে খেলার বাইরে থাকবে ১৮ মাস। সেক্ষেত্রে ২০২৪ সালের আইপিএল ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিস করতে পারেন তিনি।

এই বছর আইপিএল খেলতে না পারলেও তার সঙ্গে চুক্তির ১৬ কোটি টাকার পুরোটাই দিয়ে দিচ্ছে দিল্লি ক্যাপিটালস। কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকায় বোর্ড থেকে আরও ৫ কোটি টাকা পাচ্ছেন এই ক্রিকেটার।

Comments

The Daily Star  | English

Economy with deep scars limps along

Business and industrial activities resumed yesterday amid a semblance of normalcy after a spasm of violence, internet outage and a curfew that left deep wounds in almost all corners of the economy.

7h ago