গিলের ডাবল সেঞ্চুরির পর ব্রেসওয়েলের তাণ্ডব ছাপিয়ে জিতল ভারত

ওপেনার শুবমন গিলের রেকর্ডগড়া আগ্রাসী ডাবল সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড়ে চড়ল ভারত। এরপর বোলারদের কল্যাণে অনায়াস জয়ই দেখছিল তারা। কিন্তু রঙহীন ম্যাচে তীব্র লড়াইয়ের আমেজ নিয়ে এলেন সাতে নামা মাইকেল ব্রেসওয়েল। তাণ্ডব চালিয়ে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নিউজিল্যান্ডকে জয়ের সুবাস দিলেও শেষটা রাঙাতে পারলেন না তিনি।
ছবি: টুইটার

ওপেনার শুবমন গিলের রেকর্ডগড়া আগ্রাসী ডাবল সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড়ে চড়ল ভারত। এরপর বোলারদের কল্যাণে অনায়াস জয়ই দেখছিল তারা। কিন্তু রঙহীন ম্যাচে তীব্র লড়াইয়ের আমেজ নিয়ে এলেন সাতে নামা মাইকেল ব্রেসওয়েল। তাণ্ডব চালিয়ে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নিউজিল্যান্ডকে জয়ের সুবাস দিলেও শেষটা রাঙাতে পারলেন না তিনি।

বুধবার হায়দরাবাদে তিন ম্যাচ সিরিজের রোমাঞ্চকর প্রথম ওয়ানডেতে কিউইদের ১২ রানে হারিয়েছে স্বাগতিক ভারত। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ৩৪৯ রান তোলে তারা। জবাবে ৪ বল বাকি থাকতে ৩৩৭ রানে অলআউট হয় সফরকারীরা।

এক পর্যায়ে, ১৩১ রানে ৬ উইকেট পড়ে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ডের। এরপর মিচেল স্যান্টনারের সঙ্গে ১০২ বলে ১৬২ রানের জুটিতে ম্যাচে উত্তেজনা নিয়ে আসেন ব্রেসওয়েল।

ভারতের পক্ষে ব্যাট হাতে ১৯ চার ও ৯ ছক্কায় ১৪৯ বলে ২০৮ রান করেন গিল। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি করা সবচেয়ে কমবয়সী ব্যাটার এখন তিনি। এই ইনিংস খেলার পথে দেশের হয়ে ওয়ানডেতে দ্রুততম এক হাজার রানের কীর্তিও গড়েন। তিনি ছাড়িয়ে যান বিরাট কোহলি ও শিখর ধাওয়ানকে। তাদের লেগেছিল ২৪ ইনিংস। গিল মাত্র ১৯ ইনিংসে স্পর্শ করেন হাজার রান। শেষ ওভারে পেসার হেনরি শিপলির বলে ডিপ মিড উইকেটে গ্লেন ফিলিপসের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে একপ্রান্ত আগলে ছিলেন তিনি।

ব্রেসওয়েল ১২ চার ও ১০ ছক্কায় খেলেন ৭৮ বলে ১৪০ রানের ইনিংস। সেঞ্চুরি স্পর্শ করতে তার লাগে মাত্র ৫৭ বল। নিউজিল্যান্ডের শেষ ব্যাটার হিসেবে আউট হন তিনি। আটে নামা স্যান্টনার করেন ৪৫ বলে ৫৭ রান। বল হাতে ভারতের পেসার মোহাম্মদ সিরাজ ৪ উইকেট নেন ৪৬ রানে।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য ভারতের দরকার ছিল ১ উইকেট। অধিনায়ক রোহিত শর্মা বল তুলে পেসার শার্দুল ঠাকুরের হাতে। অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ডের লাগত ২০ রান। স্ট্রাইকে ছিলেন ব্রেসওয়েল। ওভারের প্রথম বলেই লং-অন দিয়ে ছক্কা মারেন তিনি। পরের বাউন্সার ডেলিভারিটি তার মাথার অনেক উপর দিয়ে যাওয়ায় আম্পায়ার দেন ওয়াইডের সিদ্ধান্ত। তবে এরপর আস্থার প্রতিদান দেন শার্দুল। স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে ভারত।

অফ স্টাম্পের দিকে সরে গিয়ে মারতে গিয়ে ইয়র্কার ডেলিভারিতে পরাস্ত হন ব্রেসওয়েল। বল প্যাডে লাগলে এলবিডব্লিউয়ের সিদ্ধান্ত দেন আম্পায়ার। ব্রেসওয়েল রিভিউ নিলেও পাল্টায়নি কিছু। বল ট্র‍্যাকিংয়ে দেখা যায়, স্টাম্পে গিয়ে আঘাত করত বল। আশা জাগিয়েও আক্ষেপে পুড়তে হয় নিউজিল্যান্ডকে।

Comments

The Daily Star  | English

14 killed as truck ploughs thru multiple vehicles in Jhalakathi

It is suspected that the truck driver lost control over his vehicle due to a brake failure

1h ago