ছয় দল নিয়ে হলেও অলিম্পিকে ক্রিকেট চায় আইসিসি 

২০২৮ সালে লস অ্যাঞ্জেলসে হতে যাওয়া অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেট ইভেন্ট রাখার ব্যাপারে অনেকদিন ধরেই চেষ্টা চালাচ্ছে আইসিসি। আগামী অক্টোবরে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের আগে তাই সব কিছু বিচার করে বাস্তব একটি রূপরেখা দিয়েছে সংস্থাটি। 
icc olympics cricket
ছবি: সংগৃহীত

যেকোনোভাবে হলেও বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর অলিম্পিকে ক্রিকেট ইভেন্ট ঢোকাতে চায় আইসিসি। ছেলে ও মেয়েদের ইভেন্টের জন্য দল সংখ্যা কমিয়ে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির (আইওসি) কাছে প্রস্তাব দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। ক্রিকেটওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোর খবর, অলিম্পিকে ক্রিকেট রাখা হলেও তাতে ছয় দলের বেশি অংশ নেওয়ার সুযোগ থাকবে না।

২০২৮ সালে লস অ্যাঞ্জেলসে হতে যাওয়া অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেট ইভেন্ট রাখার ব্যাপারে অনেকদিন ধরেই চেষ্টা চালাচ্ছে আইসিসি। আগামী অক্টোবরে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের আগে তাই সব কিছু বিচার করে বাস্তব একটি রূপরেখা দিয়েছে সংস্থাটি। 

মার্চে নতুন খেলার ইভেন্ট অন্তর্ভুক্তি নিয়ে হবে একটি সভা, পর্যালোচনা শেষে সিদ্ধান্ত আসবে অক্টোবরে। অলিম্পিকে ক্রিকেট রাখার বিবেচনা করে গত বছর একটি কমিটি করে আইসিসি। যেখানে আছেন আইসিসি চেয়ারম্যান গ্রেগ বার্কলে, বিসিসিআই সচিব জয় শাহ, স্বতন্ত্র পরিচালক ইন্দ্রা নুয়ি এবং যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেটের সাবেক প্রেসিডেন্ট পরাগ মারাঠে। এই কমিটি আইওসির সঙ্গে দেনদরবার চালিয়ে ক্রিকেট ঢোকানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। 

আইওসি আইসিসিকে জানিয়েছে, বিশ্বকাপ হয় এমন একটি সংস্করণ বেছে নিতে। সেক্ষেত্রে টি-টোয়েন্টি সংস্করণই বেছে নেয়া হয়েছে। কারণ ব্যাপ্তির কারণে ওয়ানডে সংস্করণ অলিম্পিকে আয়োজনের বাস্তবতা নেই। 

ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোর খবর, শুধু সংক্ষিপ্ত সংস্করণই নয়, দল সংখ্যা কমানোর ব্যাপারেও গাইডলাইন আছে অলিম্পিক কমিটি থেকে। সে কারণে অলিম্পিকের জন্য ছয় দলের বেশি রাখতে চায় না আইসিসি। সেই ছয় দল নির্ধারিত হবে র‍্যাঙ্কিংয়ের ভিত্তিতে। 

Comments

The Daily Star  | English

Create right conditions for Rohingya repatriation: G7

Foreign ministers from the Group of Seven (G7) countries have stressed the need to create conditions for the voluntary, safe, dignified, and sustainable return of all Rohingya refugees and displaced persons to Myanmar

5m ago