ক্রিকেট

কামিন্সকে সরিয়ে শীর্ষে অ্যান্ডারসন

১৯৩৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক লেগ স্পিনার ক্ল্যারি গ্রিমেটের পর সবচেয়ে বয়সী বোলার হিসেবে শীর্ষে উঠলেন অ্যান্ডারসন। চার বছর টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকার পর সিংহাসন হাতছাড়া হলো অজি অধিনায়ক প্যাট কামিন্সের। এক ধাক্কায় নেমে গেছেন তিনে।

বয়স ৪০ বছর ২০৭ দিন। কিন্তু বল হাতে এখনও দুর্দান্ত জেমস অ্যান্ডারসন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ছিলেন দারুণ ছন্দে। সেই পারফরম্যান্সের পুরষ্কারটা হাতেনাতেই পেলেন তিনি। আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠে এলেন। ১৯৩৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক লেগ স্পিনার ক্ল্যারি গ্রিমেটের পর সবচেয়ে বয়সী বোলার হিসেবে শীর্ষে উঠলেন এ ইংলিশ পেসার।

এদিকে, চার বছর টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকার পর সিংহাসন হাতছাড়া হলো অজি অধিনায়ক প্যাট কামিন্সের। এক ধাক্কায় নেমে গেছেন তিনে। অ্যান্ডারসনের পর রয়েছেন ভারতীয় স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই টেস্টে দারুণ পারফরম্যান্সে এ স্পিনার উঠে এসেছেন দ্বিতীয় স্থানে। তবে শীর্ষে থাকা অ্যান্ডারসনের (৮৬৬) সঙ্গে তার রেটিং পয়েন্টের ব্যবধান মাত্র ২।

অন্যদিকে ভারতের বিপক্ষে প্রথম দুই টেস্টে একেবারেই ছন্দে ছিলেন না কামিন্স। দুই টেস্টে পেয়েছেন মাত্র তিনটি উইকেট। অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে সাত উইকেট পান অ্যান্ডারসন। তাতেই গড়েছে পার্থক্য।

এ নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠলেন অ্যান্ডারসন। ২০১৬ সালে প্রথমবার র‍্যাঙ্কিংয়ে প্রথম হয়েছিলেন তিনি। আর সবশেষ শীর্ষে ছিলেন ২০১৮ সালে। পাঁচ মাস পর সেবার তাকে শীর্ষস্থান হারাতে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদার কাছে।

এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ৭ উইকেট নেওয়া রবীন্দ্র জাদেজা ঢুকে গেছেন সেরে দশে। ছয় ধাপ এগিয়ে ৯ নম্বরে রয়েছেন তিনি।

অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে যথারীতি শীর্ষে আছেন জাদেজা। তবে শীর্ষস্থান আরও মজবুত হয়েছে। তার সতীর্থ আকসার প্যাটেল দুই ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন পাঁচে।

ব্যাটারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সেরা দশে কোনো পরিবর্তন হয়নি। শীর্ষে আছেন অস্ট্রেলিয়ার মার্নাস লাবুশেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩৮ রানের ইনিংস খেলে চার ধাপ এগিয়ে ১১তম স্থানে উঠেছেন কিউই ব্যাটার টম ব্লান্ডেল। পাঁচ ধাপ এগিয়ে ১৭ নম্বরে আছেন ডেভিড কনওয়ে।

Comments

The Daily Star  | English

Now, battery-run rickshaws to ply on Dhaka roads

Road, Transport and Bridges Minister Obaidul Quader today said the battery-run rickshaws and easy bikes will ply on the Dhaka city roads

10m ago