সাকিব-লিটনকে আইপিএলে যেতে দেওয়ার পক্ষে মাশরাফি

আগামী ৩১ মার্চ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এবারের আইপিএল। সেই দিনই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। সাকিব ও লিটনের চান সে ম্যাচ খেলেই আইপিএলে যোগ দিতে। তবে ৪ এপ্রিল থেকে দুই দলের মধ্যে একটি টেস্ট ম্যাচও রয়েছে।

বেশ কিছু দিন থেকেই বাংলাদেশের ক্রিকেট অঙ্গনে মূল আলোচনা সাকিব আল হাসান ও লিটন কুমার দাসের আইপিএল খেলতে যাওয়া নিয়ে। একই সময়ে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ থাকলেও এ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলতে অনাপত্তি পত্রের জন্য আবেদন করেছেন এ দুই ক্রিকেটার। তবে তাদের এখনই ছাড়তে চায় না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

আগামী ৩১ মার্চ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এবারের আইপিএল। সেই দিনই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। সাকিব ও লিটনের চান সে ম্যাচ খেলেই আইপিএলে যোগ দিতে। তবে ৪ এপ্রিল থেকে দুই দলের মধ্যে একটি টেস্ট ম্যাচও রয়েছে।

এর আগে দেশের খেলা থাকলে ছাড়পত্র দিবেন না বলেই জানিয়েছেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। তার সঙ্গে সূর মিলিয়ে একই কথা বলেছেন দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহেও। কিন্তু তাদের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। আলোচনা সাপেক্ষে এ দুই ক্রিকেটারকে আইপিএলে খেলতে দেওয়ার পক্ষে তিনি।

সোমবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে অসাধারণ বোলিং করেছেন মাশরাফি। তুলে নিয়েছেন ফাইফার। তার তোপেই মোহামেডানকে মাত্র ৮০ রানে গুটিয়ে ১০ উইকেটের জয় পায় রূপগঞ্জ।

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মাশরাফি। সেখানে উঠে আসে সাকিব-লিটনের আইপিএল খেলতে যাওয়ার প্রসঙ্গও। মাশরাফি বলেন, 'বাংলাদেশের কী খেলা আছে এর মধ্যে? টেস্ট খেলা থাকলেও সেটা যদি ম্যানেজেবল হয় কাউকে দিয়ে তাহলে গেলে তো সমস্যা নেই। পৃথিবীর অন্যান্য কোনো দেশ তো কোনো ক্রিকেটারকে আটকাচ্ছে না। আমরা শুধু শুধু ইমোশনাল হয়ে তো লাভ নেই।'

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের ছাড়াই টাইগারদের খেলার সামর্থ্য রয়েছে বলে মনে করেন মাশরাফি, 'এদিকে তো আমরা অনেক প্লেয়ারকে চেঞ্জ করে খেলাচ্ছি। খেলাচ্ছি না তা তো না। ওদের যখন ভালো জায়গায় সুযোগ হয়, তখন বারবার আটকানো তো ঠিক না। খোলামেলা আলাপ করা উচিত ওদের সঙ্গে। ওরা যদি মন থেকে যেতে চায় তাহলে... হোয়াই নট? আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে যেহেতু টেস্ট ম্যাচ আমার মনে হয়, আমাদের এটা ম্যানেজ করার এবিলিটি আছে। বিশেষ করে টেস্ট ম্যাচে।'

'ইংল্যান্ডের সঙ্গে ১-২ জনকে সরিয়ে খেলেছে বাংলাদেশ। এদিক ওদিক করে। একই খেলা আয়ারল্যান্ডের সঙ্গেও খেলেছে। এভাবে শিফট করে তো করা যায়। তো ইংল্যান্ডে কেন নিতে পারবে না? সিরিজটা কতোটা গুরুত্বপূর্ণ সেটাও বুঝতে হবে। তো যে ক্রিকেটারটা আইপিএলে সুযোগ পেয়েছে তার সঙ্গে কথা বলে এটার সমাধানে আসা উচিত,' যোগ করেন মাশরাফি।

তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা সাকিব ও লিটনের সঙ্গে আলোচনা করেই বিসিবির নেওয়া উচিৎ বলে মনে করেন মাশরাফি, 'যেতে চায় কি চায় না সেটা আলোচনা করার পর বলা যাবে। সাকিব-লিটন ওরা ওদের কথা বলবে, তারপর বোর্ড বোর্ডের কথা বলবে। এভাবে একটা আলোচনা হবে। আমরা মিডিয়ায় এতো কথা বলে লাভ নেই। একটা সমাধান তো হবে নিশ্চয়ই।'

Comments

The Daily Star  | English

Bailey Road Fire: Death toll climbs to 44

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

4h ago