অগাস্টে বাংলাদেশে আসবে বিশ্বকাপ ট্রফি

আইসিসি জানিয়েছে, এবার সবচেয়ে বেশি ১৮টি দেশে ভ্রমণ করবে বিশ্বকাপ ট্রফি। বিভিন্ন দেশে নিয়ে গিয়ে সাধারণ মানুষকে তা দেখার সুযোগ করে দেওয়া হবে।
icc world cup
মহাশূন্যে উন্মোচন করা হয় বিশ্বকাপ ট্রফির। ছবি: আইসিসি

আর মাস তিনেক পরই ভারতে শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর ওয়ানডে বিশ্বকাপ। তার আগে শুরু হয়েছে নানান আনুষ্ঠানিকতা। বিশ্বকাপের চিরায়ত ট্রফিটি ভূপৃষ্ঠ থেকে এক লাখ ২০ হাজার ফুট উচ্চতায় মহাশূন্যে উন্মোচন করে নামানো হয়েছে আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে। এবার এই ট্রফির বিশ্ব ভ্রমণের পালা। যার অংশ হিসেবে অগাস্টে ঢাকায়ও আসবে সেটি।

আইসিসি জানিয়েছে, এবার সবচেয়ে বেশি ১৮টি দেশে ভ্রমণ করবে বিশ্বকাপ ট্রফি। বিভিন্ন দেশে নিয়ে গিয়ে সাধারণ মানুষকে তা দেখার সুযোগ করে দেওয়া হবে।

২৭ জুন থেকে বিশ্বকাপ ট্রফির এই দর্শক সম্পৃক্ততার পর্ব শুরু হবে। শুরু হবে ১০০ দিনের ক্ষণগণনাও। বিশ্বকাপে খেলা দল ছাড়াও কুয়েত, বাহরাইন, মালয়েশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, নাইজেরিয়া, উগান্ডা, ফ্রান্স, ইতালির মতন দেশেও ভ্রমণ করবে বিশ্বকাপ ট্রফি। আইসিসি চাইছে পৃথিবীর নানা প্রান্তের অন্তত এক মিলিয়ন মানুষ যাতে এই ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ পায় সেই চেষ্টা থাকবে তাদের।

২৭ জুন থেকে বিশ্বকাপ ট্রফির ভ্রমণ শুরু হয়ে তা চলবে ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।  ২৭ থেকে ১৪ জুলাই ভারতের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যাওয়া হবে এই ট্রফি। এরপর ঘুরতে থাকবে বিভিন্ন দেশ। ৭ অগাস্ট শ্রীলঙ্কা থেকে বিশ্বকাপ ট্রফি আসবে বাংলাদেশ। ৯ অগাস্ট পর্যন্ত বাংলাদেশে থাকবে এই ট্রফি। নিয়ে যাওয়া হবে একাধিক স্থানে। বাংলাদেশ থেকে কুয়েতে যাবে ঐতিহাসিক ট্রফি। এভাবে ৪ সেপ্টেম্বর ফের ভারতে গিয়ে থামবে যাত্রা। এর এক মাস পর ৫ অক্টোবর থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপের মাঠের লড়াই। 

আইসিসির প্রধান নির্বাহী জিইফ অ্যালারডাইস বলেন, 'আইসিসির পুরুষ বিশ্বকাপ ট্রফির ভ্রমণ একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। এরমধ্যে দিয়ে বিশ্বকাপের এ পর্যন্ত সবচেয়ে বড় আসরের কাউন্টডাউন শুরু হবে। এই ভ্রমণে ট্রফিটি বিশ্বের ঐতিহাসিক বিভিন্ন স্থানে যাবে, দর্শকদের সম্পৃক্ত করবে। আমরা চাইব যত বেশি সম্ভব মানুষ যেন এর কাছে আসতে পারে।'

ট্রফি উন্মোচনের আয়োজনে ছিলেন আয়োজক দেশ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সদস্য সচিব জয় শাহ। তিনি জানান, ট্রফির ভ্রমণের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপের মূল উন্মাদনা শুরু হতে যাচ্ছে, 'অন্য যেকোনো খেলার চেয়ে ক্রিকেট ভারতে অনেক বেশি রোমাঞ্চকর ও জনপ্রিয়। আমরা ১০ দলের, ৬ সপ্তাহ ছুড়ে শ্বাসরুদ্ধর বিশ্বকাপ আয়োজনে প্রস্তুত। এর অংশ হিসেবে এই কাউন্ট ডাউন সারা দুনিয়ার বিপুল ভক্তকে সম্পৃক্ত করবে।'

Comments