ক্রিকেট

সৌরভের সেই মন্তব্যে মুখ খুললেন ওয়াকার

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দল ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার লড়াইটা একপেশে বলেই মন্তব্য করেছিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি। তার সেই মন্তব্য নিয়ে এবার কথা বলেছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিস।

ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে এখনও জিততে পারেনি পাকিস্তান। আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও তাদের সাফল্য একবারই। তাই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দলের লড়াইটা একপেশে বলেই মন্তব্য করেছিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও সাবেক বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি। তার সেই মন্তব্য নিয়ে এবার কথা বলেছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিস।

আসন্ন বিশ্বকাপের ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়ে সপ্তাহখানেক আগে জানতে চাওয়া হয়েছিল সৌরভের কাছে। তখন তিনি বলেছিলেন, 'এই ম্যাচ নিয়ে অনেক হাইপ আছে কিন্তু কোয়ালিটি অনেক দিন ধরেই তেমন ভালো ছিল না কারণ ভারত একতরফাভাবে জিতে আসছে। পাকিস্তান সম্ভবত দুবাইতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবার ভারতকে হারিয়েছিল।'

গাঙ্গুলির সেই মন্তব্য সম্পর্কে আগের দিন বুধবার লাহোরে ২০২৩ এশিয়া কাপের সময়সূচীর উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াকার ইউনুসকে মন্তব্য করতে বলা হয়। তবে এ নিয়ে কথা বলতে রাজী হননি ওয়াকার, 'আমি এ বিষয় নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না।'

তবে একই প্রসঙ্গ ফের উঠে এলে ওয়াকার বলেন, 'আমার মনে হয় আমাদের ভালো প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। পাকিস্তান যে ম্যাচটি জিতেছিল সেটা বেশ একতরফা ছিল (২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে)। কিন্তু আমরা যে ম্যাচ হেরেছিলাম সেগুলো খুব কাছাকাছি ছিল।

ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়ে বরাবরই বাড়তি উত্তেজনা কাজ করে সমর্থকদের মধ্যে। দুই দেশের সীমানা পেরিয়ে এর উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে সমগ্র বিশ্বে। তাই এই ম্যাচ নিয়ে কে কি মন্তব্য করল তাতে কিছু আসে যায় না বলেই মনে করেন ওয়াকার, 'আপনি যা খুশি বলতে পারেন, ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যাচ। যখন খেলার স্কেল এত বড় হয়, তখন কারো মন্তব্যই গুরুত্বপূর্ণ নয়।'

উল্লেখ্য, দুই দেশের মধ্যকার বৈরি রাজনৈতিক সম্পর্কের কারণে অনেক বছর ধরেই বন্ধ রয়েছে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। বর্তমানে কেবল আইসিসি ও এসিসির আয়োজিত টুর্নামেন্টেই মুখোমুখি হয় দলদুটি। এশিয়াকাপ ও বিশ্বকাপ মিলিয়ে এ বছর তিন থেকে পাঁচটি ম্যাচ পর্যন্ত হতে পারে এ দুই দলের।

Comments

The Daily Star  | English

Three out of four people still unbanked in Bangladesh

Only 28.3 percent had an account with a bank or NBFI last year, it showed, increasing from 26.2 percent the year prior.

10m ago