বিশ্বকাপের ডাকহর্স দক্ষিণ আফ্রিকা: জহির

এবারের দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে চমক দেখাতে পারে বলে মনে করেন ভারতের সাবেক পেসার জহির খান।

এবারের বিশ্বকাপের দাবীদার কারা? এ তালিকায় অধিকাংশ মানুষই ভারত, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের কথাই বলছে। এর সঙ্গে কেউ কেউ হয়তো নিউজিল্যান্ডের নামও যোগ করছেন। এর বাইরে খুব কম নামই উঠছে। তবে এবারের দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে চমক দেখাতে পারে বলে মনে করেন ভারতের সাবেক পেসার জহির খান। এই টুর্নামেন্টের ডাক হর্স তকমা প্রোটিয়াদেরই দিচ্ছেন তিনি।

সম্প্রতি ভারতে একটি ইভেন্টে যোগ দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেন জহির, 'প্রতিযোগী হিসাবে সবাই ভারত, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান এবং নিউজিল্যান্ডের কথা বলছে, কিন্তু আমি মনে করি এই বছর বিশ্বকাপে ডার্ক হর্স হবে দক্ষিণ আফ্রিকা। যদিও আইসিসি টুর্নামেন্টের ক্ষেত্রে দক্ষিণ আফ্রিকার ইতিহাস দারুণ কিছু নয়।'

তবে বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার ইতিহাস সমৃদ্ধ নয়। এমনকি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও নয়। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফেরার পর ১৯৯২ বিশ্বকাপেই সেমি-ফাইনালে উঠেছিল তারা। সেবার অবশ্য বৃষ্টির কারণে ফাইনালে ওঠা হয়নি তাদের। এরপর ১৯৯৯, ২০০৭ ও ২০১৫ সালের সেমি-ফাইনাল খেলেছে দলটি। কিন্তু কোনোবারই এই গণ্ডি পার হতে পারেনি দলটি।

পেসার আনরিক নরকিয়া না ইনজুরির কারণে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলেও, দক্ষিণ আফ্রিকার দলে এখনও অনেক ম্যাচজয়ী খেলোয়াড় রয়েছেন। তাদের অনেক খেলোয়াড়ের ভারতীয় কন্ডিশনের যথেষ্ট অভিজ্ঞতাও রয়েছে। অনেক খেলোয়াড়ই আইপিএলে নিয়মিত খেলেন। তাদের মধ্যে কুইন্টন ডি কক, ডেভিড মিলার, কাগিসো রাবাদা, হেনরিখ ক্লাসেন এবং এইডেন মার্করামের মতো খেলোয়াড়রা ফর্মে আছেন দারুণ।

সবকিছু বিবেচনা করেই প্রোটিয়াদের এগিয়ে রাখছেন জহির, 'তাদের কাছে 'চোকার' ট্যাগটিও রয়েছে যা তাদের সাথে যায়ও। কিন্তু তারপরও সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যেভাবে তারা খেলেছে, আমি মনে করি তারা ডার্ক হর্স হতে পারে। তাদের স্কোয়াডের কিছু খেলোয়াড় যদি ভারতীয় কন্ডিশনে ভালো করে, তারা অবশ্যই গণনা করার মতো শক্তি হবে।'

২০১৯ সালের মতো এবারও সব দলগুলো একে অপরের মুখোমুখি হবে গ্রুপ পর্বে। একে অপরের মুখোমুখি হওয়ায় মোট নয়টি করে ম্যাচ খেলবে প্রতিটি দল। শীর্ষ পয়েন্ট সংগ্রহকারী চারটি দল খেলবে সেমি-ফাইনালে। এরপর বাকি দুটি নকআউট ম্যাচে ভালো খেলতে পারলেই শিরোপা।

তাই যে কোনো কিছুই হতে পারে বলে বিশ্বাস করেন জহির, 'সংস্করণটি এমনই যে আপনি যদি লিগ পর্ব শেষে সেরা চারে থাকতে পারেন, এরপর শিরোপা জিততে আপনার আর মাত্র দুই দিনের ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে। এবং এমন পরিস্থিতিতে যে কেউ যে কাউকে হারাতে পারে। লীগ পর্বে দলগুলো কীভাবে পৌঁছায় এবং গতি তৈরি করে তাই গুরুত্বপূর্ণ হবে।'

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকা ছাড়া বিশ্বকাপে অপর তিন সেমি-ফাইনালিস্ট হিসেবে স্বাগতিক ভারত, বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ও টুর্নামেন্টের সবচেয়ে সফল দল অস্ট্রেলিয়াকে রেখেছেন জহির।

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

6h ago