আগামী বছর টেস্ট কম থাকাতেই আইপিএল খেলবেন স্টার্ক

২০১৮ সালের পর অনেকের আগ্রহ থাকলেও স্টার্ক আইপিএল থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখেন। জাতীয় দলের ব্যস্ততায় নিজেকে সতেজ রাখা ছিলো তার মূল প্রাধান্য।
mitchell starc
ছবি: ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

২৪ কোটি ৭৫ লাখ রুপি- চোখ ধাঁধানো টাকার অঙ্কে এবার নিলাম থেকে মিচেল স্টার্ককে দলে নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। আইপিএলে রেকর্ড মূল্য পেয়েও বাঁহাতি পেসার বলছেন তার কাছে টেস্ট ক্রিকেটই সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। ২০২৪ সালের সূচিতে টেস্ট কম থাকাতেই কেবল আইপিএল খেলবেন তিনি।

গত ১৯ ডিসেম্বর আইপিএলের সীমিত আকারের নিলামে ঝড় তুলেন স্টার্ক। চার দলের মধ্যে কাড়াকাড়ির পর তাকে দলে পায় কলকাতা। ওইদিন আরেক অস্ট্রেলিয়ান ক্যামেরন গ্রিনে রেকর্ড ছাড়িয়ে ২০ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের দল পেয়েছিলেন প্যাট কামিন্স। ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই সেই রেকর্ড ভেঙে ২৪ কোটি ৭৫ লাখ রুপি দাম উঠে স্টার্কের।

আইপিএলে নিলামে নাম দিয়ে বাঁহাতি পেসার যে বরাবরই সবার নজরে থাকবেন তা জানান দেয় ইতিহাসও। ২০১৮ সালে তাকে পেতে ৯ কোটি ৪০ লাখ দাম উঠায় কলকাতা। তবে চোটের কারণে সেবার খেলা হয়নি। স্টার্ক আইপিএল খেলেছেন কেবল দুই আসর। ২০১৪ ও ২০১৫ সালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গেলুরুর হয়ে ৫ কোটি মূল্য ছিলো তার।

২০১৮ সালের পর অনেকের আগ্রহ থাকলেও স্টার্ক আইপিএল থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখেন। জাতীয় দলের ব্যস্ততায় নিজেকে সতেজ রাখা ছিলো তার মূল প্রাধান্য।

রোববার মেলবোর্নে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে জানান এবার ব্যস্ততা কম বলেই নাম পাঠিয়েছিলেন, টেস্ট থাকলে তার অগ্রাধিকার থাকত লাল বলই,  'লাল বলের ক্রিকেটই এখনো পর্যন্ত আমার কাছে সর্বোচ্চ চূড়া। কখন টেস্ট ক্রিকেট ছাড়ব সেটা আমার শরীরই আমাকে বলে দেবে।'

'অস্ট্রেলিয়ায় এবার শীত মৌসুমে বেশি টেস্ট নেই। মার্চে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টের পর আর পরের গ্রীষ্মের আগে (অস্ট্রেলিয়ান গ্রীষ্ম অক্টোবর) আর কোন টেস্ট নেই। জুনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। আইপিএলে যে মানের ক্রিকেট হয় বিশ্বকাপের পথে এগুতে কাজে লাগবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আগামী বছর ব্যস্ততা কম। কাজেই আইপিএল খেলার সুযোগ আছে।'

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টেস্ট যাতে মিস না হয় সেজন্য নিজেকে যথেষ্ট সতেজ রাখতে চান ফাঁকা সময়ে। আইপিএলের সময়টা বেশিরভাগ সময় তার কাছে তাই বিশ্রামের উপলক্ষ মনে হয়। মাঝের ক'বছরে বিশাল টাকার হাতছানি থাকলেও তা গ্রহণ না করে আক্ষেপ নেই তার, 'আমাকে যখনই জানতে চাওয়া হয়েছে বলেছি টেস্ট ক্রিকেটকেই প্রাধান্য দেই। ক্রিকেট বাদে সময়টুকু অ্যালিসার সঙ্গে কাটিয়েছি, পরিবারকে দিয়েছি। ক্রিকেটের জন্য নিজেকে সতেজ করেছি। কাজেই ওই সময় আইপিএল না খেলা নিয়ে আক্ষেপ নেই।'

'এত টাকা পাওয়া নিশ্চয়ই দারুণ ব্যাপার। এবার তা পাব। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকেই আমি বরাবর প্রাধান্য দিয়ে আসছি।'

Comments

The Daily Star  | English
Flooding in Sylhet region | More rains threaten to worsen situation

More rains threaten to worsen situation

More than one million marooned; BMD predict more heavy rainfall in 72 hours; water slightly recedes in main rivers

3h ago