সৌম্য জানত পুরো দেশ ওর বিপক্ষে: হাথুরুসিংহে

নিউজিল্যান্ড সফরের আগে নেতিবাচক আলোচনায় ছিলেন সৌম্য সরকার। তাকে দলে নেওয়ায় উঠেছিলো বহু প্রশ্ন। তবে সেসব প্রশ্ন আপাতত চাপা পড়ে গেছে তারর পারফম্যান্সে। নিউজিল্যান্ডের মাঠে রেকর্ডময় সেঞ্চুরি করে এক রকম প্রত্যাবর্তনই যেন হয়ে গেছে সৌম্যের। এবার টি-টোয়েন্টির পালা, একদম ভিন্ন সংস্করণের চ্যালেঞ্জ।
Soumya Sarkar

নিউজিল্যান্ড সফরের আগে নেতিবাচক আলোচনায় ছিলেন সৌম্য সরকার। তাকে দলে নেওয়ায় উঠেছিলো বহু প্রশ্ন। তবে সেসব প্রশ্ন আপাতত চাপা পড়ে গেছে তারর পারফম্যান্সে। নিউজিল্যান্ডের মাঠে রেকর্ডময় সেঞ্চুরি করে এক রকম প্রত্যাবর্তনই যেন হয়ে গেছে সৌম্যের। তবে এই ইনিংসের আগে সৌম্য যে কঠিন পরিস্থিতিতে ছিলেন তা জানেন প্রধান কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে। প্রবল চাপ সামলে ফেলা ব্যাটারের কাছ থেকে টি-টোয়েন্টিতেও বড় কিছুর আশা তার। 

নেলসনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেত ১৫১ বলে ১৬৯ রানের ইনিংস খেলেন সৌম্য। বিদেশের মাঠে বাংলাদেশি ব্যাটারদের সবচেয়ে বড় ওয়ানডে ইনিংস। নিউজিল্যান্ডের মাঠে এশিয়ান ব্যাটারদের মধ্যে সবচেয়ে বড় ইনিংস। পরের ম্যাচে দলের জয়ে বল হাতেও ৩ উইকেট নিয়ে রাখেন অবদান।

বাংলাদেশ কোচের মতে খারাপ সময়টা ছিলো সাময়িক, সৌম্য তার সামর্থ্য দিয়েই প্রমাণ করেছেন তিনি কী করতে পারেন,  'সে যেভাবে পারফর্ম করেছে তাতে আমি খুব খুশি। আমরা সবাই জানি সে কী করত সমর্থ। সে আগেও এটা দেখিয়েছে। সবাই বলে ক্লাস হচ্ছে পারমানেন্ট, ফর্ম টেম্পোরারি। ফর্ম অনেক কিছুর উপর প্রভাব ফেলে। মাথার ভেতর কি চলছে সেটার প্রভাব থাকে। আপনি যখন মনের দিক থেকে স্পষ্ট থাকবেন, দলের ভূমিকা নির্দিষ্ট থাকবে এবং আদর্শ পরিবেশ থাকবে সব খেলোয়াড় তাদের সম্ভাবনা মেলে ধরতে পারে।' 

ভীষণ চাপ থেকে এভাবে ফিরে আসার পেছনে সৌম্যের নিজের ভূমিকাই বড় দেখেন হাথুরুসিংহে, সেই সঙ্গে তার উপর বিশ্বাস রাখার প্রভাবের কথাও জানান তিনি, 'আমি না ও নিজেই নিজেকে ফিরিয়েছে। দ্বিতীয় ওয়ানডের আগে এটা সৌম্যর জন্য ছিল 'হয় মারও  না হয় মরো' এটা প্রমাণ করে সে মানসিকভাবে কতটা শক্তিশালী। সে জানতো পুরো দেশ তার বিপক্ষে ছিল। সে যদি ব্যর্থ হতো তাহলে কি হতো সেটা আমরা জানি না। আমরা যে কাজটা ভালো করেছি সেটা হলো আমরা তাকে বিশ্বাস করেছি, তাকে আত্মবিশ্বাস যুগিয়েছি এবং পুরো দল তাকে সমর্থন দিয়েছে। তাতে মনে হয়ে সে ফর্ম ফিরে পায়।' 

তার সামনে এবার টি-টোয়েন্টির চ্যালেঞ্জ। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর বাদ পড়েন সৌম্য। এক বছরের বেশি সময়ের বিরতির পর তিনি এবার নামবেন এই সংস্করণে।

২০১৯ সালের পর ওয়ানডের চেয়ে টি-টোয়েন্টিতেই অনেক বেশি সুযোগ পেয়েছেন সৌম্য। কিন্তু এই সংস্করণে ধারাবাহিকতা আরও বেশি ভুগিয়েছে তাকে। ভিন্ন সংস্করণ হলেও ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টিতেও সৌম্যের ভালো না করার কারণ দেখেন না হাথুরুসিংহে,  'সে খুব পরিষ্কার মাথায় আছে, টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভালো না করার কারণ দেখি না।'

নিউজিল্যান্ডের মাঠে সর্বশেষ যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ, ২০২১ সালে সেই সিরিজে ভালো একটা ইনিংস ছিলো সৌম্যের। ১৬ ওভারে ১৭১ রান তাড়ায় এই নেপিয়ারেই তিনি খেলেন ২৭ বলে ৫১ রানের ইনিংস। আর কেউ সহায়তা করতে না পারায় বাংলাদেশের সেদিন জেতা হয়নি।

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

5h ago