রেকর্ডময় বোলিংয়ে সিরিজ সেরা শরিফুলে মুগ্ধ হাথুরুসিংহে

শেষ হওয়া তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৬ উইকেট নেন শরিফুল। তার আগে ওয়ানডে সিরিজে নেন ৭ উইকেট। রোববার অল্প পুঁজি নিয়ে লড়াই করার ম্যাচে ১৭ রানে ২ শিকার তার। গ্লেন ফিলিপসের পর আউট করেন ফিন অ্যালেনকে। অ্যালেনকে আউট করে একটি রেকর্ডও হয়ে যায় শরিফুলের।
Shoriful Islam

দারুণ বোলিংয়ে বাংলাদেশে জেতার সম্ভাবনা তৈরি করেছিলেন শরিফুল ইসলাম। দল জিততে না পারলেও সিরিজ খেলোয়াড়ের পুরস্কার উঠেছে তার হাতেই। বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসার স্মরনীয় সিরিজে গড়েছেন একটি রেকর্ডও। কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে মনে করছেন তার দলে এখন শরিফুলই সবচেয়ে সেরা।

শেষ হওয়া তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৬ উইকেট নেন শরিফুল। তার আগে ওয়ানডে সিরিজে নেন ৭ উইকেট। রোববার অল্প পুঁজি নিয়ে লড়াই করার ম্যাচে ১৭ রানে ২ শিকার তার। গ্লেন ফিলিপসের পর আউট করেন ফিন অ্যালেনকে। অ্যালেনকে আউট করে একটি রেকর্ডও হয়ে যায় শরিফুলের।

টি-টোয়েন্টিতে ৯ বারের দেখায় ৬ বারই অ্যালেনকে আউট করলেন তিনি। এই ৬ আউট এলো মুখোমুখি দেখা হওয়া টানা ছয় ম্যাচে। ২০২১ সালে নিউজিল্যান্ড দল বাংলাদেশ সফর করলে মিরপুরে অ্যালেনকে আউট করেন তিনি। পরের বছর বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজে নিউজিল্যান্ডে দুই ম্যাচে দুবার ফেরান অ্যালেনকে। এবার তিন ম্যাচের সিরিজে সবগুলোতেই শরিফুলের শিকার অ্যালেন।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে দুশমন্ত চামিরা আর রুয়ান্ডার মার্ক আকায়েজুরও আছে এই রেকর্ড। চামিরা রোহিত শর্মাকে ছয়বার আর আকায়েজুর তানজানিয়ার ইভান সেলেমানিকে ছয়বার আউট করেন। তবে শরিফুল তাদের থেকে ভিন্ন। তিনি আউট করলেন টানা ছয় বার, যা অনন্য।

শুধু অ্যালেনকে 'বানি' বানানোই নয়, শরিফুল পুরো সিরিজ জুড়ে দেখিয়েছেন নিজের দাপট। বাঁহাতি পেসে নিয়মিতই বাংলাদেশকে এনে দিয়েছেন ভালো শুরু। বিশ্বকাপের পর কিউইদের সঙ্গে টেস্টেও ভালো করতে দেখা গেছে তাকে।

সিরিজ শেষে বাঁহাতি পেসারের প্রশংসায় মাতলেন হাথুরুসিংহে,  'আমরা ড্রেসিংরুমে আলোচনা করেছিলাম তিন ফরম্যাটেই সম্প্রতি সে আমাদের জন্য অসাধারণ। ৮ মাস আগে সে দলেই ছিল না, কোনো ফরম্যাটেই খেলছিল না। এখন সে সেরা বোলার।'

Comments