আইপিএলে খেলতে না পেরে হতাশ তাসকিন

বিসিবি অনাপত্তি পত্র না পাওয়ায় এবারও আইপিএলে খেলা হচ্ছে না তাসকিনের।
তাসকিন আহমেদ
অনুশীলন সেরে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তাসকিন আহমেদ। ছবি: একুশ তাপাদার

আইপিএলে বরাবরই বিদেশি পেসারদের দর চড়া। এবার তো অস্ট্রেলিয়ার দুই পেসার মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স রেকর্ড পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন। সেখানে সুযোগ পেয়েও ক্রিকেট বোর্ড থেকে অনাপত্তি পত্র না পাওয়ায় খেলা হচ্ছে না বাংলাদেশি পেসার তাসকিন আহমেদের। তাতে স্বাভাবিকভাবেই হতাশ এই পেসার।

মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বোলিং অনুশীলন শেষে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন তাসকিন। সেখানে আইপিএলের প্রসঙ্গ উঠতেই কিছুটা অভিমানী সূর উঠল তার কণ্ঠে, 'আসলে এ নিয়ে তিনবার সুযোগ এলো (আইপিএলে), এবারও মিস হলো। একটু খারাপ লাগে কারণ খেলোয়াড় হিসেবে সবারই ইচ্ছে সব ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতে অংশগ্রহণ করার। শুধু আইপিএল না, বিভিন্ন লিগ থেকেই অফার আসে।'

মূলত তাসকিনকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চান না বলেই তাকে অনাপত্তি পত্র দিতে নারাজ বিসিবি। যে কারণে আইপিএলে এবার নাম দিয়েও পরে উঠিয়ে নেন। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে ইনজুরি প্রবণ এই পেসার। ভারতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপেও চোট পেয়েছিলেন। সেই চোট কাটিয়ে না উঠতে পারায় ছিলেন না সদ্য শেষ হওয়া নিউজিল্যান্ড সিরিজে। তবে বর্তমানে সম্পূর্ণ সুস্থ তিনি। মিরপুরে নিয়মিত বোলিংও করছেন। করেছেন আজও।

'বোর্ড আসলে ছাড়পত্র দিতে চায় না বিভিন্ন কারণে। খেলাও থাকে, স্বাস্থ্যের ইস্যু আছে। এবারও বোর্ডের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা বলেছে বিবেচনা করবে। কিন্তু অবশ্যই ভালো লাগে না এরকম ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো মিস করতে। সবারই খেলার ইচ্ছে, আমারও। একই রকম আশা নিয়ে আছি যে ভবিষ্যতে আবার হবে,' বলেন তাসকিন।

বর্তমানে বাংলাদেশের সেরা পেসারই মানা হয় তাসকিনকে। তাই বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ থেকে প্রস্তাব আসে খেলার। তবে খেলার সুযোগ তেমন একটা হয়ে ওঠে না মোটা অঙ্কের এই ক্রিকেটে। তবে গত বছর জিম্বাবুয়েতে টি-টেন টুর্নামেন্টে খেলেছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য, আইপিএলের নিলাম থেকে নাম তুলে নিলেও এরপর তাসকিনকে দলে নেওয়ার জন্য প্রস্তাব দেয় দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি। জানা গেছে, এই দুটি দল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও পাঞ্জাব কিংস। তাদের প্রস্তাব পেয়ে বিসিবিতে আবার যোগাযোগ করেন তাসকিন। কিন্তু বিষয়টি দেখবে বলেও কোনো ইতিবাচক সাড়া দেয়নি ক্রিকেট বোর্ড।

Comments

The Daily Star  | English

Nine Rohingyas killed in Ukhiya landslides

Cox's Bazar has been witnessing heavy rainfall since yesterday

47m ago