ক্রিকেট

শাহিনকে ক্রিকেটে মনোযোগ দিতে বললেন শহীদ আফ্রিদি

পাঁচ মাসও পূরণ হয়নি পাকিস্তান দলের টি-টোয়েন্টি সংস্করণের নেতৃত্ব পেয়েছিলেন শাহিন শাহ আফ্রিদি।

পাকিস্তান দলের টি-টোয়েন্টি সংস্করণের নেতৃত্ব পেয়েছিলেন পাঁচ মাসও পূরণ হয়নি। এরমধ্যেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে শাহিন শাহ আফ্রিদি। তাও আবার নেতৃত্বে ফিরিয়ে আনা হয়েছে বাবর আজমকে। এ নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনাই চলছে। তবে এ সকল কিছু না ভেবে শাহিন আফ্রিদিকে ক্রিকেটে মনোযোগী হতে বলেছেন তার শ্বশুর শহীদ আফ্রিদি।

ভারত বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর আমূল পরিবর্তন আসে পাকিস্তান দলে। কোচ, নির্বাচক পরিবর্তনের সঙ্গে তিন সংস্করণের অধিনায়কও বদলে যায়। টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক করা হয় শাহিন আফ্রিদিকে। কিন্তু তার অধীনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের পারফরম্যান্স ছিল যাচ্ছেতাই। পাঁচ ম্যাচের সিরিজে প্রথম চার টি-টোয়েন্টিতে হেরে যায় দলটি।

এরপর তার অধীনে লাহোর কালান্দার্সও ধুঁকেছে পিএসএলে। তখন থেকেই নানা সমালোচনা শুরু হয় শাহিন আফ্রিদিকে নিয়ে। শেষ পর্যন্ত তাকে সরিয়ে ফিরিয়ে আনা হয় বাবরকে। তবে এসব নিয়ে ভেবে শাহিনকে ক্রিকেট মনোযোগ দিতে বললেন শহীদ আফ্রিদি, 'আমি চাই শাহীন তার নিজের ক্রিকেটে মনোনিবেশ করুক। আমি সবসময়ই শাহিনকে অধিনায়কত্ব থেকে দূরে রাখার চেষ্টা করেছি।'

শাহিন আফ্রিদিকে পাকিস্তানের অধিনায়ক ঘোষণা করাও পছন্দ ছিল না শহীদ আফ্রিদির। তখন সরাসরিই এই কথা বলেছিলেন তিনি। এমনকি পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ফ্র্যাঞ্চাইজি লাহোর কালান্দার্সের অধিনায়কত্বের প্রস্তাব গ্রহণ না করার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি।

তবে নেতৃত্ব দিয়ে আবার তা কেড়ে নেওয়াও পছন্দ হয়নি শহীদ আফ্রিদির। তখন এক্সে লিখেছিলেন, 'নির্বাচক কমিটিতে থাকা খুব অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের নেওয়া সিদ্ধান্ত দেখে আমি খুব বিস্মিত হয়েছি। আমি এখনো মনে করি পরিবর্তন যদি দরকারই ছিল, তাহলে সেরা বিকল্প ছিল রিজওয়ান। সিদ্ধান্ত যখন নেওয়াই হয়ে গেছে, আমি পাকিস্তান দল এবং বাবর আজমকে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে যাব।'

Comments

The Daily Star  | English

13 killed in bus-pickup collision in Faridpur

At least 13 people were killed and several others were injured in a head-on collision between a bus and a pick-up at Kanaipur area in Faridpur's Sadar upazila this morning

2h ago