ফুটবল

ডর্টমুন্ডের বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন হালান্ড!

৮৯ ম্যাচে ৮৬ গোল। আধুনিক ফুটবলে এ পরিসংখ্যান অনেকটা অবিশ্বাস্যই বটে। বরুসিয়া ডর্টমুন্ডে তিন মৌসুমে এটা করেছিলেন নরওয়ের তারকা ফুটবলার আর্লিং হালান্ড। কিন্তু তারপরও কি-না এই ফুটবলার বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন ক্লাবটির জন্য। এমনটাই বলেছেন ডর্টমুন্ডের ক্রীড়া পরিচালক সেবাস্তিয়ান কেহল।

৮৯ ম্যাচে ৮৬ গোল। আধুনিক ফুটবলে এ পরিসংখ্যান অনেকটা অবিশ্বাস্যই বটে। বরুসিয়া ডর্টমুন্ডে তিন মৌসুমে এটা করেছিলেন নরওয়ের তারকা ফুটবলার আর্লিং হালান্ড। কিন্তু তারপরও কি-না এই ফুটবলার বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন ক্লাবটির জন্য। এমনটাই বলেছেন ডর্টমুন্ডের ক্রীড়া পরিচালক সেবাস্তিয়ান কেহল।

অনেক ক্লাবকে ঘিরে গুঞ্জন থাকলেও ২০১৯-২০ মৌসুমের শীতকালীন ট্রান্সফার উইন্ডোতে রেড বুল সলজবুর্গ ছেড়ে ডর্টমুন্ডে যোগ দেন হালান্ড। শুরু থেকেই নজরকাড়া পারফরম্যান্সে ক্লাবের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যে পরিণত হন। তবে এ মৌসুমেই তাকে ৬৩ মিলিয়ন ডলারে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে বিক্রি করে দেয় ক্লাবটি।

ইডুনা পার্কে হ্যাল্যান্ডের উপস্থিতি ডর্টমুন্ডের জন্য বিভ্রান্তিকর হয়ে উঠেছিল বলেই ক্লাবটি তাকে বিক্রি করে দিয়েছে বলে জানান কেহল। এ তারকা যাওয়ার জার্মান ক্লাবটি আরও এগিয়ে গিয়েছে বলে মনে করেন এ ক্রীড়া পরিচালক।

হালান্ডকে ডর্টমুন্ডের বোঝা আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, 'আমরা সবসময় আর্লিংয়ের প্রশংসা করেছি এবং আমাদের জার্সিতে তার সাফল্যের প্রশংসা করেছি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এ বিষয়টি অবশ্যই ড্রেসিংরুম এবং ক্লাব উভয়ের জন্যই বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। সাধারণভাবে, পুরো দলে তখন কেবল ওই ছিল।'

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে যোগ দিলেও মাহের পারফরম্যান্সে এতোটুকু ধার কমেনি হালান্ডের। উল্টো যেন আরও ক্ষুরধার হয়ে উঠেছেন। এরমধ্যে সিটির জার্সিতে আট ম্যাচে করেছেন ১২টি গোল। ইংলিশ লিগে গড়েছেন নতুন রেকর্ডও।

কিন্তু তারপরও তাকে সিটির কাছে বিক্রি করে দেওয়াটা নিজেদের সঠিক সিদ্ধান্ত বলে জানান কেহল। নিজের মন্তব্যের ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি, 'তাকে বিক্রি করা সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল। সিটি এবং আমাদের উভয়ের জন্যই ভালো হয়েছে। এই মৌসুমে আমাদের প্রথম ১০ গোল ১০ জন ভিন্ন খেলোয়াড় থেকে আসাতেই এটা প্রমাণ করে।'

হালান্ড ক্লাব ছাড়লেও জার্মান লিগে ভালোই খেলছে ডর্টমুন্ড। তার উপর হালান্ডের বিকল্প হয়ে আসা সাবেস্তিয়ান হলার টেস্টিকুলার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে আছে মাঠের বাইরে। প্রথম পাঁচ ম্যাচের চারটিতে জিতে ক্লাবটি পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও উড়ন্ত সূচনা পেয়েছে দলটি।

Comments

The Daily Star  | English