পিএসজিকে রুখে দিল বেনফিকা

দুর্দান্ত এক গোলে দলকে এগিয়ে দেন লিওনেল মেসি। কিন্তু লিড পিএসজি ধরে রাখতে পারেনি আত্মঘাতী গোল হজম করে।

শুরুতে তিনটি দারুণ সেভে গোলপোস্ট অক্ষত রাখলেন পিএসজি গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দোনারুমা। মাঝে দুর্দান্ত এক গোলে দলকে এগিয়ে দেন লিওনেল মেসি। কিন্তু লিড তারা ধরে রাখতে পারেনি আত্মঘাতী গোল হজম করে। বাকি সময়ে বেশ কিছু আক্রমণ করলেও গোলের দেখা মেলেনি ফরাসি লিগ ওয়ানের চ্যাম্পিয়নদের। তাদেরকে রুখে দিল বেনফিকা।  

ঘরের মাঠে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের 'এইচ' গ্রুপের ম্যাচে পিএসজির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে বেনফিকা। ফলে আসরের নকআউট পর্বে খেলার স্বপ্ন দারুণভাবে দেখছে পর্তুগিজ দলটি। তিন ম্যাচে পিএসজির সমান ৭ পয়েন্ট তাদেরও।

ম্যাচে বল দখলের লড়াইয়ে কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও দারুণ সব আক্রমণে ভীতি ছড়িয়েছিল স্বাগতিকরাই। ৬৫ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে ১৫টি শট নিয়ে ৭টি লক্ষ্যে রাখে পিএসজি। অন্যদিকে ৮টি শট নিয়েই ৬টি লক্ষ্যে রাখে বেনফিকা।

প্রতিপক্ষের মাঠে প্রথম মিনিটেই বেনজেমার ভুলে প্রায় গোল হজম করতে বসেছিল পিএসজি। অষ্টম মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ ছিল বেনফিকার। আন্তনিও সিলভার বাড়ানোর বলে ফাঁকায় পেয়েছিলেন গন্সালো রামোস। ভালো শটও নিয়েছিলেন। তবে তার শট দুর্দান্ত ভাবে ঠেকিয়ে দেন পিএসজি গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দোনারুমা।

১৪তম মিনিটে আবারও গন্সালো রামোসকে হতাশ করেন দোনারুমা। এবার ডিবক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শট ঠেকান এ ইতালিয়ান গোলরক্ষক। চার মিনিট পর দাভিদ নেরেসের আরও একটি প্রচেষ্টা নস্যাৎ করেন দেন এ গোলরক্ষক। 

২২তম মিনিটে এগিয়ে যায় পিএসজি। মেসির কাছ থেকে বল পেয়ে নেইমারকে দিয়ে ডি-বক্স ঢুকতে চেয়েছিলেন এমবাপে। তবে নেইমার খুঁজে নেন মেসিকে। বল পেয়ে প্রথম ছোঁয়া চিরাচরিত ট্রেডমার্ক শট। গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে হাওয়ায় ভেসে বল জায়গা নিল জালে।

৪১তম মিনিটে সমতায় ফেরে বেনফিকা। বাঁ প্রান্ত থেকে গন্সালো রামোসের উদ্দেশ্যে ক্রস দিয়েছিলেন এনজো ফার্নান্দেজ। বলের নাগাল পাননি তিনি। তবে পিএসজি ডিফেন্ডার দানিলো পেরেইরার গায়ে বল চলে যায় জালে।

৪৯তম মিনিটে ডি-বক্সের জটলা থেকে ফাঁকায় আলগা বল পেয়ে যান আশরাফ হাকিমি। ভালো শটও নিয়েছিলেন। তবে ঝাঁপিয়ে পড়ে তার শট ঠেকান বেনফিকা গোলরক্ষক। আলগা বল বুক দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দারুণ এক বাই সাইকেল কিক নিয়েছিলেন নেইমার। তবে দুর্ভাগ্য তার বারপোস্টে লেগে বেরিয়ে যায় তার প্রচেষ্টা। 

আট মিনিট পর নেইমারের নেওয়া ফ্রিকিক ঝাঁপিয়ে ঠেকান বেনফিকা গোলরক্ষক। ৬১তম মিনিটে মেসির পাস থেকে ফের ফাঁকায় পেয়েছিলেন হাকিমি। এবারও তার নেওয়া শট ঠেকিয়ে দেন বেনফিকা গোলরক্ষক। 

৬৭তম মিনিটে গ্রিমালদোর ফ্রিকিক থেকে নেওয়া শট ওতামেন্দির কাঁধে লেগে দিক বদলে জালের দিকেই যাচ্ছিল, অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। পরের মিনিটে এমবাপের ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শট দুর্দান্ত দক্ষতায় ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান বেনফিকা গোলরক্ষক।

৮১তম মিনিটে অবিশ্বাস্য এক সেভ করেন দোনারুমা। জোয়াও মারিও কাছ থেকে বল পেয়ে ডিবক্সে ঢুকে পড়েছিলেন রাফা। দুই ডিফেন্ডারের মাঝ থেকে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দারুণ শটও নিয়েছিলেন। তবে তার নেওয়া শট দুর্দান্ত দক্ষতায় ঠেকান পিএসজি গোলরক্ষক।

এরপরও সুযোগ ছিল দুই দলের। এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে বেশ চেপে ধরেছিল পিএসজি। পাল্টা আক্রমণ ভীতি ছড়াচ্ছিল বেনফিকাও। তবে শেষ পর্যন্ত কেউই গোলের দেখা পায়নি। ড্র মেনেই মাঠ ছাড়ে দুই দল।

Comments

The Daily Star  | English
Rana Plaza Tragedy: Trade union scenario in garment sector of Bangladesh

Trade unions surge, but workers' rights still unprotected

Although there has been a fivefold increase in number of unions in 11 years since the country's deadliest industrial incident, most are failing to live up to expectations

5h ago