প্রয়োজনে রোনালদোকে 'নাস্তা পরিবেশনও করবেন' নাসর কোচ

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে বেশ ঘটা করেই বরণ করে নিয়েছে সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসর। দলটির কোচ রুদি গার্সিয়াও অনুমিতভাবে দারুণ খুশি পাঁচবারের ব্যালন ডি'অরজয়ী পর্তুগিজ তারকাকে পেয়ে। তবে তার এই উচ্ছ্বাসের পিছনে কুমতলবের গন্ধ পাচ্ছেন ব্রাজিলের সাবেক তারকা জুনিনহো। তিনি জানালেন, রোনালদোর বন্ধু হতে প্রয়োজনে তাকে নাস্তাও পরিবেশন করবেন গার্সিয়া।
ছবি: এএফপি

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে বেশ ঘটা করেই বরণ করে নিয়েছে সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসর। দলটির কোচ রুদি গার্সিয়াও অনুমিতভাবে দারুণ খুশি পাঁচবারের ব্যালন ডি'অরজয়ী পর্তুগিজ তারকাকে পেয়ে। তবে তার এই উচ্ছ্বাসের পিছনে কুমতলবের গন্ধ পাচ্ছেন ব্রাজিলের সাবেক তারকা জুনিনহো। তিনি জানালেন, রোনালদোর বন্ধু হতে প্রয়োজনে তাকে নাস্তাও পরিবেশন করবেন গার্সিয়া।

গেল নভেম্বরে পারস্পরিক সমঝোতায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ার পর রোনালদোকে দলহীন অবস্থায় কাটাতে হয়েছে এক মাসেরও বেশি সময়। এরপর কিছুদিন আগে আল নাসরের সঙ্গে দেনদরবার করে বিপুল পরিমাণ বেতন-ভাতায় সেখানে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সৌদি প্রো লিগের ক্লাবটিতে আগামী ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত থাকতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, প্রতি বছর ২০ কোটি ইউরো ঢুকতে চলেছে রোনালদোর পকেটে।

সিআর সেভেনের মতো তারকাকে দলে টানতে পারলে কোনো কোচের আনন্দিত হওয়াটা অস্বাভাবিক নয় মোটেও। তবে জুনিনহোর মতে, আল নাসর কোচের আসর উদ্দেশ্য রোনালদোর সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতানো। কারণ তিনি নিজেও আলোচনার মধ্যমণি হয়ে থাকতে পছন্দ করেন। আর সেজন্য গার্সিয়া সবকিছুই করতে পারেন বলে মনে করেন এক সময়ের তার সঙ্গে কাজ করা জুনিনহো।
  
বুধবার পর্তুগিজ গণমাধ্যম মাইসফুতবলকে ব্রাজিলের সাবেক মিডফিল্ডার বলেন, 'সিআর সেভেনের ক্ষেত্রে... কেউ (তার ব্যাপারে) নাক গলালে সে (গার্সিয়া) কোনো কিছু করতেই পিছপা হবে না। আবার প্রয়োজনে সে ক্রিস্তিয়ানোকে নাস্তাও পরিবেশন করবে। সে ক্রিস্তিয়ানোর বন্ধু হওয়ার, তার কাছের একজন হওয়ার চেষ্টা করবে এবং সেজন্য সে সব কিছুই করবে। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর বন্ধু হতে পারাটা তার জন্য কাছে স্বপ্নের মতো হবে।'

সেখানেই থামেননি ফরাসি ক্লাব অলিম্পিক লিওঁর স্পোর্টিং ডিরেক্টর জুনিনহো। ২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত গার্সিয়া দলটিতে ছিলেন কোচের দায়িত্বে। সাবেক সহকর্মীর বিরুদ্ধে জুনিনহো তোলেন গুরুতর সব অভিযোগ। তার দাবি, ক্লাবের সঙ্কটের মুহূর্তেও নাকি দলের সাফল্য ও ড্রেসিংরুমের সম্প্রীতি নিয়ে মাথা ঘামাননা গার্সিয়া। সবার মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকতে পারাটাই তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

ব্রাজিলের জার্সিতে ২০০৬ বিশ্বকাপ খেলা প্রাক্তন ফুটবলার বলেন, 'গার্সিয়ার কাছে দলের সাফল্য ও ড্রেসিং রুমের পরিবেশ কোনো ব্যাপার না। তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হলো মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা, এমনকি সেটা সঙ্কটের সময়ে হলেও। কিন্তু সকল অতিমাত্রায় আবেগহীন মানুষের মতো সে তার চেয়ে বড় মাপের মানুষদের স্বীকৃতি দেয় ও সেটার সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করে। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়, একজন কিংবদন্তি আর রুদিও সেটা জানে।'

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

2h ago