এবার ব্রাজিলকে হারাল মরক্কো

তিতেকে ছাঁটাইয়ের পর অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হামোন মেনেসেসের অধীনে ঘুরে দাঁড়ানোর মিশনে নেমেছিল ব্রাজিল। অন্যদিকে ওয়ালেদ রেগরাগির দলের লক্ষ্য ছিল বিশ্বকাপ ছন্দ ধরে রাখা। উজ্জীবিত ফুটবল খেলে সেই লক্ষ্য দারুণভাবে সফল হলো দলটি।

একের পর এক জায়ান্ট দলকে হারিয়ে কাটার বিশ্বকাপে দারুণ চমক উপহার দিয়েছিল মরক্কো। আরব বিশ্বের প্রথম দল হিসেবে প্রথমবারের মতো খেলেছিল বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনাল। তবে সেটা যে কোনো ফ্লুক ছিল না সেটা আরও একবার প্রমাণ করল দলটি। বিশ্বকাপ শেষেও অনন্য তারা। এবার হারিয়ে দিল পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলকে।

মরক্কোর গ্র্যান্ড স্তাদে দে ত্যাঙ্গারে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ব্রাজিল ২-১ গোলের ব্যবধানে হারায় স্বাগতিকরা। ম্যাচের ২৩তম মিনিটে সোফিয়ানে বুফালের গোলে এগিয়ে যায় তারা। ৬৭তম মিনিটে অবশ্য ব্রাজিলকে সমতায় ফিরিয়েছিলেন কাসেমিরো। তবে ৭৯তম মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন আব্দেলহামিদ সাবিরি।

তিতেকে ছাঁটাইয়ের পর অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হামোন মেনেসেসের অধীনে বিশ্বকাপ ব্যর্থতা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর মিশনে নেমেছিল ব্রাজিল। অন্যদিকে ওয়ালেদ রেগরাগির দলের লক্ষ্য ছিল বিশ্বকাপ ছন্দ ধরে রাখা। উজ্জীবিত ফুটবল খেলে সেই লক্ষ্য দারুণভাবে সফল হলো দলটি। 

আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের ম্যাচে এদিন সমান তালেই লড়েছে দল দুটি। মাঝ মাঠের দখলে অবশ্য কিছুটা এগিয়েছিল ব্রাজিল। ৫৪ শতাংশ সময় বল দখলে ছিল তাদের। শট নেয় ১৪টি, যার ৪টি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে ১১টি শট নিয়ে ৩টি লক্ষ্যে রাখতে পারে মরক্কো।

তবে ম্যাচের ১৩তম মিনিটেই ব্রাজিলকে এগিয়ে দিতে পারতেন পালমেইরাসের তরুণ রনি। লুকাস পাকেতার থ্রু বলে গোলরক্ষককে একা পেয়েও লক্ষ্যে শট নিতে পারেননি তিনি। দশ মিনিট পর প্রথম সুযোগ পায় মরক্কো। হাকিম জিয়াশের পাস থেকে নুসায়ার মাজরাওয়ির জোরালো শট বেরিয়ে যায় পোস্ট ঘেঁষে।

২৪তম মিনিটে তো বিপদ প্রায় ডেকে এনেছিলেন মরক্কোর গোলরক্ষক ইয়াসিন বোনো। ডি-বক্স ছেড়ে এসে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের পায়ে বল তুলে দিয়েছিলেন। তবে তড়িৎ গতি ডি-বক্সে ঢুকে ঠেকান আন্দ্রে সান্তোসের শট। তবে আলগা বলে রনির শট কোনো মতে ধরে ফেলতে সমর্থ হন এ গোলরক্ষক।

দুই মিনিট পর বল জালে পাঠিয়েছিলেন ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। অফসাইডে থাকায় গোল মেলেনি। ২৯তম মিনিটে এগিয়ে যায় মরক্কো। ডি-বক্সের ফাঁকায় নিজে শট নিতে পারলেও শতভাগ নিশ্চিত হতে বুফালকে কাটব্যাক করেন বিলাল এল খানুস। বল ধরে অসাধারণ এক শটে লক্ষ্যভেদ করতে কোনো ভুল করেননি আল রাইয়ানের এ ফরোয়ার্ড।

সাত মিনিট পর সমতায় ফিরতে পারতো ব্রাজিল। সুবর্ণ এক সুযোগ হাতছাড়া করেন রদ্রিগো। গোলমুখে ফাঁকায় বল পেয়েও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি। পরের মিনিটে জিয়াশের শট পোস্ট ঘেঁষে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৪৮তম মিনিটে রদ্রিগো অসাধারণ ভলি ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন বোনো। আট মিনিট পর আজ্জেদিন উনাহির দূরপাল্লার প্রচেষ্টা ঠেকান ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক ওয়েভেরতন।

সমতায় ফিরতে ব্রাজিল এ সময়ে প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করে মরক্কো শিবিরে। রক্ষণভাগের দৃঢ়টায় রক্ষা পেলেও ৬৭তম মিনিটে মরক্কোর গোলরক্ষক বোনোর ভুলে সমতায় ফেরে ব্রাজিল। ডি-বক্সের বাইরের থেকে কাসেমিরোর নেওয়া শট নাগালেও ছিল বোনোর। ঝাঁপিয়ে ঠেকানোর চেষ্টায় ঠিক মতো না হয়নি। হাতে লেগে বল ঢুকে যায় জালে।

পাল্টা আক্রমণ থেকে ৭৯তম মিনিটে আবার ব্যবধান বাড়ায় মরক্কো। ইয়াহিয়া আত্তিয়াত আল্লাহর কাটব্যাক বুক দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নেন ওয়ালিদ ছেদদিরা। কাছেই থাকা সাবিরির জোরালো ভলিতে ক্রসবারে লেগে বল জালে প্রবেশ করলে উল্লাসে মাতে স্বাগতিকরা। এরপর সমতায় ফেরার চেষ্টা করলেও গোল না মিলায় হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ব্রাজিলকে।

Comments

The Daily Star  | English

Bangladesh, Qatar to sign 6 deals, 5 MoUs during Qatar emir’s visit

Bangladesh and Qatar will sign 11 cooperation documents -- six agreements and five MoUs -- as Dhaka is ready to welcome Qatar's Emir Sheikh Tamim bin Hamad Al Thani tomorrow afternoon

25m ago