বিপিএল ২০২৩

মাশরাফি-সাকিবের পার্থক্য নিয়ে যা বললেন জাকির

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) এবার সিলেট স্ট্রাইকার্সের হয়ে খেলছেন জাকির হাসান। যে দলটির অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। আর কিছু দিন আগে সাকিব আল হাসানের অধীনে বাংলাদেশ জাতীয় দলে অভিষেক হয় জাকিরের। দেশের অন্যতম সেরা এ দুই খেলোয়াড়ের নেতৃত্ব গুণ কাছ থেকেই দেখেছেন তিনি।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) এবার সিলেট স্ট্রাইকার্সের হয়ে খেলছেন জাকির হাসান। যে দলটির অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। আর কিছু দিন আগে সাকিব আল হাসানের অধীনে বাংলাদেশ জাতীয় দলে অভিষেক হয় জাকিরের। দেশের অন্যতম সেরা এ দুই খেলোয়াড়ের নেতৃত্ব গুণ কাছ থেকেই দেখেছেন তিনি।

তবে এ দুই অধিনায়কের মধ্যে তেমন কোনো পার্থক্য দেখছেন না জাকির। যদিও দুই জনের দর্শন ভিন্ন বলে মনে করেন তিনি। দুই অধিনায়কের মধ্যে পার্থক্যের কথা জানতে চাইলেন এ তরুণ বলেন, 'দুজনকে কারো সঙ্গে তুলনা করার কিছু নেই। দুজনই সেরা তাদের সাইডে। একেকজনের থিউরি একেকরকম।'

তবে দুই তারকাই নিজের মতো খেলতে অভয় দিয়েছেন জাকিরকে, 'সাকিব ভাইও সেইম বলেছে আমি নতুন এসেছি কোনো চাপ নেই। যেভাবে খেলে এসেছি প্রথম শ্রেণিতে, ওভাবে খেলতে। একই মাশরাফি ভাই ঔ বলেছে তুই যেভাবে খেলতে পছন্দ করিস, ওভাবেই খেলিস।'

আর মাশরাফির নেতৃত্ব খেলতে বরাবরই পছন্দ করেন জাকির, 'মাশরাফি ভাইয়ের নেতৃত্বে খেলতে সবসময় ভালো লাগে। উনার সঙ্গে আরও একবার খেলেছি, চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। এবারও খুব ভালো লাগছে। কোনো চাপ নেই, উনি বলেছে নিজের স্বাধীনতা নিয়ে খেলতে। কোনো ভয় নেই।'

লাল বলে এবার ভারতের বিপক্ষে দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন জাকির। প্রথম টেস্টে সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় টেস্টে ফিফটি। এরপর ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণেও ধরে রেখেছেন দারুণ ব্যাটিংয়ের ধারা। তবে তাতে অবদান রয়েছে আরেক অভিজ্ঞ তারকা মুশফিকুর রহিমেরও। কারণ স্বাভাবিকভাবে চারে ব্যাট করেন মুশফিক। এবার সে জায়গা ছেড়ে দিয়েছেন জাকিরের জন্য।

মুশফিকের এমন ছাড়ে নিজেকে সম্মানিত মনে করছেন এ তরুণ, 'এটা আসলে সম্মানের। মুশফিক ভাইয়ের মতো ক্রিকেটার উনি উনার জায়গা ছেড়ে আমাকে সুযোগ করে দিচ্ছে। আসলে এটা বলার মতো ভাষা নেই। উনার কাছ থেকে এই জিনিস পেয়ে খুব ভালো লেগেছে।'

তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগে রাজশাহীতে মুশফিকের অধীনে খেলেছিলেন জাকির। সেবারও চারে খেলেছেন জানিয়ে আরও বলেন, 'এর আগেও পেয়েছিলাম, রাজশাহীতে যখন খেলেছি, চারে ব্যাট করেছি। উনি সবসময়ই জিনিসটা ফ্লেক্সিবল করে দিয়েছেন, আমি, তৌহিদ হৃদয় বা আমরা যারা আছে। এই জিনিসটা খুবই ভালো লাগে। প্রাইড হয়।'

সংস্করণ ভিন্ন হলেও ভারতের মতো দলের বিপক্ষে ভালো খেলায় আত্মবিশ্বাস বেড়েছে তার, 'বিশ্বাস নিজের সবসময়ই ছিল। তবে আমার মনে হয় দুইটা টেস্ট খেলায়; ভারতের বোলারদের মুখোমুখি হওয়ায়, একটু আত্মবিশ্বাস এসে নিজেদের মধ্যে। ওভার অল সব মিলিয়ে আর কী নিজেরা আত্মবিশ্বাসটা ছিল; ওই ফেসটা করায় একটু ভালো হয়েছে মনে হয়।'

Comments

The Daily Star  | English
Bank Asia plans to acquire Bank Alfalah

Bank Asia moves a step closer to Bank Alfalah acquisition

A day earlier, Karachi-based Bank Alfalah disclosed the information on the Pakistan Stock exchange.

2h ago