তাদের শেষ বিশ্বকাপ

করিম বেনজেমা: যার ফিরে আসার গল্প হার মানায় সিনেমাকেও

চলতি নভেম্বরেই কাতারে বাজবে ফুটবল বিশ্বকাপের দামামা। সবচেয়ে মর্যাদার এই বিশ্বআসরে নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে মুখিয়ে থাকেন বিশ্বের সকল ফুটবলারই। তবে সেই সৌভাগ্য সবার হয় না, আবার যাদের হয় তাদেরও বয়সের বেড়াজালে থাকতে হয় বন্দী। ফর্ম সঙ্গ না দিলে ৩০ পেরোলেই থাকতে হয় বাতিলের খাতায় পড়ে যাবার শঙ্কায়। আবার দুরন্ত ফর্মে থাকলেও আজীবন এই সৌভাগ্য হয় না কারও, একটা সময় বয়সের কারণেই বলতে হয় বিদায়।

চলতি নভেম্বরেই কাতারে বাজবে ফুটবল বিশ্বকাপের দামামা। সবচেয়ে মর্যাদার এই বিশ্বআসরে নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে মুখিয়ে থাকেন বিশ্বের সকল ফুটবলারই। তবে সেই সৌভাগ্য সবার হয় না, আবার যাদের হয় তাদেরও বয়সের বেড়াজালে থাকতে হয় বন্দী। ফর্ম সঙ্গ না দিলে ৩০ পেরোলেই থাকতে হয় বাতিলের খাতায় পড়ে যাবার শঙ্কায়। আবার দুরন্ত ফর্মে থাকলেও আজীবন এই সৌভাগ্য হয় না কারও, একটা সময় বয়সের কারণেই বলতে হয় বিদায়।

২০২২ ফিফা বিশ্বকাপ হতে চলেছে অনেক তারকারই শেষ বিশ্বকাপ। গত এক দশকেরও বেশি সময় তারা মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন পায়ের মূর্ছনায়। কখনও কাঁদিয়েছেন ভক্তদের, আবার কখনও ভাসিয়েছেন আনন্দের জোয়ারে। তাদেরই একজন করিম মোস্তফা বেনজেমা। ত্রিশের কোঠা পেরিয়েছেন আগেই, বর্তমান বয়স ৩৪। এবারের পর পরবর্তী বিশ্বআসর আয়োজিত হবে ২০২৬ সালে। খেলা চালিয়ে গেলেও তখন তার বয়স দাঁড়াবে ৩৮। ফলে সেই বিশ্বকাপের ফ্রান্স দলে বেনজেমাকে দেখতে না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

২০২২ ব্যালন ডি'অর জয় ও সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে সবার মুখে এখন এই ফরাসি তারকার নাম। তবে সময়টা সবসময় এমন মধুর ছিল না বেনজেমার জন্য। ফুটবল মাঠের ক্যারিয়ারে যেমন ছিল উত্থান-পতন তেমনি মাঠের বাইরের নানা ঘটনায়ও হয়েছেন একাধিকবার বিতর্কিত। নাম জড়িয়েছিল নারীঘটিত কেলেঙ্কারিতেও। আবার সেক্স টেপের সূত্র ধরে সতীর্থকে ব্ল্যাকমেইল করার অপরাধে জাতীয় দল থেকে নিষিদ্ধ ছিলেন পাঁচ বছরেরও বেশি সময়।

বেনজেমার ক্যারিয়ারে শুরুর উত্থানটা ঘটে ফ্রান্সেই। মাত্র ১৭ বছর বয়সে ফরাসি ক্লাব লিঁওর হয়ে প্রথম সারির ক্লাব ফুটবলে যাত্রা শুরু হয় তার। ২০০৪-২০০৯ সময়কালে তাদের হয়ে চারবার জিতেন লিগ ওয়ানের শিরোপা। নিয়মিত পারফর্ম করে ২০০৭ সালে ডাক পেয়ে যান জাতীয় দলেও। ১৯ বছর বয়সে প্রথমবার জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপান তিনি। অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে বদলী হিসেবে নেমে অভিষেক ম্যাচেই করেন গোল। এরপর ২০১৫ সালে নিষিদ্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত লে ব্লুদের হয়ে খেলেছেন নিয়মিতই।

জাতীয় দলের হয়ে প্রথম বছরটা খুব একটা রঙিন কাটেনি বেনজেমার। ১০ ম্যাচ খেলে কেবল তিনবার জালের দেখা পান তিনি। এরপর ২০০৮ সালে ইনজুরিতে পড়ে কয়েক মাসের জন্য ছিটকে যান মাঠের বাইরে। সেই বছরেও জ্বলে উঠতে পারেননি, ১২ ম্যাচে মাঠে নেমে করেন মাত্র দুই গোল। ২০০৯ সালে গত বছরের তুলনায় কিছুটা ভালো করেন, ফ্রান্সের জার্সিতে আট ম্যাচে তিন গোল করেন সেই বছরে।

জাতীয় দলে বেনজেমার অভিষেকের পর ২০১০ সালে তার সুযোগ ছিল প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে ফ্রান্সের প্রতিনিধিত্ব করার। কিন্তু রেয়মন্ড ডমিনিকের বিশ্বকাপ দলে সেবার জায়গা হয়নি তার। সেবছর সুযোগ পেয়েছিলেন মাত্র পাঁচ ম্যাচে। তিন গোল করে ছিলেন যথেষ্ট উজ্জ্বল। বেনজেমার বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নেয় ২০১৪ সালে।

জার্মানির কাছে হেরে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয় ফ্রান্সকে, অভিষেক বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচ খেলে তিন গোল করতে সক্ষম হয়েছিলেন তিনি। ২০১১ থেকে ২০১৫ সালে নিষিদ্ধ হবার আগ পর্যন্ত বেনজেমা মাঠে নেমেছিলেন ৪৯টি ম্যাচে। এই সময়কালে গোল দিতে পেরেছিলেন মাত্র ১৬টি।

এরপরই বেনজেমার জীবনে নেমে আসে কালো অধ্যায় দীর্ঘ সময় জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়াতে না পারার আক্ষেপে পুড়তে হয় তাকে। তার অপেক্ষা কাটে ২০২১ সালের ২ জুন। ওয়েলসের বিপক্ষে সুযোগ পান আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে। সেসময় কোচের দায়িত্বে ছিলেন দিদিয়ের দেশম। ফ্রান্সের হয়ে নিজের সেরা সময় তিনি কাটান ফিরে এসেই। ওয়েলস ম্যাচ থেকে এখন পর্যন্ত ১৬টি ম্যাচে মাঠে নেমে ১০ বারই জালের দেখা পেয়েছেন এই স্ট্রাইকার।

২০২২ বিশ্বকাপে বেনজেমা হতে পারেন ফ্রান্সের তুরুপের তাস। আক্রমণভাগে কিলিয়ান এমবাপে, উসমান দেম্বেলেদের সাথে মিলে প্রতিপক্ষ রক্ষণে ত্রাস সৃষ্টির ক্ষমতা রাখেন তিনি। তার ওপর ২০২১-২২ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় ও তার সাম্প্রতিক ফর্ম যেকোনো প্রতিপক্ষকেই দুশ্চিন্তায় ফেলতে বাধ্য। রিয়াল মাদ্রিদে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো পরবর্তী সময়ে ধীরে ধীরে ফলস নাইন থেকে পরিণত হয়েছেন একজন খুনে স্ট্রাইকারে। ক্যারিয়ারের যেকোনো সময়ের চেয়ে গোলের সামনে এখন অধিক ধারাবাহিক তিনি।

২০১৮ সালে ফ্রান্স বিশ্বকাপ জিতলেও সেই অর্জনের সঙ্গী হতে পারেননি বেনজেমা। তাই এবারই সম্ভবত দেশের হয়ে বিশ্বকাপ শিরোপা উঁচিয়ে ধরার শেষ সুযোগটা পাবেন তিনি! বেনজেমা সুযোগ কাজে লাগাতে পারবেন কিনা সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে বিশ্বমঞ্চেই।

Comments

The Daily Star  | English
Effects of global warming on Dhaka's temperature rise

Dhaka getting hotter

Dhaka is now one of the fastest-warming cities in the world, as it has seen a staggering 97 percent rise in the number of days with temperature above 35 degrees Celsius over the last three decades.

10h ago