আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০২৩

বাংলাদেশের বিপক্ষে চোট পাওয়া উইলিয়ামসনের আঙুলে চিড়

হাঁটুর চোট কাটিয়ে ফেরার ম্যাচে আবার চোট পেয়ে ছিটকে গেছেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক।

বাংলাদেশের বিপক্ষে চোট পাওয়া উইলিয়ামসনের আঙুলে চিড়

হাঁটুর চোট কাটিয়ে ফেরার ম্যাচে আবার চোট পেয়ে ছিটকে গেছেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক।
ছবি: এএফপি

চোট পেয়ে আবারও মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন কেইন উইলিয়ামসন। বাংলাদেশের বিপক্ষে ফেরার ম্যাচে একটি থ্রোয়ে বল লেগেছিল তার বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলিতে। সেকারণে ব্যাটিং চালিয়ে যেতে পারেননি নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক। ম্যাচের পর এক্স-রে করে তার আঙুলে চিড় খুঁজে পাওয়া গেছে।

শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উইলিয়ামসনের বৃদ্ধাঙ্গুলিতে চিড় ধরার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি)। তবে ৩৩ বছর বয়সী তারকা ব্যাটারকে দল ছেঁটে ফেলা হচ্ছে না। বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সঙ্গেই থাকবেন তিনি। আগামী মাসে হতে যাওয়া লিগ পর্বের শেষদিকের ম্যাচগুলোতে তাকে পাওয়ার আশায় আছে কিউইরা।

উইলিয়ামসনের চোট নিয়ে নিউজিল্যান্ডের কোচ গ্যারি স্টিড বলেছেন, 'প্রথমত, অনেক পরিশ্রম করে হাঁটুর চোট থেকে ফেরার পর এমনটা ঘটায় আমাদের সবারই কেইনের জন্য খারাপ লাগছে। যদিও এটা খুবই হতাশার খবর, তবে প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার ফল আমাদেরকে কিছু আশা দিয়েছে। বিশ্রাম ও পুনর্বাসন প্রক্রিয়া পর লিগ পর্বের শেষদিকে সে খেলতে পারে।'

এবারের বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের প্রথম দুটি ম্যাচে খেলেননি উইলিয়ামসন। হাঁটুর চোট থেকে সেরে উঠে গতকাল শুক্রবার চেন্নাইতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। এর আগে তার শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচটি ছিল গত মার্চে। তার প্রত্যাবর্তনের দিনে ৮ উইকেটের বড় জয় পায় কিউইরা। সেখানে ব্যাট হাতে বড় অবদান রাখেন উইলিয়ামসন। তিনে নেমে আহত অবসরে যাওয়ার আগে ৭৮ রান করেন তিনি। ১০৭ বল মোকাবিলায় তিনি মারেন আটটি চার ও একটি ছক্কা।

নিউজিল্যান্ডের ইনিংসের ৩৮তম ওভারের প্রথম বলে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি ঘটেছিল। সিঙ্গেল পূর্ণ করার সময় একটি থ্রো এসে উইলিয়ামসনের বাম হাতে লেগেছিল। এরপর ফিজিওর কাছ থেকে কিছুক্ষণ চিকিৎসা নিয়ে খেলা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু এক বল মোকাবিলার পরই সমস‍্যা অনুভব করেন। তখন মাঠ ছেড়ে যেতে হয় তাকে।

সতর্কতার অংশ হিসেবে টম ব্লান্ডেলকে ভারতে ডেকে পাঠিয়েছে এনজেডসি। তবে তিনি এখনই আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বকাপ দলের সদস্য হচ্ছেন না। উইলিয়ামসনের সেরে ওঠার প্রক্রিয়া অনুসারে পরবর্তীতে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Why was Abu Sayed shot dead in cold blood?

Why was Abu Sayed of Rangpur's Begum Rokeya University shot down by police? He was standing alone, totally unarmed with arms stretched out, holding no weapons but a stick

18m ago