বাবরের সমালোচনা করে ভক্তের প্রশ্নে বিব্রত ওয়াসিম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হেরে সেমিফাইনালের আগেই বাদ পড়ার শঙ্কায় পাকিস্তান। দল নির্বাচন থেকে শুরু করে অধিনায়ক বাবর আজমের অধিনায়কত্ব, সবকিছুকেই তাই কাঠগড়াতে তুলছেন ভক্ত ও সাবেকরা। সবার মতোই পাক অধিনায়কের সমালোচনায় মেতেছিলেন দেশটির কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম।
এশিয়া কাপ ২০২৩

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হেরে সেমিফাইনালের আগেই বাদ পড়ার শঙ্কায় পাকিস্তান। দল নির্বাচন থেকে শুরু করে অধিনায়ক বাবর আজমের অধিনায়কত্ব, সবকিছুকেই তাই কাঠগড়াতে তুলছেন ভক্ত ও সাবেকরা। সবার মতোই পাক অধিনায়কের সমালোচনায় মেতেছিলেন দেশটির কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম, তবে সেটা করতে গিয়ে এক ভক্তের কাণ্ডে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন তিনি।  

বৃহস্পতিবার রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে পাকিস্তানকে এক রানে হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে। টপ ও মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৩০ রানের মামুলি লক্ষ্যই পার হতে পারেনি বাবর বাহিনী। শেষ দিকে মোহাম্মদ নাওয়াজ ও মোহাম্মদ ওয়াসিমের ৩৪ রানের জুটি না হলে হারের ব্যবধানটা হতে পারত আরও বড়। এমন ব্যাটিং পারফরম্যান্সের পর ৪০ বছর বয়সী অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শোয়েব মালিকের অভাব বোধ করা শুরু করেছেন ভক্ত ও সাবেকরা, ওয়াসিমও ধুয়ে দেন বাবরের অধিনায়কত্বকে।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম এ স্পোর্টসের টক শোতে সাবেক তারকা পেসার বলেন, 'এক বছর ধরেই আমরা জানি মিডল অর্ডার দুর্বল। শোয়েব মালিক বসে আছে এখানে। যদি আমি অধিনায়ক হতাম, আমার শেষ লক্ষ্য কি থাকত? বিশ্বকাপ জয়! এর জন্য আমি যেকোনো কিছুই করতাম। যদি আমি দলে শোয়েব মালিককে চাই আমি চেয়ারম্যান ও নির্বাচকদের বলতাম আমি বিশ্বকাপ খেলব না যদি আমি আমার খেলোয়াড়কে না পাই।' ওয়াসিম যখন কথা বলছিলেন তার সামনেই বসে ছিলেন একই অনুষ্ঠানে থাকা শোয়েব মালিক। 

এক দুষ্টু ভক্তের কল্যাণে এই সমালোচনাই কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে ওয়াসিমের জন্য। একদিন পরেই একই গণমাধ্যমে একজন ভক্ত মনে করিয়ে দেন নিজেই তার বিশ্বকাপ দলে শোয়েবকে রাখেননি ওয়াসিম। সেই ভক্ত প্রশ্ন ছুড়ে দেন, 'যখন একটা অনুষ্ঠানে আপনাকে আপনার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল বেছে নিতে বলা হয়েছিল আপনি মালিককে নেননি। হায়দারের জায়গায় আজম ছাড়া একই দলই রেখেছিলেন।'

ট্রল থেকে বাঁচতে ওয়াসিম নিয়েছেন আক্রমণের আশ্রয়। ঐ ভক্তকে জবাব দিয়ে তিনি বলেন, 'আপনার হাতে অনেক সময়। এটা একটা সিরিজ চলাকালে ঘটেছিল। একজন সাবেক ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার হিসেবে যখন আমাকে একাদশ দিতে বলা হয়, এটাই শেষ কাজ যেটা আমি করতে চাই। এটা খুবই বিরক্তিকর। তো তারা আমাকে দল দেয়, আমি বলি এটাই ঠিক আছে। আপনার মনে হয় আমি পুরো বই বের করে লিখতে বসি? না, আমি এটা করি না।'

Comments

The Daily Star  | English

Bangladesh, Qatar ink 10 cooperation documents

Bangladesh and Qatar today signed 10 cooperation documents -- five agreements and five MoUs -- to strengthen ties on multiple fronts and help the relations reach a new height

53m ago