আমার সাফল্যের রহস্য আমি নিজেই: লিটন

এসজির ব্যাট ও গ্লাভস ব্যাবহার করে স্বাচ্ছন্দ্য পেলেও কোন ক্রীড়া সামগ্রী নয় লিটন জানালেন তার সফলতার পেছনের কারিগর কেবল তিনি নিজেই।
Litton Das
এসজির শোরুম ঘুরে দেখছেন লিটন দাস। ছবি: স্টার

বিশ্বখ্যাত স্পোর্টস ব্র্যান্ড এসজির ব্যাট দিয়েই খেলেন লিটন দাস। এসজি তাই বাংলাদেশে তাদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে বেছে নিয়েছে লিটনকে। এসজির ব্যাট ও গ্লাভস ব্যাবহার করে স্বাচ্ছন্দ্য পেলেও কোন ক্রীড়া সামগ্রী নয়, লিটন জানালেন তার সফলতার পেছনের কারিগর কেবল তিনি নিজেই।

সাম্প্রতিক সময়ে দেশের সবচেয়ে ব্যাটসম্যান সফল লিটন। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ খারাপ গেলেও গত বছর দুয়েক ধরে বাংলাদেশ দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান এসেছে তার ব্যাটেই।  

মঙ্গলবার বিকেলে ধানমন্ডিতে এসজির শো'রুম উদ্বোধনে আসেন লিটন। ঘুরে-ঘুরে এসজির সামগ্রী দেখার ফাঁকে লিটন জানান, 'এই কোম্পানি অনেক ভালো। আমি ব্যাট ব্যবহার করি, গ্লাভস ব্যবহার করে যে স্বাচ্ছন্দ্য পাই, সেটা এসজি থেকেই এসেছে।' 

স্বাচ্ছন্দ্য পেলেও নিজের সফলতার কৃতিত্ব কোন ক্রীড়া সামগ্রিকে দিতে রাজী নন লিটন, 'আমার সাফল্যের রহস্য আমি নিজেই।'

দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে সিরিজে দারুণ খেলে বাংলাদেশ ঐতিহাসিক জয় পেলেও টেস্টে দেখা গেছে ভিন্ন ছবি। স্পিনের বিপক্ষে চরম ভোগান্তিতে দুই টেস্টেই হারতে হয়েছে বড় ব্যবধানে।

ঈদের পর ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আছে আরও দুই টেস্ট। লিটনের আশা লঙ্কানদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়াবেন তারা, 'অবশ্যই (ভালো কিছু আশা করতে পারি), যেহেতু আমাদের ঘরের মাঠে খেলা হবে। তাই আমরা আশা করতেই পারি, আমরা ভালো কিছু করব। যেহেতু এশিয়ার দল, আমরা অনেকদিন থেকেই তাদের সঙ্গে ভালো খেলছি। আশা করা যায় আমরা ভালো ফল করব।'

টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি সব সংস্করণেই রানের মধ্যে আছেন লিটন। তবে এই জায়গায় থমকে না থেকে নিজেকে পরের ধাপে নিয়ে যাওয়ার তীব্র তাড়না কাজ করছে তার ভেতর, 'একজন খেলোয়াড় বা মানুষের চাহিদার শেষ নেই। আজকে যে অবস্থায় আছি, সামনে আরও ভালো হওয়ার চেষ্টা করব। আপনিও আপনার জায়গা থেকে চেষ্টা করবেন, যাতে আগামী দিনটা আরও ভালো হয়। আমার জায়গা থেকে আমি মনে করি, আমি এখনও শতভাগ নই, চেষ্টা করব সামনে যেন ভালো কিছু করতে পারি।'

Comments

The Daily Star  | English

Somali pirates say MV Abdullah released after $5 million ransom paid

Somali pirates released a hijacked ship, MV Abdullah, and its crew of 23 early on Sunday after a $5 million ransom was paid, according to two pirates

2h ago